কনে ডোনা, বর সৌরভ; ছবিতে দেখুন কেমন ছিলো মহারাজের বিয়ের অনুষ্ঠান ।

পাত্র সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। পাত্রী ডোনা রায়। চার হাত এক হয়েছিল ১৯৯৭ সালের এক সন্ধ্যায়। বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন তাঁরা। রইল মহারাজ ও তাঁর জীবনসঙ্গিনীর একত্রে পথ চলার নানা মুহূর্ত।

মহারাজের খেলোয়াড-জীবনে স্টেপআউট করে বোলারের মাথার উপর দিয়ে মারা ওভার-বাউন্ডারির মতোই রোমাঞ্চে ভরা ছিল সৌরভ ও ডোনা গঙ্গোপাধ্যায়ের যৌথ জীবন শুরুর দিনগুলি।

তখনও আইবুড়ো সৌরভ।

ডোনাও তখন আইবুড়ো।

সৌরভ-ডোনার বিয়ের আচার পালন।

মালাবদল।

বিয়ের দিন সৌরভকে বরণ।

সৌরভ-ডোনার শুভদৃষ্টি।

বিয়ের পর পর অনুষ্ঠানে সস্ত্রীক সৌরভ।

বিয়ের নানা মুহূর্ত।

বিয়ের বছরেই বিদেশ সফরে যাওয়ার পথে বিমানবন্দরে।

বিয়ের বছরেই পাকিস্তান সফর থেকে ফেরার পথে এয়ারপোর্টে সস্ত্রীক।

বিবাহের সেই স্মৃতি আজও অমলিন বাঙালির অন্যতম শ্রেষ্ঠ আইকন ও তাঁর জীবনসঙ্গিনীর কাছে।

সৌরভ-ডোনার দাম্পত্য পূর্ণ হয়েছে কন্যা সানার আগমনে।

আরো দেখুন… গত সোমবার (১৬ সেপ্টেম্বর) অনলাইনে ভাইরাল হয় ৩৪ সেকেন্ডের একটি সেক্স ভিডিও। যেটা অভিনেত্রী মেহজাবীনের নামে ছড়ানো হয়েছে। মূলত ভিডিওটি কোনো এক পর্ন সাইটের বলে জানা গেছে। ভুয়া এই ভিডিও নিয়ে বিব্রত মেহজাবীন ও তার পরিবার।

অবশেষে প্রমান পাওয়া গেল সেই ভিডিও সম্পর্কে। মেহজাবিন জানান, আমি ভক্তদের নিকট দারুণভাবে কৃতজ্ঞ যে তারা রাতভর জেগে সত্যি তথ্য উদ্ধার করেছেন।

আর সবচেয়ে অবাক হয়েছি যারা না বুঝিয়েই এটা ছড়িয়েছে। মানুষের জাজমেন্ট এতো দুর্বল হলে কীভাবে হয়।

মেহজাবিন বলেন, আমি হয়তো বিষয়টি বুঝতে পারছি কিন্তু যারা বুঝতে পারছে না তারা কী করবে, তাদের তো আত্মহত্যা করা ছাড়া কোনো উপায় নেই। ওই জিনিসটা ভেবে খারাপ লাগতো।

কারণ এরকম স্ক্যান্ডাল যদি কারো নামে ছড়িয়ে পড়ে তাহলে সে কীভাবে ঠিক থাকবে? আমাদের যে কোনো বিষয় ছড়ানোর আগে নিশ্চিত হয়ে নিতে হবে না হলে বড় ধরনের ক্ষতি হয়ে যাবে যেটা কারো পক্ষে পুষিয়ে দেওয়া সম্ভব হবে না।

ভক্তদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে মেহজাবীন বলেন, আমি আমার ফ্যানদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে চাই। তারা আমাকে অনেক বেশি অনেক সাপোর্ট দিয়েছেন, তারা প্রমাণ করার চেষ্টা করেছেন। সারারাত ধরে জেগে আসল ভিডিও উ’দ্ধার করেছেন এজন্য তাদের অনেক ধন্যবাদ।

মেহজাবীন চৌধুরী। এই সময়ে ছোটপর্দার জনপ্রিয় ও ব্যস্তততম অভিনেত্রী তিনি। সারা বছর নাটকের শিডিউল থাকে তার। কিন্তু ক্যারিয়ারের এই ‘ভালো’ সময়েই হুট করেই নেমে এল ‘আঁধার’।

সোমবার অনলাইনে ভাইরাল হয়েছে ৩৪ সেকেন্ডের একটি নীল ভিডিও। যেটা অভিনেত্রী মেহজাবীনের নামে ছড়ানো হয়েছে। ভু*য়া এই ভিডিও নিয়ে বি*ব্রত মেহজাবীন ও তার পরিবার।

মেহজাবিন তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ প্রসঙ্গে মুখ খুলেন

মেহজাবিন তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ প্রসঙ্গে মুখ খুলেন

নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এক স্ট্যাটাসে মিথ্যা অ*পবাদের বি*রুদ্ধে প্র*তিবাদ জানিয়েছেন তিনি। ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি লিখেছেন, আজকে সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে একটা ভিডিও ছড়িয়েছে এবং এ নিয়ে কিছু অসাধু লোকজন বি*ভ্রান্তি সৃষ্টি করছেন। আমার ফ্যান-ফলোয়ার এবং সমর্থকদের কাছে আমার অ*নুরোধ, মি*থ্যা খবর কিংবা ভিডিওতে বিশ্বাস করবেন না।

ভিডিওটি কোনো এক পর্নো সাইটের বলে জানা গেছে। মেহজাবিন বলেন, যারা এসব বি*ভ্রান্তিকর তথ্য ছড়াচ্ছেন বা ছড়াতে সাহায্য করছেন তাদের বি**রুদ্ধে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ সাইবার ক্রাইম ডিপার্টমেন্টে আইনত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য অ**নুরোধ করেছি।