করোনা : বিশ্বজুড়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৯৮ হাজার ৬২৭ জন

চীনের উহান থেকে বিস্তার শুরু করে গত আড়াই মাসে বিশ্বের ১৮০টিরও বেশি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯)। চীনে করোনার প্রভাব কিছুটা কমলেও বিশ্বের অন্য কয়েকটি দেশে মহামারি রূপ নিয়েছে। কভিড-১৯ করোনাভাইরাসে আজ সোমবার পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৩, ৩৫,০০০। মোট মৃত্যু হয়েছে ১৪ হাজার ৬৪১ জন। যুক্তরাষ্ট্রের জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয় এ তথ্য প্রকাশ করেছে।

তবে ওয়ার্ল্ডওমিটারের মতে, আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৩৭ হাজার ৪৬৯, মৃত্যু হয়েছে ১৪ হাজার ৬৪৭ জনের। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯৮ হাজার ৬২৭ জন। আক্রান্তের মধ্যে ১০ হাজার ৫৫৩ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। করোনাভাইরাসের লক্ষণ ও উপসর্গ- করোনাভাইরাস মূলত শ্বাসতন্ত্রে সংক্রমণ ঘটায়। এর লক্ষণ শুরু হয় জ্বর দিয়ে, সঙ্গে থাকতে পারে সর্দি, শুকনো কাশি, মাথাব্যথা, গলাব্যথা ও শরীর ব্যথা।

সপ্তাহখানেকের মধ্যে দেখা দিতে পারে শ্বাসকষ্ট। উপসর্গগুলো হয় অনেকটা নিউমোনিয়ার মত। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ভালো হলে এ রোগ কিছুদিন পর এমনিতেই সেরে যেতে পারে। তবে ডায়াবেটিস, কিডনি, হৃদযন্ত্র বা ফুসফুসের পুরোনো রোগীদের ক্ষেত্রে ডেকে আনতে পারে মৃত্যু। প্রাণঘাতী মহামারি করোনাভাইরাস থেকে মুক্তির জন্য রাশিয়ার মসজিদে বিরতিহীন কুরআন খতম শুরু হয়েছে।

সম্প্রতি রাজধানী মস্কোর আল জামে গ্র্যান্ড মসজিদে দেশটির মুফতিদের সংগঠন মুফতিন কাউন্সিল এই খতম অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। মুফতি কাউন্সিলের পক্ষে রুশ মুসলমানদের আধ্যাত্মিক নেতা শায়খ রাবি আইনুদ্দিন জানান, করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব যেন না ঘটে এজন্য
আমরা বিরতিহীন কুরআন খতমের আয়োজন করেছি। মহান আল্লাহর নিকট আমাদের আরজু তিনি যেন এই ওসিলায় আমাদের চলমান সৃষ্ট বিপদ থেকে রক্ষা করেন।

আমাদের বিশ্বাস বিশেষ এই ইবাদতের বদৌলতে মহান স্রষ্টা তাঁর বান্দাদের দোয়া কবুল করবেন। প্রসঙ্গত, বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী মহামারি করোনা ভাইরাস রাশিয়ায়ও প্রবেশ করেছে। স্থানীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, দেশটিতে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছে অন্তত শতাধিক রুশ নাগরিক।