সন্তানেরা আরেকবার রাস্তায় নামলে কারো পিঠের চামড়া থাকবে নাঃ ডিএমপি কমিশনার ।

‘সড়কে শৃঙ্খলার দাবিতে আরেকবার যদি আমাদের সন্তানেরা রাস্তায় নামে আমাদের কারো পিঠের চামড়া থাকবে না’ বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ‘ট্রাফিক সচেতনতামূলক পক্ষ-২০১৯’-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন। ডিএমপি কমিশনার শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘আরেকবার যদি আমাদের সন্তানেরা রাস্তায় নামে আমাদের কারো পিঠের চামড়া থাকবে না।

সেটা আমি পুলিশের কমিশনার হই আর আপনি মালিক সমিতির বড় নেতা নেতা হোন। এই শৃঙ্খলায় আমাদের আসতেই হবে।’শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘সুতরাং আসুন, আমার সন্তানের জন্য, আপনার সন্তানের জন্য, আমাদের সবার নিরাপত্তার জন্য, আমরা ট্রাফিক আইন মেনে চলি। ট্রাফিক পুলিশকে সহযোগিতা করি। আমাদের সহযোগিতা নিন, সবাই মিলে নিরাপদ সড়ক গড়ে তুলি।’

ডিএমপি কমিশনার বলেন, ‘সড়কে যদি সবাই শৃঙ্খলা মেনে চলে তাহলে তো আমাদের মামলা দেওয়ার দরকার হবে না। আমি মিটিং করে আমার অফিসারদের বলে দিয়েছি, যেখানে গাড়ি অচল হয়ে গেছে সেখানে গাড়ি রেকারিং হবে। অথবা যেখানে গাড়িটি রেখে মালিক এবং ড্রাইভার চলে গেছে। আমরা দীর্ঘ সময় চেষ্টা করেও গাড়ির মালিক এবং ড্রাইভারকে খুঁজে পাচ্ছি না, শুধু সেখানে রেকারিং হবে। এর বাইরে কোনো গাড়ি আমরা রেকারিং করব না।

’শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘বর্তমান আইনে একটি জরিমানা দিলে তার (গাড়িচালক) সারা মাসের উপার্জনটা চলে যাবে। সুতরাং যিনি অব্যাহতভাবে আইন অমান্য করবেন আমরা শুধু তার বিরুদ্ধে আইন প্রয়োগ করব। এবং আমরা খুব সামান্য পরিমাণে জরিমানা করব।’ পুলিশ কমিশনার আরো বলেন, ‘আপনি কী অপরাধ করেছেন তা আমরা আপনাকে দেখিয়ে দেব।

আমরা একবার বলব, দ্বিতীয়বার বলব কিন্তু তৃতীয়বার আর বলব না। তখন আমরা জরিমানা করব। কারণ, আপনি অব্যাহতভাবে আইন অমান্য করে যাবেন আর আমি শুধু বুঝিয়েই যাব তাহলে তো এই আইন প্রয়োগ করা হবে না। শৃঙ্খলায় চললে প্রত্যেকে লাভবান হবে। আর শৃঙ্খলায় না চললে কেউ লাভবান হবে না।’