নি;হ’ত শিশুটির পরিবারের সন্ধান মিলছে না ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে ১৬জন নিহত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আহত হয়েছে অনেক যাত্রী। এই সংখ্যা শতাধিক বলে জানা গেছে। মঙ্গলবার ভোর রাতে এই ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, সিলেট থেকে চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেস লুপ লাইন দিয়ে মন্দবাগ স্টেশনে প্রবেশ করছিল রাত দুইটা ৪৩ মিনিটে। ওই সময় ঢাকাগামী চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা তুর্ণা নিশীথা এক্সপ্রেস মন্দবাগ স্টেশনের মূল লাইনে দাঁড়ানোর কথা।

তুর্ণা ট্রেনটি স্টেশনে না দাঁড়িয়ে স্বাভাবিক গতিতে চলতে থাকে। উদয়ন এক্সপ্রেস লুপ লাইনে ঢোকার মুখে তুর্ণা এক্সপ্রেসে ধাক্কা দেয়। উদয়ন এক্সপ্রেসের ইঞ্জিনের দিক থেকে ৭, ৮ ও ৯ নম্বর বগি তুর্ণা ট্রেনের ইঞ্জিনের ধাক্কায় চূর্ণ-বিচূর্ণ হয়। ট্রেন দুর্ঘটনার এই শিশুর লাশটি ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে মর্গে আছে যদি কারো পরিচিত হয় তাহলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করছি। শেয়ার দিয়ে অন্তত লাশটি পরিবারের কাছে পৌঁছে দিতে সাহায্য করুন।