স্পেনে ২৪ ঘণ্টায় আরও ৪৬২ জনের প্রাণহানি, জায়গা নেই হাসপাতালে

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট রোগ কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় স্পেনে আরও ৪৬২ জন মারা গেছেন। সোমবার দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে ফরাসি সংবাদমাধ্যম এএফপি এ তথ্য জানিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, স্পেনে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৪৬২জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে করোনায় প্রাণ হারালেন ২ হাজার ১৮২ জন।

ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে ইতালি এবং স্পেনে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে করোনাভাইরাসের প্রকোপ। সোমবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মাদ্রিদের একটি হাসপাতালের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। এতে দেখা যায়, হাসপাতালে শয্যা না পেয়ে শত শত মানুষ বারান্দায়, ব্যালকনিতে কিংবা হাসপাতাল কক্ষের সামনে শুয়ে আছেন। তাদের মধ্যে অনেকেই হাঁচি-কাশি দিচ্ছেন, অনেকেই অক্সিজেন নিচ্ছেন।

এছাড়া আরও শত শত মানুষকে হাসপাতালের ওয়েটিং রুমে অপেক্ষা করতে দেখা যায়, যারা চিকিৎসা নেয়ার জন্য মাদ্রিদের ওই হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসেছেন। করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে হিমশিম খাচ্ছে স্পেন। হাসপাতাল কর্মীদের সংগঠন জেনারেল ইউনিয়ন অব ওয়ার্কারের নেতা জাভিয়ার গার্সিয়া স্থানীয় দৈনিক এল মুন্ডকে বলেন, হাসপাতালের এমার্জেন্সি ওয়ার্ডগুলোর ধারণক্ষমতার চেয়ে তিনগুণ বেশি রোগী ভর্তি রয়েছে।

তাদের মধ্যে অনেকেই শয্যা না পেয়ে মেঝেতে অথবা প্ল্যাস্টিকের চেয়ারে ৩০ ঘণ্টার বেশি সময় ধরে বসে আছেন। একদিন আগে রোববারই দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ৩৯৪ জন মারা যান এবং নতুন করে আক্রান্ত হন কমপক্ষে ৩ হাজার ৬৪৬। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩৩ হাজার ৮৯ এবং মারা গেছেন ২ হাজার ১৮২ জন। তবে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়েছেন ৩ হাজার ৩৫৫ জন।