প্রসঙ্গ মালয়েশিয়াঃ আপনার আশেপাশের কারো মৃ’ত্যু হলে কি করবেন?

মানুষ ম’রণশী’ল- এটাই স্বা’ভাবিক, সেটা দূ’র প্রবাসে কিংবা দেশেও হতে পারে৷ বা’স্তবতার আলোকে দেখা যায়, প্রবাসে কেউ মা’রা গেলে দেখা দেয় নানা জ’টিলতা৷ মালয়েশিয়ায় ক’র্মস্থ’লে কারো মৃ’ত্যু হলে সেক্ষে’ত্রে মালিকের ত’ত্ত্বাবধায়নে পরবর্তী সব প্রক্রিয়া স’ম্পন্ন হয়৷ কিন্তু ক’র্মস্থ’লে না হয়ে, ব’সবাসের জায়গায় যদি কোন মালয়েশিয়া প্রবাসী বাংলাদেশী বা প্রতিবেশী মা’রা যায় সেক্ষে’ত্রে বাসার লোক বা বন্ধুদের কি করনীয়? এমন প্রশ্ন মাথায় আসলে তা জানতে আ’গ্রহী হয় প্রবাস কথা৷

বাসায় থাকা অ’বস্থায় কোন বাংলাদেশীর স্বাভাবিক মৃ’ত্যু হলে দেখা যায় নানা জ’টিলতার ভয়ে অনেক সময় অপর বাংলাদেশীরা পা’লিয়ে যায় বা আ’তংকে থাকে৷ এ সময় পা’লিয়ে গেলে সে আসলে অ’পরাধ না করেও ফেঁ’সে যেতে পারে। কারণ, সে পা’লিয়ে গেলেও তাকে শ’নাক্ত করার মত কিছু না কিছু ত’থ্য থেকে যায় কক্ষে৷ সেই ত’থ্যের মা’ধ্যমেই আ’ইন প্র’য়োগকা’রী সং’স্থা তাকে বেডর করে শা’স্তির আ’ওতায় নিয়ে আসে৷ এ রকম প’রিস্থিতিতে প্রবাসীরা কি করবে?

এ বিষয়ে বাংলাদেশ হাইকমিশনের কাছে করনীয় স’ম্পর্কে জানতে চাওয়া হয়। হাইকমিশনের একজন ক’র্মক’র্তা নাম না প্রকাশের অ’নুরোধ করে এ ব্যাপারে করণীয় সম্পর্কে জানান।তিনি বলেন- ‘এ রকম প’রিস্থিতিতে কোনভাবেই পা’লানো যাবে না৷ সে যদি দো’ষী না হয়, তাহলে সে ভয় কেন পাবে! কোন রকম উ’ত্তেজিত না হয়ে বা ভয় না পেয়ে সরাসরি নিকট’স্থ থানায় জানাতে হবে এবং আমাদেরকে জানাবে৷ পুলিশ কোন কিছু জানতে চাইলে সঠিক ত’থ্য দিয়ে স’হযোগিতা করলে সমস্যা নেই৷

আমাদের নি’র্দিষ্ট নম্বরে রাতে বা দিনে যে কোন সময় কল করতে পারবে৷ এক্ষেত্রে লা’শ দেশে দূত প্রেরণসহ সকল স’হযোগিতা দেবে হাইকমিশন।’ প্রয়োজনে বাংলাদেশ হাইকমিশনে যো’গাযো’গের নম্বরগুলো হলো- ০১২২৯৪১৬১৭, ০১২২৯০৩২৫২ ও ০১২৪৩১৩১৫০৷ হাইকমিশনের এই নম্বরগুলো ২৪ ঘন্টাই খোলা থাকবে৷ এ প্র’সঙ্গে প্রবীণ সাংবাদিক গৌতম রায় বলেন- ‘মৃ’ত্যুর কারণ যাই হোক পুলিশকে জানাতে হবে। কারণ, আ’ইনগতভাবে মৃ’ত্যুর ত’থ্য হাইকমিশনকে অ’বগত করবে মালয়েশিয়ার পুলিশ বা হাসপাতাল ক’র্তৃপ’ক্ষ।বাংলাদেশী হিসেবে এর চেয়ে বেশী কিছু করার সু’যোগ নেই। পরে হয়তো দেশে লা’শ পাঠাতে ব্য’বস্থা করতে পারে প্রবাসী বাংলাদেশীরা।’