যুব মহিলা লীগের নেত্রীকে ধ’র্ষণ করে প’লাতক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা

গাজীপুর মহানগরীর টঙ্গীতে যুব ম’হিলা লীগ নে’ত্রীকে ধ’র্ষণের অ’ভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বুধবার রাতে টঙ্গী পূর্ব থানায় পাঁচজনকে অ’ভিযুক্ত করে মা’মলা করেছেন ওই নেত্রী। মা’মলার প্র’ধান আ’সামি স্থানীয় ৪৬ নম্বর ও’য়ার্ড স্বে’চ্ছাসেবক লীগ স’ভাপতি পদপ্রার্থী আলী আসগর (৩৪) প’লাতক। পুলিশ বুধবার রাতেই আলী আসগরের দুই বন্ধু ও মা’মলার এ’জাহারভুক্ত আ’সামি হোসেন সর্দার (৩২) ও মিঠু তালুকদারকে (৩০) গ্রে’ফতার করেছে।

ওই নেত্রী টঙ্গী থানা যুব ম’হিলা লীগের স’ম্পাদিকা বলে জানা গেছে। তবে দলে তার সাং’গঠনিক কোনো পদ নেই বলে দা’বি করেছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও ম’হিলা আওয়ামী লীগের নেতারা।ওই নে’ত্রী মা’মলার এ’জাহারে উল্লেখ করেন, তিনি টঙ্গীতে একটি ব্যবসা পরিচালনা করেন এবং স্বা’মীর সংসারে তার একটি ছে’লে স’ন্তান রয়েছে। বিয়ের আশ্বাসে প্র’ধান আ’সামি আলী আসগরের স’ঙ্গে প্রায় ১০ বছর ধরে তার প্রে’মের স’ম্পর্ক চলছে। বি’য়ের প্র’লোভন দেখিয়ে আ’সামি আলী আসগর ব’ন্ধুদের স’হযোগিতায় তাকে একাধিকবার ধ’র্ষণ করেছে।

সর্বশেষ গত ৫ ডিসেম্বর রাত ৮টায় আসগরের ভগ্নিপতি সামরুলের ভা’ড়া বা’সায় নিয়ে তাকে জো’রপূর্বক ধ’র্ষণ করা হয়। গত মঙ্গলবার রাত ১০টায় বি’য়ের বি’ষয়ে কথা বলার জন্য স্থা’নীয় তিস্তার গেট এলাকায় তাকে ডে’কে নিয়ে মা’মলার আ’সামিরা মা’রধর করে এবং তার স্ব’র্ণালঙ্কার লু’টে নেয়। এদিকে স’রকারি দলের নে’ত্রীর এ মা’মলায় টঙ্গীতে তো’লপাড় সৃষ্টি হয়েছে। এ নিয়ে সর্বত্রই আলোচনা স’মালোচনা চলছে। বিষয়টিকে র’হস্যজনক মনে করছেন অনেকে। মা’মলার ত’দন্তকারী ক’র্মকর্তা টঙ্গী পূর্ব থানা পু’লিশের এসআই আলামিন বলেন,

বিষয়টিকে আমরা এখনও ধ’র্ষণ বলতে পারছি না। কোনো না’রী থানায় ধ’র্ষণের অ’ভিযোগ নিয়ে এলে আমরা মা’মলা নিতে বা’ধ্য। এরপর ত’দন্তেই প্রকৃত ঘটনা বেরিয়ে আসবে। মা’মলার বা’দী বা ভি’কটিমকে পরীক্ষার জন্য মে’ডিকেলে পাঠানো হয়েছে। মে’ডিকেল রি’পোর্টসহ আ’নুষঙ্গিক ত’দন্ত সম্পন্ন হওয়ার পরই প্র’কৃত ঘটনা বলা যাবে। একজন টোকাই হ’ত্যার ঘটনায় আলোচিত নে’ত্রী ও তার স্বা’মীর বি’রুদ্ধে হ’ত্যা মা’মলাও রয়েছে।