জার্মানিতেও ক’রোনার ছো’বল, আ’তঙ্কে প্রবাসী বাংলাদেশিরা

জার্মানিতে ক’রোনা ভা’ই’রা’সে আ’ক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১২০ জনে দাঁড়িয়েছে। এদের মধ্যে ১৭ জনের অবস্থা আ’শঙ্কাজনক। প্রা’ণ’ঘা’তী এ ভা’ই’রা’স ছড়িয়ে পড়ায় আ’তঙ্ক বিরাজ করছে সবখানে। আ’ক্রান্তের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের সুরক্ষায় সরকার ব’দ্ধপরিকর বলে জানিয়েছেন দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী। জার্মানিতে শুক্রবার পর্যন্ত ম’র’ণ’ঘা’তী ক’রোনা ভা’ই’রা’সে আ’ক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৫৭ জন। সোমবার (২ মার্চ) একদিনে আ’ক্রান্ত হয়েছে প্রায় ৭০ জন। সং’ক্রা’মণ ঠেকাতে ব’ন্ধ করে দেয়া হয়েছে সবচেয়ে বেশি আ’ক্রান্ত অঙ্গরাজ্য, নর্থরাইন ওয়েস্টফালেনের অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। প্র’ত্যা’হার করা হয়েছে বেশ কটি আন্তর্জাতিক মেলা।

এ প্রসঙ্গে স্থানীয়রা বলেন, কাজের প্রয়োজনে আমাকে দেশের বিভিন্ন স্থানে যেতে হয়। মনে হচ্ছে খুব ক’ঠিন সময় আসন্ন। যাদের শরীরে রোগ প্র’তি’রো’ধ ক্ষ’মতা কম তাদের জন্য এ ভা’ই’রা’স ভ’য়ং’কর। তরুণদের থেকে শিশু ও বৃদ্ধদের জন্য এটি বি’প’দ’জ’নক।এদিকে ক’রোনা ভা’ই’রা’সের কারণে আ’তঙ্কে প্রবাসী বাংলাদেশিরাও। তারা বলেন, সবাইকে সচেতন করা হচ্ছে কীভাবে করোনা থেকে নিজেকে রক্ষা করা যাবে। তবুও আ’তঙ্কে আছি।আ’ক্রা’ন্তদের রক্ষা ও ভা’ইরা’সের সং’ক্র’ম’ণ’রো’ধে হাসপাতালগুলোতে নেয়া হয়েছে বিশেষ ব্যবস্থা।এ প্রসঙ্গে জার্মান স্বাস্থ্যমন্ত্রী ইয়েন্স স্পাহন বলেন, এটা ঠিক যে জার্মানির সবখানে ভা’ই’রাসটা ছড়িয়ে পড়ছে। তবে আ’ক্রান্তদের পাশাপাশি সাধারণ জনগণের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় আমরা বদ্ধপরিকর।’