Breaking News

গুজবে কান দেবেন নাঃ যে তথ্য দিলেন প্রিয়াঙ্কা ।

ভারতের লোকসভা নির্বাচন শেষ হয়েছে ১৯ মে। ইতোমধ্যে ভোটের ফল নিয়ে গণমাধ্যমের করা এক্সিট পোল প্রকাশিত। তাতে ফের মোদীর গেরুয়া ঝড়ের ইঙ্গিত। খুব একটা সুবিধা করতে পারবে না কংগ্রেস, জানান দিচ্ছে সমীক্ষা। ‘তবে এই বানোয়াট এক্সিট পোল দেখে হতাশ হবেন না’ এমনই বার্তা কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর। মঙ্গলবার দলীয় কর্মী সমর্থকদের উদ্দ্যেশে তিনি বলেন, বুথ ফেরত সমীক্ষা দেখে হতাশ হবেন না, ভেঙে পড়বেন না। এগুলো গুজব, এসবে কান দেবেন না। এই ধরণের সমীক্ষাগুলিকে গুরুত্ব দেওয়ার দরকার নেই। আসল ফলাফল ভোটাররাই দেবেন। এক্সিট পোলের বেশিরভাগই ভুয়া হয় বলে মত প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর। প্রিয়াঙ্কার দাবি কংগ্রেসের মনোবল ভেঙে দেওয়ার জন্যই বিজেপি চক্রান্ত করে এই ধরণের বুথ ফেরত সমীক্ষাগুলি করিয়েছে। তাই তাঁর বার্তা কোনওভাবেই যেন প্ররোচনায় পা না দেওয়া হয়। কংগ্রেস কর্মীদের শক্ত থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। স্ট্রং রুমের আশেপাশে সন্দেহজনক গতিবিধি নজরে আসলে প্রশাসনের সঙ্গে সহযোগিতা করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। তিনি আরও বলেন ইভিএম এখন স্ট্রং রুম বন্দী। ফলে নানা চক্রান্ত করার ঘটনা ঘটতে পারে। সাবধান থাকুন, সতর্ক থাকুন। ২৩ তারিখ পর্যন্ত এই সতর্কতা জারি রাখুন।

একই কথা বলেন এনসিপি নেতা শরদ পাওয়ারও। তাঁর মতে এই সব এক্সিট পোলকে গুরুত্ব দেওয়ার কিছু হয়নি। সাধারণ মানুষ এই বুথ ফেরত সমীক্ষা নিয়ে বেশ হতাশ। আসল চেহারা দেখা যাবে ২৩ তারিখ। তার আগে, এত কথা না বলাই ভালো। ২৩ তারিখই সব সত্যি সামনে আসবে বলে আশা তাঁর। ভারতের গণমাধ্যম টাইমস নাও বলছে, ৩০৬ টি আসন নিয়ে ক্ষমতায় আসছে সেই বিজেপি। সমীক্ষা বলছে মার্জিন কমেছে, তবু মোদী-শাহ ম্যাজিক কাজ করে গিয়েছে এবারও। ২০১৪ সালে কাজ করেছিল প্রতিষ্ঠান বিরোধিতার হাওয়া। আর এবার প্রতিষ্ঠানের পক্ষেই রায় দিয়েছে দেশ। প্রো ইনকামবেন্সি ফ্যাক্টর কাজ করে গিয়েছে ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে, এমনই জানাচ্ছে টাইমস নাও। সমীক্ষায় চমকে দিয়েছে বাংলা। বুথ ফেরত সমীক্ষা বলছে পশ্চিমবঙ্গের ৪২টি আসনের মধ্যে ১১টি পেতে চলেছে বিজেপি। ৯টি আসন বাড়িয়ে মুকুল রায়কে স্বস্তি দিয়ে বাংলায় ফুটতে চলেছে পদ্মফুল। অন্যদিকে ২৯টি আসন পাবে তৃণমূল, বলছে সমীক্ষা। শতাংশের হিসেবে বিজেপির দখলে ৩১.৮৬ শতাংশ। কংগ্রেসের ৮.৮ শতাংশ। তৃণমূলের দখলে ৩৯.১ শতাংশ ও বামেদের ভাগ্যে জুটবে ১৫.৯ শতাংশ ভোট। নজরে ছিল উত্তরপ্রদেশ। বলা হয় এই রাজ্যের সবচেয়ে বেশি আসন যার, কেন্দ্রে ক্ষমতা তার। ৮০টি লোকসভা আসনের মধ্যে বিজেপির ভাগ্যে আসতে চলেছে ৫৬টি আসন। সেখানে মহাগঠবন্ধন বা এসপি বিএসপি জোট পাচ্ছে ২০টি আসন।