হোটেলে অ,নৈতিক কাজের সময় খ,দ্দেরসহ আ,টক ১২

আবাসিক হোটেলে অভিযান চালিয়ে অ**নৈ*তিক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে ১২ জনকে আ*ট*ক করেছে সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক)। মঙ্গলবার সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর নেতৃত্বে সিটি করপোরেশনের একটি টিম লালবাজার এলাকার ড্রেন- নালা ও মাংসের দোকান পরিদর্শন করতে যান। এ সময় ওই এলাকার স্থানীয়রা মেয়রের কাছে আজাদ বোর্ডিং নামের একটি আবাসিক হোটেল দিনে-রাতে অ**সামাজিক কার্যকলাপ চলে বলে অভিযোগ করেন।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে কোতোয়ালী মডেল থানা পুলিশ ও এসএমপি পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবহিত করলে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর উপস্থিতিতেই আজাদ বোর্ডিংয়ে অভিযান চালনো হয়। এ অভিযানে হোটেল থেকে ৫ নারী ও ৭ জন পুরুষ৮কে আ**টক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। সেইসঙ্গে সিলগালা করে দেওয়া হয় আজাদ বোর্ডিং। এ সময় মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, ‘পবিত্র এই নগরীকে কোনোভাবেই অপবিত্র করতে দেওয়া হবে না।

যারা এই অ**সামাজিক কাজে জড়িত থাকবেন তাদের বি*৮রুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’ এ সময় সিসিকের প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মো. জসীম উদ্দিন, নির্বাহী প্রকৌশলী আলী আকবর, লাইসেন্স কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর, লাইসেন্স পরিদর্শক মো. আসাদুজ্জামান, রুবেল আহমদ নান্নুসহ সিসিকের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।