‘ছেলে’কে নিয়ে ক্যামেরার সামনে তিশা ।

শিরোনাম দেখে হয়তো দর্শক ভাবনায় নানান ঘুরপাক খাচ্ছেন! শিরোনাম দেখে ভাবনার বিষয়, বিয়ে হলো বা কখন, আবার ছেলে আসল কোথা থেকে? এমন চিন্তায় হয়তো অনেকে। তবে ভাবনার বা চিন্তা করার কিছু নেই। বাস্তবে নয়, একটি নাটকের দৃশ্যে তানজিন তিশাকে এমন চরিত্রে দেখা যাবে। ‘রাজপুত্র’ নামের একটি নাটকে মায়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন তানজিন তিশা। এই নাটকটিতে তার সন্তানের চরিত্রে দেখা যাবে তারই বড় বোনের সন্তান নায়াস-উর রাশিদ। যাকে তিনি নিজের সন্তানের মতোই আদর করেন তিনি।

সময় সংবাদকে তিশা বলেন, ‘নায়াস আমার বড় বোনের ছেলে। কিন্তু ওকে আমি আমার সন্তানের মতোই আদর করি। আমরা সঙ্গে ওকে দেখে কখনও কেউ জানতে চাইনি কে ও? যদি কেউ জিজ্ঞেস করত তখন আমি আমার সন্তানের কথাই বলতাম। সম্প্রতি নাটকটি উত্তরায় দৃশ্যধারণ করা হয়েছে। এটি পরিচালনা করেছেন অভিনেতা ও নির্মাতা সোহেল আরমান। এতে তিশার বিপরীতে অভিনয় করেছেন জনপ্রিয় অভিনেতা অপূর্ব।

সময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী তানজিন তিশা। অপূর্ব বা আফরান নিশোর সঙ্গে তিশাকে পেলেই জমে যাচ্ছে নাটক-টেলিছবি।সম্প্রতি সোহেল আরমানের ‘রাজপুত্র’ শিরোনামের একটি নাটকে মায়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন তানজিন তিশা। নাটকটিতে তিশার বিপরীতে দেখা যাবে ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্বকে।

নাটকে তিশার সন্তানের চরিত্রে দেখা যাবে তার বড় বোনের সন্তান নায়াসকে। এ নিয়ে তিশা বেশ উচ্ছ্বসিত।তিনি বলেন, ‘প্রথমবারের মতো মায়ের চরিত্রে অভিনয় করেছি। এর আগে কখনো এমন গল্প ও চরিত্রে আমার অভিনয় করা হয়নি। বেশ একটা আবেগী ব্যপার আছে।’‘পুরো গল্প জুড়ে সন্তানের জন্য একজন মায়ের কেমন হাহাকার থাকে সেটি দেখা যাবে। এছাড়া আমার বোনের সন্তানকে নিয়ে কাজ করতে অনেক মজা হয়েছে শুটিং স্পটে। মাত্র দেড় বছরের শিশু নায়াস।

এরমধ্যেও সে কোনো প্রকার কান্নাকাটি ছাড়া সারাদিন আমাদের সঙ্গে ছিল। বিশেষ করে শুটিং স্পটে অপূর্ব ভাইয়ের কোলে থাকতে সে খুব পছন্দ করতো’- যোগ করেন তিশা।পরিচালক জানান শিগগিরই এই নাটকটি বেসরকারি কোনো টিভি চ্যানেলে প্রচার হবে।