তিন হাসপাতাল ঘুরে বিনা চিকিৎসায় আ. লীগ নেতার মৃত্যু

সিলেটের গো'লাপগঞ্জ উপজে'লার আমুড়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান বদরুল হক। মাথা’য় জখ’ম নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন বদরুল হক (৬৬)। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার সময়ে তাঁর করো'নাভাই’রাসের সংক্র’মণের নমুনা পরীক্ষায় ফল প’জিটিভ আসে।
হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরার এক দিন পর আজ রোববার ভোরে তিনি মা’রা যান।

বদরুল হক সিলেটের গো'লাপগঞ্জ উপজে'লার আমুড়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সাবেক চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন।আজ ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে শীলঘাট গ্রামে নিজ বাড়িতে বদরুল হক মা’রা যান। মৃ'’ত্যুকালে তিনি স্ত্রী, তিন ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন। গো'লাপগঞ্জ উপজে'লা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মনিসর চৌধুরী জানান।

আজ বেলা দুইটায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে বদরুল হকের দা’ফন সম্পন্ন হয়েছে। পরিবার সূত্র জানায়, প্রায় এক মাস আগে গ্রামে একটি বি’রোধ নিষ্প’ত্তি করতে গিয়ে হা’মলায় মাথায় আ’ঘা'ত পান বদরুল। গু'রুতর আ’'হত অবস্থায় সিলেটের নর্থ ইস্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎ’সাধীন ছিলেন। গত শুক্রবার তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়। বদরুল হক ২০০৫ সালে আমুড়া ইউপির চেয়ারম্যান ছিলেন। এর আগে দুই মেয়াদে তিনি ইউপি সদস্য ছিলেন।