বেশি দামে লবণ বিক্রির অভিযোগে বগুড়ায় ৪৪ জন আটক

গুজব ছড়িয়ে বেশি দামে লবণ বিক্রির অভিযোগে বগুড়া জেলার বিভিন্ন থানায় ৪৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ। আজ মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) রাত ৯ টার দি‌কে বগুড়ার পু‌লিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঁইয়া আট‌কের বিষয়‌টি নি‌শ্চিত ক‌রে জানান,দেশের কোথাও লবণের সংকট নেই। গুজব ছড়িয়ে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির পায়তারা বগুড়া জেলা পুলিশ কঠোর হস্তে দমন করবে। উল্লেখ্য, সোমবার (১৮ নভেম্বর) রাত থেকে সারা দেশের মতো বগুড়াতেও লবনের দাম বাড়ার গুজব ছড়িয়ে পড়লে লবণ কিনতে হুমরি খেয়ে পরে যায় হাজার হাজার মানুষ। অনেক যায়গায় সাভাবিক দামের চেয়ে দ্বিগুন দামে বিক্রি করতে দেখা গেছে লবন। পরে গুজব নিরসণে দুপুর থেকে জেলার বিভিন্ন উপজেলায় অভিযান চালানো হয়।

উল্লেখ্য, দেশে লবণের কৃত্রিম সংকট তৈরি করে অতিরিক্ত দামে বিক্রি করা হচ্ছে। এ বিষয়ে বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের পাশাপাশি সোচ্চার হয়েছে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স। দেশের কোথাও লবণের অতিরিক্ত দাম চাইলে জরুরি সেবা ‘৯৯৯’ এ কল দিয়ে তা জানানোর আহ্বান জানিয়েছে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এক প্রেসনোটে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পুলিশ সদর দফতরের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি-মিডিয়া) মো. সোহেল রানা।

তিনি বলেন, লবণের মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে এমন একটি গুজব ছড়িয়ে একটি স্বার্থান্বেষী মহল জনমনে বিভ্রান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করছে। ইতোমধ্যে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও তথ্য মন্ত্রণালয় নিশ্চিত করেছে যে, দেশে ৬ লাখ টন লবণ মজুত রয়েছে, যা আমাদের চাহিদার তুলনায় অনেক বেশি। তাই, লবণের মূল্য বৃদ্ধির কোনো সম্ভাবনা নেই। দেশের জনসাধারণকে গুজবে কান না দিতে ও বিভ্রান্তি না হতে অনুরোধ করা হচ্ছে। তিনি আরও বলেন,

দেশের কোথাও লবণের অতিরিক্ত দাম চাওয়া হলে তাৎক্ষণিকভাবে জরুরি সেবা ‘৯৯৯’ এ ফোন করে অথবা নিকটস্থ পুলিশকে জানান। এ দিকে মঙ্গলবার সকাল থেকে দেশের বিভিন্ন জেলার বাজার ও খুচরা দোকানে লবণের সংকট দেখা দেয়। অনেকে স্বাভাবিকের চেয়ে দ্বিগুণ দামে লবণ কিনেছেন বলে দাবি করেন। এক বিজ্ঞপ্তিতে শিল্প মন্ত্রণালয় জানিয়েছে,

দেশে বর্তমানে সাড়ে ছয় লাখ টনের বেশি ভোজ্য লবণ মজুত রয়েছে। এর মধ্যে কক্সবাজার ও চট্টগ্রামের লবণ চাষিদের কাছে চার লাখ ৫ হাজার টন এবং বিভিন্ন লবণ মিলের গুদামে দুই লাখ ৪৫ হাজার টন লবণ মজুত রয়েছে। তারপরও একটি স্বার্থান্বেষী মহল লবণের সংকট রয়েছে মর্মে গুজব রটনা করে অধিক মুনাফা লাভের আশায় অপচেষ্টা চালাচ্ছে বলে প্রতীয়মান হচ্ছে।এ ধরনের গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য আহ্বান শিল্প মন্ত্রণালয়ের।