বাংলাদেশের ছেলে মেহেদী সুযোগ পেলো যুক্তরাজ্যের নৌবাহিনীতে ।

মেহেদী সুযোগ পেল যুক্তরাজ্যের নৌবাহিনীতে– যুক্তরাজ্যের রয়্যাল নেভীতে কাজ করার সুযোগ পেয়েছেন বাংলাদেশের ময়মনসিংহের শেফ মো: মেহেদী হাসান (২২) । বাংলাদেশের এই তরুণ শিক্ষানবিশ রয়্যাল নেভীর সাধারণ প্রশিক্ষনের সময় নিয়োগপ্রাপ্তদের মধ্যে থেকে শীর্ষ পুরষ্কার লাভ করেন । শিক্ষানবিশ শেফ মো: মেহেদী হাসান ২০১৯ সালের জুলাই মাসে রয়্যাল নেভীতে যোগদান করেন। সা’ম’রি’ক পেশার প্রস্তুতি হিসেবে সম্প্রতি তার ১০ সপ্তাহের প্রশিক্ষণ সম্পন্ন হয়েছে।

প্রশিক্ষণটি শেষ হয় নব্য নিয়োগপ্রাপ্তদের প্যারেডের মধ্য দিয়ে। এই প্যারেডে পরিশ্রমের স্বীকৃতি স্বরুপ শেফ মো: মেহেদী হাসান ক্যাপ্টেন পদকে ভূষিত হন । শেফ হাসান যুক্তরাজ্যে এসেছিলেন স্কাউট অ্যাসোসিয়েশনের দাতব্য কর্মী হিসেবে। তিনি বলেন, ‘আমি স্কাউটিং পছন্দ করি। রয়্যাল নেভিতে যোগদানে স্কাউট আমাকে সাহস যুগিয়েছে। গত ১০ সপ্তাহ আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ সময় ছিলো এবং আমি রয়্যাল নেভির সদস্য হতে পেরে গর্বিত।

’ যুক্তরাজ্যের র‌য়্যাল নেভির প্রাথমিক নৌ প্রশিক্ষণ কোর্সটি নয়টি কেন্দ্রীয় নীতি ও দক্ষতায় পরিচালিত যা নৌ জীবন ও কার্যকর অপারেশনের ভিত্তি হিসেবে কাজ করে। প্রশিক্ষণে নিয়োগপ্রাপ্তদের মৌলিক নৌ শৃঙ্গলা ও রীতিনীতি, নেভিগেশন সম্পর্কে ধারণা দেওয়া হয়। পানিতে অনুশীলনের সময় তাদের নিজস্ব ইনফ্ল্যাটেবল বোট ব্যবহারের সুযোগ দেওয়া হয়। র‌য়্যাল নেভি সদস্যদের স্থলভিত্তিক অ’পা’রে’শ’ন’গু’লো’তে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হয়।

তাই নিয়োগপ্রাপ্তদের মৌলিক যু”দ্ধে”র প্রশিক্ষণও দেওয়া হয়। ফিটনেস অর্জন করা শেফ হাসানের প্রশিক্ষণের একটি মৌলিক অংশ। এই সা”ম”রি”ক প্রশিক্ষণটি সদস্যদের নিজস্ব ও সমন্বিত শক্তি ও সহনশীলতার বিকাশ ঘটাতে সহায়তা করে। সদস্যদের আরো তিনটি অতিরিক্ত অনুশীলনে অংশ নিতে হয় যেখানে কিছু পরীক্ষার সম্মুখীন হয়ে তাদের অর্জিত দক্ষতাকে ব্যবহার করে ।

চাঁদপুরের মতলবে এতিমখানার ছাদ ধ’স, আ’হ’ত ৫০ চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ফরাজীকান্দি এতিমখানার দোতলার ছাদ ধ’সে অর্ধশত আ’হ’ত হয়েছে। গতকাল শনিবার রাত পৌনে দশটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আ’হ’তরা সবাই এতিমখানার ছাত্র। আ’হ’তদের মধ্যে অন্তত ২৫ জনকে মতলব দক্ষিণ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়েছে। বাকিদের পাঠানো হয়েছে স্থানীয় আনন্দ বাজার, ছেংগারচর বাজার ও মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।

প্রত্যক্ষ দর্শী ও স্থানীয়রা জানায়, আগামী ১৬ ডিসেম্বর ফরাজীকান্দি আল আমিন এতিমখানা থেকে একটি টিম জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে, একটি টিম চাঁদপুর জেলা স্টেডিয়ামে এবং একটি টিম মতলব উত্তর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠানে কুচকাওয়াজ প্রদর্শন করতে পাঠানো হবে। সেই কারণে টিম লিডার মোহাম্মদ হোসেন এতিমখানার কুচকাওয়াজে অংশ নেয়া শিক্ষার্থীদের নিয়ে টিম মিটিং করছিলেন। এ সময় এতিমখানার বর্ধিত অংশের দোতলার ছাদ ভেঙে পড়ে এ দুর্ঘ’ট’না ঘটে।