আমিরাত প্র’বাসীরা সা’বধান!ধেয়ে আসছে ম’হাপ্রলয়য়

আরব আমিরাতের জাতীয় আ’বহাওয়া কেন্দ্র এনসিএম, চা’লক এবং পথচারীদের সতর্ক করে জানিয়েছে যে রাস্তায় ধুলো , বালু যুক্ত আবহাওয়া বজায় রাখার কারণে অল্প দৃশ্যমানতায় সমস্ত প্রয়োজনীয় সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত। এনসিএম আজ তার এক বিবৃতিতে রাস্তায় 1,500 মিটারের ও কম দৃ’শ্যমানতার বি'ষয়ে স’তর্ক করেছে দেশের বিভিন্ন উপকূলীয় ও অভ্যন্তরীণ অঞ্চলে মাঝে মাঝে বাতাসের গতি 40 কিলোমিটার বেগে পৌঁছতে পারে বলে জানিয়েছে ।

তাপমাত্রা অভ্যন্তরীণ অঞ্চলে 39 ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে 44 ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত , উপকূলে 35 ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে 38 ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং পর্বতমালা 35 ° ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস থাকতে পারে । উপকূল জুড়ে সর্বাধিক আর্দ্রতা 60 থেকে 70 শতাংশ, অভ্যন্তরীণ অঞ্চলে 50 থেকে 70 শতাংশ এবং পাহাড়ে 40 থেকে 60 শতাংশের মধ্যে থাকবে।

40 কিলোমিটার বেগে বাতাসের গতিতে পৌঁছানোর সম্ভাবনাও রয়েছে কয়েকটি অঞ্চলে। টাটকা উত্তর-পশ্চিমা বায়ুগু'লি কিছু উন্মুক্ত অঞ্চলে ধুলা এবং বালু বর্ষণ করতে পারে। আরব উপসাগর এবং ওমান সাগরে সমুদ্র সামান্য থেকে মাঝারি হবে।আমিরাতের আবুধাবির আশেপাশে এখনও কিছুটা বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

তবে দেশের অন্যান্য অঞ্চলে বর্তমান আবহাওয়া কিছুটা স্থিতিশীল হয়েছে। ন্যাশনাল সেন্টার অফ মেটরিওলজির (এনসিএম) মতে, মেঘগু'লি সংযুক্ত আরব আমিরাতের পশ্চিম দিকে জমায়েত হচ্ছে।

বানী ইয়াস দ্বীপ এবং জিরকু দ্বীপের আশেপাশের অঞ্চলেও বিকেলে হালকা বৃষ্টিপাত অব্যা'হত ছিলো। এনসিএম এক কর্মকর্তা বলেন, বৃষ্টি এবং তীব্র বাতাসের সাথে জড়িত কনভেস্টিভ মেঘগু'লি আবুধাবি এবং আমিরাতের পশ্চিমে আজ ম''ঙ্গলবার অবধি থাকবে, স'প্তাহান্তে এগিয়ে যাওয়ার সাথে সাথে ধীরে ধীরে হ্রাস পাবে।

আমিরাতের আকাশ আংশিক মেঘলা থাকতে পারে তবে দুবাই ও শারজার আাকাশ পরিষ্কার থাকবে বলে আশা করা হচ্ছে। পূর্ব ও উত্তরাঞ্চল যেমন ফুজাইরাহ এবং মুসাফফাহর বাসিন্দারা আজ দিনের বেলা হালকা বৃষ্টিপাত অনুভব করেছে। রবিবার ও সোমবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের কিছু অংশে দিনভর ভা’রী বৃষ্টিপাত হয় যার সাথে তাপমাত্রা তিন থেকে ছয় ডিগ্রি কমে যায় কারণ “মেঘের আচ্ছাদন” ছিল।

ভারী বৃষ্টিপাতের ফলে সংযুক্ত আরব আমিরাতের কিছু অংশে বন্যা এবং ট্র্যাফিক জ্যাম সৃষ্টি হয়েছিল। মেঘ কমে যাওয়ার সাথে সাথে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বছরের এই সময়কালে তাপমাত্রা যা প্রত্যাশিত তা ফিরে আসবে বলে মন্তব্য করা হয়। সোমবার সকালে দেশব্যাপী সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে জেবেল জাইস পর্বতে সকাল ১১ টা ৪৫ মিনিটে। ওমান সাগর এবং আরব উপসাগর জুড়ে প্রবল বাতাস বইতে পারে বাতাসের কারণে ওমান সাগরের পরিস্থিতি বর্তমানে মোটামুটি রুক্ষ এবং ম''ঙ্গলবার বিকেলে ধীরে ধীরে স্থিতিশীল হয়ে উঠবে বলে আশা করা হচ্ছে।