বে-খেয়ালে পানির ট্যাপ বন্ধ না করায় ৭৮ বছর বয়সী শ্বশুরের মাথা ফাটালেন পুত্রবধূ

সাতক্ষীরার দেবহাটায় ৭৮ বছর বয়সী এক বৃ’দ্ধের মাথা ফা’টিয়ে দিয়েছেন তার পুত্রবধূ। এ ঘটনায় বৃদ্ধ নিজে বাদী হয়ে থানায় একটি লিখিত অভি’যোগ দায়ের করেছে। জানা যায়, উপজেলার দক্ষিণ সখিপুর গ্রামের মৃত হামিজদ্দীন সরদারের পুত্র নেছার আলী সরদার নামের ৭৮ বছরের এক বৃদ্ধ মঙ্গলবার (১০ মার্চ) সকাল ৯টার দিকে তার নিজ বাড়ির বেসিনের ট্যাপে হাত মুখ ধুয়ে বে-খেয়ালে ট্যাপটি বন্ধ না করে ঘরে চলে যান।

এ সময় বৃদ্ধের ছোট পুত্র কওছার আলীর স্ত্রী রাজিয়া সুলতানা এটি দেখতে পায়। তখন পুত্রবধূ বৃ’দ্ধের উপর ক্ষি’প্ত হয়ে রুটি তৈরি করা বেলন দিয়ে বৃদ্ধের মাথায় সজোরে আঘা’ত করে। ফলে বৃদ্ধের মাথা কে’টে র’ক্তপা’তের ঘটনা ঘটে। পরে বৃদ্ধ নেছার আলী থানায় এসে বাদী হয়ে পুত্র বধূর নামে একটি লিখিত অভি’যোগ দায়ের করে। তবে তার পুত্রবধূ এমন ঘটনা প্রতিনিয়ত ঘটায় বলে জানান ৭৮ বছর বয়সী বৃদ্ধ নেছার আলী।

এ ব্যাপারে দেবহাটা থানার ওসি (তদ’ন্ত) উজ্বল কুমার মৈত্র জানান, একটি অভি’যোগ পেয়েছি। তদন্ত করে সত্যতা পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বিদেশ থেকে ফিরে প্রবাসী স্বামী টাকার হিসাব চাওয়ায় স্ত্রীর আ’ত্মহ’ত্যা>>> ফেনীর দাগনভূঞায় প্রবাসী স্বামী টাকার হিসাব চাওয়ায় শরীরে আ’গুন দিয়ে আ’ত্মহ’ত্যা করেছেন শারমীন আক্তার (৩২) নামে এক গৃহবধূ।সোমবার মধ্যরাতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তার মৃ’ত্যু হয়।

নি’হত শারমীন আক্তার দাগনভূঞা উপজেলার পূর্ব চন্দ্রপুর মডেল ইউনিয়নের বৈঠারপাড় গ্রামের মুজা মিয়া বাড়ির প্রবাসী ইসমাইল হোসেন রতনের স্ত্রী। নি’হতের শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বরাতে পূর্ব চন্দ্রপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাসুদ রায়হান জানান, বৃহস্পতিবার রাতে প্রবাস ফেরত স্বামী ইসমাইল হোসেন রতন তার স্ত্রী শারমীনের কাছে প্রবাসে থাকা অবস্থায় পাঠানো টাকার হিসাব চান। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কা’টাকা’টি হয়।

পরে স্বামীর সঙ্গে অভি’মান করে শারমীন শরীরে কেরোসিন ঢেলে আ’গুন ধ’রিয়ে দেয়। তাকে উ’দ্ধার করে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে এবং পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য শুক্রবার চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে চিকিৎসাধীন সোমবার রাতে তার মৃ’ত্যু হয়। শারমীনের দশ বছরের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে বলে জানান ইউপি চেয়ারম্যান।দাগনভূঞা থানার ওসি মো. আসলাম শিকদার জানান, পুলিশ ঘটনাটি তদ’ন্ত করছে। নিহ’তের পরিবারের পক্ষ থেকে মাম’লার প্রস্তুতি চলছে।