একসাথে সুখবর দিলো মালয়েশিয়া-সিঙ্গাপুর: নতুন পরিকল্পনায় দুই দেশ

মালয়েশিয়া ও সি''ঙ্গাপুর ব্যবসা-বাণিজ্য চালু করতে আন্তঃসীমা'ন্ত ভ্রমণের অনুমতি দিয়েছে দু’দেশের সরকার। টেলিফোনে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মুহিউদ্দিন ইয়াসিন সি''ঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী লি সিয়েন লুং সীমা'ন্ত খুলে দেয়ার ব্যাপারে একমত হন।

এই দুই নেতা বিভিন্ন গ্রুপের যাত্রীদের জন্য একটি রেসিপ্রোকল গ্রিন লেন (আরজিএল) এবং একটি পর্যায়ক্রমিক যাতায়াত ব্যবস্থা (পিসিএ) প্রতিষ্ঠা করতে সম্মত হন।সূত্র জানায়, যাত্রীদের কোভিড-১৯ প্রতিরোধ ও জনস্বাস্থ্য ব্যবস্থার বি'ষয়টি অবশ্যই মেনে চলতে হবে। এই পদ'ক্ষেপগু'লো নিয়ে আলোচনা হয়েছে এবং উভয় দেশ মত দিয়েছে।

অন্যদিকে পিসিএ, সি''ঙ্গাপুর এবং মালয়েশিয়ার বাসিন্দাদের দীর্ঘমেয়াদী অ'ভিবাসন পাস তৈরি করে অন্যদেশে ব্যবসায় এবং বিশেষ কাজের উদ্দেশ্যে স্বল্পমেয়াদী ছুটিতে স্বদেশে ফিরে যেতে অনুমতি দেবে। এমএফএ জানিয়েছে, তারা তাদের দেশে কমপক্ষে তিনমাস ছুটিতে থাকবে। ছুটির পরে তাদের দেশে আবার প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে।

উভয় দেশের কর্মকর্তারা সম্মত হন উভয় দেশের চিকিৎসা সম্পদকে বিবেচনায় রেখে যে কোনো দ্বিপক্ষীয় ব্যবস্থায় পারস্পরিক সম্মত জনস্বাস্থ্য প্রোটোকল অন্তর্ভুক্ত থাকতে হবে।উভয় পক্ষের জনস্বাস্থ্য এবং নাগরিকের সুরক্ষা সংরক্ষণ করতে হবে। এমএফএ জানিয়েছে, লি এবং মি মহিউদ্দিন তাদের কর্মকর্তাদের আরজিএল এবং পিসিএর অ’পারেশনাল বিশদ সম্পর্কে ‘দ্রুত কাজ করার’ নির্দেশ দিয়েছেন।

কর্মকর্তারা সি''ঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়ার উভয় দেশের কোভিড-১৯ পরিস্থিতি থেকে স্থিতিশীল পুনরু'দ্ধার নিশ্চিত করতে ধীরে ধীরে আরও আন্তঃসীমা'ন্ত চলাচলের সুবিধার্থে অন্যান্য প্রস্তাবগু'লোতে আলোচনা চালিয়ে যাব'েন বলে মন্ত্রণালয় জানিয়েছে।