১১ দফা দাবি: নেই মাশরাফি!

ভারত সফরকে সামনে রেখে ১১ দফা দাবি জানিয়েছেন ক্রিকেটাররা। সোমবার (২১ অক্টোবর) এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তারা এ দাবি তুলে ধরেছেন। দাবি মানার আগ পর্যন্ত ক্রিকেটাররা সবধরনের খেলা থেকে বিরত থাকবে বলে জানিয়েছে। এসময় জাতীয় দলের প্রায় সব ক্রিকেটার উপস্থিত থাকলেও ওয়ানডে ফরম্যাটের টাইগার দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজাকে দেখা যায়নি।

তবে, এই আন্দোলনে তার সম্মতি আছে কিনা এ বিষয়ে কিছু জানা যায়নি। জাতীয় দল, ‘এ’ দল, হাই-পারফরমেন্স দলসহ ঘরোয়া লেভেলে সব ধরনের ক্রিকেটে ধর্মঘট ডেকেছেন ক্রিকেটাররা। যদিও বয়সভিত্তিক দলগুলো থাকছে এর আওতার বাইরে। সোমবার (২১ অক্টোবর) মিরপুরের ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে ক্রিকেটারদের পক্ষে সাকিব আল হাসান সংবাদ সম্মলনে এই তথ্য জানিয়েছেন।

এবারের জাতীয় ক্রিকেট লিগ (এনসিএল) শুরু হবার আগে ক্রিকেটাররা ভেবেছিলেন বাড়ানো হবে ম্যাচ ফি। যদিও শেষ পর্যন্ত হতাশ হতে হয়েছিল তাদের। অন্যদিকে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) এবারের আসরে নেই ফ্রাঞ্চাইজি। তাই হতাশ ক্রিকেটাররা। এই কারণে সোমবার (২১ অক্টোবর) সংবাদ সম্মীলনে যোগ দেন তারা।

এ সময় তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, রুবেল হোসেন, তাসকিন রহমান, এনামুল হক বিজয়, নাঈম ইসলাম, নুরুল হাসান সোহানসহ ক্রিকেটাররা উপস্থিত ছিলেন। দেশের ক্রিকেটের উন্নয়ন ও প্রসারে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) বিদ্যমান ব্যবস্থা মেনে নিতে পারছে না টাইগাররা।

ফলে অপ্রত্যাশিত এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ১১ দফা দাবি জানিয়ে গেলেন জাতীয় দল ও জাতীয় দলের বাইরে থাকা প্রায় ১২০ জন ক্রিকেটাররা এবং এই দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তারা কোনো ধরণের ক্রিকেটে অংশ নেবেন না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন। যার ফলে হুমকির মুখে পড়েছে আগামী মাসে অনুষ্ঠেয় ভারত সিরিজ ও চলমান জাতীয় ক্রিকেট লিগ।

হঠাৎ করেই দেশের ক্রিকেটের এমন অচলাবস্থায় বিসিবির পক্ষ থেকে সোমবার (২১ অক্টোবর) গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে সিইও নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, ‘দাবিগুলো লিখিত পেলে অবশ্য বিবেচনায় আনবে দেশের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ প্রশাসন বিসিবি। এবং যতদ্রুত সম্ভব উদ্ভুত সমস্যা সমাধান করা হবে।’