৮-১০ বছর পর দেখবেন মানুষ বাংলাদেশের নাগরিকত্ব চায় ।

নিজ দেশ নিয়ে যারা হতাশ, তাদের উদ্দেশ্যে কিছু প্রশ্ন ছোড়ে দিয়েছেন বাংলা নাটকের অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া। তিনি বলছেন, দেশে একদল মানুষ আছে, কোনো একটা ঘটনা ঘটলেই স্ট্যাটাস মারে, ‘এই দেশে আর থাকতে চাই না’, ‘এই দেশের ভবিষ্যৎ নাই’ ইত্যাদি, ইত্যাদি…।সম্প্রতি নিজের ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে তিনি দেশের মানুষের প্রতি প্রশ্ন রাখেন, যেন সব দেশের দোষ, দেশ শিখিয়ে দিয়েছে তুমি বদ হও, চুরি বা’টপারি করো, খু’ন খারাপি করো! আর দুনিয়ার কোনো দেশে খারাপ কোনো ঘটনা ঘটে না?

এজন্য জানতে তিনি গুগলে সার্চ করতে বলেছেন। তিনি লিখেছেন, একটু গুগল করে বিভিন্ন দেশের অপরাধের হার একটু দেখবেন তো! দুই-চারটা ভালো কাজ করার চেষ্টার কথা উল্লেখ করে অভিনেত্রী আরও লিখেছেন, ‘যাই হোক, আইইএলটিএস-এ ৮ উঠিয়ে তারপর স্ট্যাটাস দিয়েন এই দেশে থাকতে চান না! তার আগে শুধু শুধু দেশকে দোষ না দিয়ে দুই-চারটা ভালো কাজ করার চেষ্টা করেন!’

সন্তানদের নৈতিক শিক্ষা দেয়ার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করে তিনি লিখেছেন, ‘২টা বাচ্চার পড়াশোনার দায়িত্ব নেন, ২টা গাছ লাগান, বাসার চারপাশ পরিষ্কার রাখেন, ছেলে-মেয়েদের নৈতিক শিক্ষা দেন…। ৮-১০ বছর পর দেখবেন মানুষ বাংলাদেশের নাগরিকত্ব চায়, সেক্ষেত্রে অবশ্য আমরা গরিব হলেও ফকির না, আমরা অন্য দেশের মানুষকে নাগরিকত্ব দেই না!’ উৎসঃ jagonews24

বর্তমান সময়ে ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া। যদিও তিনি এখন আর ছোট পর্দায় সীমাবদ্ধ নন, বড় পর্দায়ও যাতায়াত শুরু করেছেন। ইতোমধ্যে তার করা দেবীতে মুগ্ধ হয়েছেন ভক্তরা। সম্প্রতি মাসুদ রানা শোতে বিচারক হয়ে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন তিনি। যদিও এ বিষয়ে যুক্তিও দেখিয়েছেন অভিনেত্রী। সম্প্রতি তার একটি ভিডিও ভাইরাল হতে দেখা গেছে। যেখানে তিনি তার ভক্তদের উদ্দেশ্যে কঠিন ভাষায় কিছু কথা বলেছেন। তার একটি ছবিতে কিছু বাজে মন্তব্যের জন্য তিনি এ ভিডিওটি করেন বলে জানান।

এ সময় ভিডিওতে তিনি বলেন, ‘একটি ছবি আপলোড করেছিলাম ফেসবুক পেজে। সেখানে অনেকেই মন্তব্য করেছেন। কিছু মন্তব্য দেখে আমি সত্যি অবাক। আমার এডমিন সে এসব ডিলেট করছিল, কিন্তু আমি না করলাম। আমি আসলে দেখতে চাই, মানুষ কতটুকু নিচে নামতে পারে।’ তিনি আরো বলেন, ‘একটা ফুলহাতা জামা পরা সারা শরীর ঢাকা মেয়ের ছবি দেখার পরও যদি আপনাদের বিশেষ অঙ্গ দাঁড়িয়ে যায়, তাহলে এ ঈমান নিয়ে আপনারা পুলসিরাত কীভাবে পার করবেন?’

এ সময় তিনি সেসব ভক্তদের বলেন, ‘আপনারা এককাজ করেন ফেসবুকে যত মেয়েদের ফলো করছেন, সবাইকে আনফলো করে দেন। মডেলদের তো ভুলেও ফলো করবেন না। বাজে মন্তব্য করবেন না। কে বুকে ওড়না দিল, কে দিল না সেটা নিয়ে আপনাদের এত মাথাব্যথা কেন?’