স্বৈ’রাচা’রী মোদি সরকারকে না তা’ড়ানো পর্যন্ত আমাদের ল’ড়াই চলবে : মমতা ব্যানার্জী

জাতের নামে জাঁ’তাকল তৈরি করেছে। এই স্বৈ’রাচা’রী সরকারকে দেশ থেকে বিদায় না দেওয়া পর্যন্ত ল’ড়াই চালিয়ে যাব’‌। সোমবার সকালে নেতাজি ইন্ডোরে দু’‌মাসব্যাপী দলের নতুন কর্মসূচি ‘‌বাংলার গর্ব মমতা’-র সূচনা করে এই কথাই বললেন তৃণমূল কংগ্রেস প্রধান মমতা ব্যানার্জী। দিল্লির সাম্প্রতিক হিং’সা পূর্ব- পরিক’ল্পিত গণহ’ত্যা, যাকে পরে সা’ম্প্রদা’য়িক হিং’সার রং দেওয়া হয়েছে রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করতে বলে মনে করেন তিনি।‌ সোমবারের সভা থেকেই পুরসভা ভোটের দামামা বা’জিয়ে দিলেন মমতা।

নাম না করে বিজেপি নেতাদের ঔ’দ্ধত্যকে তীরবি’দ্ধ করে দলের নেতা, কর্মীদের প্রতি তার বার্তা, ‘‌আরও নম্র এবং বিনয়ী হতে হবে। অহং’কার ভে’ঙে মানুষের আরও কাছে পৌঁ’ছতে হবে। আম’রা যেন কখনও ঔ’দ্ধ’ত্য না শিখি ওদের কাছ থেকে। আম’রা যেন মানুষকে মানুষ বলে ভাবি। ঘৃ’ণা করতে না শিখি।’ তার দলে কোনও লবিবাজি নেই, সেকথা স্পষ্ট করে মমতা বলেন, ‘‌কেউ দলের থেকে নিজেকে বড় ভাববেন না। এই দলের কোনও লবি নেই। ভালো কাজ করলে টিকিট পাবেন। না হলে পাবেন না।

পুরানো এবং নতুন, সবাইকে নিয়ে কাজ করতে হবে। পুরানো যেসব অ’ভিমানী কর্মীরা আছেন, তাদের দলে ফেরাতে হবে।’‌ মালদা জে’লায় স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের উদ্দেশ্যে তৃণমূল সুপ্রিমোর কড়া নির্দেশ, ”কোনও কোনও জে’লা নিজেদের ইচ্ছে মতো দল চালাচ্ছে। তার মধ্যে একটা মালদা। দল যে কথা বলবে শুনতে হবে। না হলে আমা’র তাকে প্রয়োজন নেই। আমি নতুন কর্মী তৈরি করে নেব, সেই ক্ষ’মতা আমা’র আছে।”

নতুন কর্মসূচি দলের সবাইকে মন দিয়ে পালন করতে নির্দে’শ দিয়ে মমতা বললেন, সাধারণ মানুষের সঙ্গে মেশার সময় বিনয়ী হলেও সাম্প্র’দায়িক শক্তির বি’রু’দ্ধে ল’ড়ার সময় আইন হাতে তুলে না নিয়েই সম্পূর্ণ আত্মবিশ্বা’সী এবং দৃ’ঢ়চে’তা হয়ে ল’ড়তে হবে। সব ভোটই যেহেতু গণতান্ত্রিক, তাই সারা বছর ধরে গণতন্ত্রকে শ’ক্তিশা’লী করলেই শুধু ভোটের বিশেষ সময়গু’লিতে সেটাকে শ’ক্তিশা’লী করার জন্য এত চেষ্টা করতে হবে না।