এমপি শা’ওনের আলাদীনের চেরাগঃ মাত্র ১০ বছরেই আয় বেড়ে ১০০ গু’ণ হ’য়েছে যে’ভাবে ।

আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন খুঁ’জে পান আলাদিনের চেরাগ। তারপর থেকেই পা’ল্টে যেতে থাকে তার ভাগ্য। ১০ লাখ টাকা থেকে এখন তার মাসিক আয় প্রায় ১০ কোটি টাকা। গত ১০ বছরে বিভিন্ন ক’র্মকা’ণ্ডের এসব স’ম্পদ আয় করেন তিনি।

২০০৯ সালে নবম জাতীয় সংসদের ভোলা-৩ আ’সনের উ’পনি’র্বাচনে বিজয়ী হয়ে প্রথম সংসদ সদস্য হন নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন। ওই সময় নির্বাচন কমিশনে দা’খিলকৃত হলফনামায় তার মাসিক আয় দেখান ১০ লক্ষ ২৩ হাজার ৭৬০ টাকা। কিন্তু গত ১০ বছর ক্ষ’মতায় থেকে ২০১৭-১৮ অ’র্থবছরে আয়কর হিসাব বিবরণীতে দেখা যায় তার মাসিক আয় ১০ কোটি ৩৬ লাখ ২২ হাজার ৮২৯ টাকা ৬৭ পয়সা।

মাত্র দশ বছরে এত পরিবর্তনের কারণ জানতে চেয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) নি’র্দেশনায় এমপি নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন ও তার স্ত্রী ফারজানা চৌধুরী ব্যাংক হিসাব জ’ব্দ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংকের ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ)। এবং দু’র্নীতি দ’মন ক’মিশন (দুদক) পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেনের নেতৃত্বে একটি দল তার জ্ঞা’ত ও অ’জ্ঞাত সম্পদ অ’নুস’ন্ধানে নেমেছে।

ম’ধ্যবি’ত্ত পরিবারের স’ন্তান শাওন ছিলেন শাওন। কিন্তু এখন রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় তার নামে রয়েছে অনন্ত ১০টি জমি, একাধিক বিলাসবহুল ফ্লাট। তাছাড়াও তার নিজ এলাকায় কিনেছেন পুকুর, বাগান, ভিটাসহ অন্তত ৭২৯ শতাংশ জমি। তার মালিকানায় রয়েছে ৩টি গাড়ি ও একাধিক আ’গ্নেয়া’স্ত্র। ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানসহ নিজ ও স্ত্রীর নামে বিভিন্ন ব্যাংকে রয়েছে ৪৪টি ব্যাংক একাউন্ট। যাতে রয়েছে কোটি কোটি টাকা।

সূত্র থেকে জানা যায়, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে ঠি’কাদা’রি কাজ ভাগবাটোয়ারার ম’ধ্য দিয়ে এসব অর্থ আয় করেন তিনি। আয়কর বিবরণীতে প্রদর্শিত এসব সম্পদের বাইরেও শাওনের আরো কয়েক শ কোটি টাকার স’ম্পদ আছে। যেগুলো তাঁর ঘ’নিষ্ঠদের নামে রয়েছে।

নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীর ঘনিষ্ঠ নেতা হিসেবে পরিচিত। আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নি’র্দেশে চলমান শু’দ্ধি অ’ভিযান শুরু হওয়ার পর থেকেই কোণঠাসা হয়ে পড়েছে দুজন। যুবলীগ নে’তাদের স’ঙ্গে রবিবার (২০ অক্টোবর) গ’ণভ’বনের বৈঠকে উপস্থিত থাকার অ’নুমতি দেয়া হয়নি তাদের।

প্র’সঙ্গত, ১৮ সেপ্টেম্বর ক্যা’সিনো অ’ভিযান শুরুর পর ক্যা’সিনো ব্য’বসার স’ঙ্গে সংসদ সদস্য নুরুন্নবী শাওন জ’ড়িত আছেন বলে অ’ভিযোগ ওঠে। যুবলীগ সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী স’ম্রাটকে গ্রে’ফতারের পর একে একে এসব নাম সামনে আসতে থাকে।