ট্রেনে সিলিন্ডার বি’স্ফোরণে ৪৬ যাত্রী নি’হত

ট্রেনে একটি গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের পর অগ্নিকাণ্ডে ৪৬ যাত্রী নিহত হয়েছে। পাকিস্তানের লিয়াকতপুর শহরের কাছে তেজগাম নামের ট্রেনে বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) জেলা কমিশনার রাহিম ইয়ার খান এমন তথ্য দিয়েছেন। খবরে বলা হয়েছে, নিহতদের মধ্যে নারী ও শিশুরাও রয়েছে। এখন পর্যন্ত কাউকে শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি।

হতাহতদের লিয়াকতপুরের ডিএইচকিউ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আন্তর্জাতিক একটি পত্রিকা জানায়, ট্রেনটি তেজগাম থেকে রাওয়ালপিন্ডিতে যাচ্ছিল। তখন এক যাত্রীর গ্যাস সিলিন্ডারের বিস্ফোরণে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। জেলা পুলিশ কর্মকর্তা সর্দার মুহাম্মদ আমির তৈমুর খান প্রথমে নিহতের সংখ্যা ২৫ উল্লেখ করলে, পরে ৪৬ জনে গিয়ে দাঁড়িয়েছে বলে জানান।

পাকিস্তান রেলওয়ে কর্মকর্তারা বলেন, একটি গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে এই হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। যে কোচে বিস্ফোরণটি ঘটেছে, সেটি তাবলীগ জামাতের এক লোক বুকিং নিয়েছিলেন। সকালের নাস্তা তৈরিতে তিনি গ্যাস স্টোভে ডিম সিদ্ধ করছিলেন, তখনই বিকট বিস্ফোরণে চারপাশে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। পাকিস্তানের রেলওয়েমন্ত্রী শেখ রশিদও এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এতে ট্রেনে আরও দুটি কোচ গ্রাস করে নেয় আগুন। ইমার্জেন্সি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার কাজ চালাচ্ছে বলে খবরে বলা হয়েছে।

পাকিস্তানের আইএসপিআরের এক বিবৃতিতে জানা গেছে, আহতদের উদ্ধার করতে সেনাবাহিনীর একটি হেলিকপ্টারও মুলতান থেকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে। জেলা রেসকিউ সার্ভিসের প্রধান বাকির হুসেইন বলেন, এছাড়াও ১৫ ব্যক্তি আহত হয়েছেন। আগুনে থেকে বাঁচতে ট্রেন থেকে ঝাঁপ দিয়েও অনেকে মারা গেছেন। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলেও তিনি জানান।