যে লো’ভে ক্ষ’ম’তা হা’রা’লেন মাহাথির!

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ‘ক্ষ’মতা পা’কাপো’ক্ত’ করতে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে মাহাথির মোহাম্মদ আ’কস্মিক প’দ’ত্যা’গ করেন। তবে দেশটির রাজা তাকে হ’তা’শ করে নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেন ইউনাইটেড ইন্ডিজেনাস পার্টির প্রধান মুহিদ্দীন ইয়াসিনকে। দেশটির অষ্টম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন ক্ষ’ম’তা’সীন পাকাতান হারাপান জোট থেকে বেরিয়ে যাওয়া ইউনাইটেড ইনডিজেনাস পার্টির প্রধান মুহিউদ্দিন ইয়াসিন। আজ রবিবার সকাল ১০টায় কুয়ালালামপুরে ইস্তানা নেগারা রাজপ্রাসাদে শপথ পড়িয়ে তার হাতে দায়িত্ব তুলে দেন দেশটির রাজা সুলতান আহমাদ শাহ।

আজ সকালে ইয়াইয়াসান আল বুখারিতে এক সংবাদ সম্মেলনে সংবাদ সম্মেলনে মাহাথির বলেছেন, ‘আমার সঙ্গে বি’শ্বা’সঘা’ত’কতা করা হয়েছে। বিশেষ করে মুহিউদ্দিনের পক্ষ থেকে এটা বেশি করা হয়েছে। মুহিউদ্দিন ইয়াসিন দীর্ঘদিন তার এই লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছিলেন। এখন তিনি সেই বি’শ্বা’সঘা’তক’তা’য় সফল হয়েছেন।’ উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে নির্বাচনে মাহাথির মোহাম্মদ ও আনোয়ার ইব্রাহীমের জোট জয়ী হয়ে সরকার গঠনের সময় ইব্রাহিমের কাছে পরবর্তীতে ক্ষমতা হস্তান্তর করা হবে এমন একটি বিষয়ে দুই নেতা একমত হয়েছিলেন।

তবে ক্ষ’মতা হস্তা’ন্ত’র না করেই প’দত্যা’গের ঘোষণা দেন মাহাথির। অ’ভি’যোগ উঠে, নিজের ক্ষ’মতা পা’কা’পো’ক্ত করতে নতুন এই কৌ’শল নেন মাহাথির। এরপর অবশ্য দেশটির রাজা প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ ও মন্ত্রিসভা গঠনের আগ পর্যন্ত মাহাথিরকেই অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালনের নির্দেশনা জারি করেছিলেন। কিন্তু এরপর রাজা মুহিদ্দীন ইয়াসিনকে মালয়েশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেন।