ঠিকানা বলতে পারছে না, তবে বাড়ি ফিরতে চায় আসিয়া, আপনার একটি শেয়ারে সে খুজে পেতে পারে তার আপনজনদের ।

রাজধানীর রামপুরায় আসিয়া আক্তার নামে এক শিশুকে উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার তাকে পথচারী পারভেজ ফুটপাতে পেয়ে রামপুরা থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন।শিশুটি নিজের বাবা-মা ও জেলার নাম বলতে পারলেও ঠিকনা বলতে পারছে না। তবে সে বাবা-মায়ের কাছে ফিরতে চায়। শিশুটির তথ্য অনুযায়ী, তার বাবার নাম আব্দুল হান্নান। মা-জেসমীন। স্কুল-অক্সফোর্ড আইডিয়াল স্কুল। তার মা বাংলা শিক্ষক। গ্রামের বাড়ি ফেনী।

থানা সূত্র জানায়, রামপুরার আবুল হোটেলের বিপরীতে মামা হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টের সামনের ফুটপাতে একটা মেয়ে শিশুকে দেখতে পান পারভেজ নামে এক পথচারী। পরে তিনি শিশু আসিয়াকে রামপুরা থানায় নিয়ে আসেন। বর্তমানে মেয়েটি এসির জিম্মায় আছেন। পরিচিতজন বা অভিভাবকদের রামপুরায় থানায় (০১৭১৩৩৯৮৫২৬) যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।

কুড়িগ্রামের উলিপুরের ৪ বছর বয়সের ফুটফুটে শিশু সন্তান হাসানুর রহমান দীর্ঘদিন মারাত্মক ব্যাধিতে আক্রান্ত। হাসানুর উপজেলার তবকপুর ইউনিয়নের হামিরবাজার এলাকার হতদরিদ্র আমিনুল ইসলামের ছেলে।রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কার্ডিওলজি বিভাগের মেডিসিন ও হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ রবীন্দ্রনাথ পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে জানতে পারেন শিশুটির হার্ট ফুটো হয়েছে। পরে তাকে ঢাকা ইমপাল্স হাসপাতালের চিকিৎসক একেএম মঞ্জুরুল আলমের কাছে প্রেরণ করেন।

সেখানেও পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর একই কথা জানান চিকিৎসক এবং দ্রুত অপারেশন করার পরামর্শ দেন। চিকিৎসক জানান, হাসানুরের অপারেশন করতে ৩ লাখ টাকা খরচ হবে। কিন্তু এ বিপুল পরিমাণ অর্থ অসহায় পিতা-মাতা আমিনুল ইসলাম ও হাসিনা বেগমের পক্ষে ব্যয় করা সম্ভব নয়। তাই সমাজের বিত্তবান মানুষের কাছে শিশু সন্তান হাসানুর রহমানকে বাঁচাতে সাহায্যের আবেদন করেছেন। সহায়তার ঠিকানা: মা হাসিনা বেগম মোবাইল ও বিকাশ ০১৩০১-১৯৬৩৪৯।