সাকিবের শাস্তি কমানোর জন্য যা করার করবে বিসিবি

সাকিব আল হাসান ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হয়েছেন। এই সময়টা দুই বছরের জন্য। তবে দুই বছরের মধ্যে একবছর স্থগিতও করে দিয়েছে আইসিসি। বাকি থাকলো এক বছর। এই এক বছরে সাকিব যদি আর কোন দুর্নীতির সাথে জড়িত না হয় এবং আইসিসির নির্দেশনা মানে তাহলে এক বছর পরই খেলায় ফিরতে পারবে। এদিকে সাকিব ভক্তদের মনে প্রশ্ন, এই এক বছরও কি কোন ভাবে কমাতে পারে না? উত্তরটা হল হ্যা। কমতে পারে। তবে সেটা কেবল মাত্র আইসিসি চাইলেই সম্ভব।

সেই চাওয়াটা পাওয়ায় রুপান্তর করতে হলে সাকিবকে করতে হবে কিছু কাজ। সাকিব আগেও আইসিসির বিভিন্ন দুর্নীতিবিরোধী কর্মকাণ্ডে অংশ গ্রহন করেছে। সেই ধারা অব্যাহত থাকবে এটা বলাই যায়। এই সব কর্মকাণ্ডে সাকিবের অংশগ্রহনে আইসিসি সন্তুষ্ট হলে কমতে পারে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ। একই সাথে বিসিসি যদি আবেদন করে শাস্তি কমানোর জন্য এবং সাকিব যদি আইসিসির নির্দেশনা মেনে চলেন সেক্ষেত্রে আইসিসি তার শাস্তি কমিয়েও দিতে পারে। এখন কথা হচ্ছে বিসিবি কি করবে?

বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘দেখুন এই বিষয়ে বিসিবির করণীয় খুবই সীমিত। যেহেতু সাকিব এই বিষয়টি স্বীকার করে একটি চুক্তির মধ্যে চলে গিয়েছে। তারপরেও আমরা দেখবো। আইনি বিষয়গুলো নিয়ে কীভাবে কাজ করা যায়। আমরা ইতোমধ্যে আমাদের আইনি বিভাগের (লিগ্যাল কমিটি) সঙ্গে কথা বলছি।

এই বিষয়ে কোন সুযোগ আছে কিনা, সেটা আমরা ওয়ার্ক আউট করব। প্রধান নির্বাহী বলেন, ‘এই মুহূর্তে এই বিষয়ে মন্তব্য করা উচিত নয়। আগে আগে হয়ে যাবে মন্তব্য। মাত্র দুদিন হল এই বিষয়ে আমরা একটি সিদ্ধান্ত জানতে পেরেছি। এটা নীতিগত সিদ্ধান্ত। এই বিষয়গুলো নিয়ে বোর্ডে আলোচনা করতে হবে। কতটুকু করা যায় বা কতটুকু করার সুযোগ রয়েছে এটা নিয়ে আলোচনা করতে হবে বোর্ড সভায়। যেহেতু এটা আইনি প্রক্রিয়া। এটা জেনে তারপরই সিদ্ধান্ত নিতে হবে।