এবার নোবেলকে বিয়ে করছেন পূর্ণিমা!

বাংলাদেশি নায়িকা পূর্ণিমা। বর্তমানে মা ও মেয়েকে নিয়ে ওমরাহ পালনে মক্কায় অবস্থান করছেন তিনি। এরই মধ্যে তিনজনই মিলে ওমরাহও পালন করেছেন তারা।এদিকে আজ বৃহস্পতিবার (২০ ফেব্রুয়ারী) রাতে পূর্ণিমা দেশে ফেরার সম্ভাবনা রয়েছে। এরই মধ্যে নিজের ফেসবুক মেসেঞ্জারে এমন তথ্য দিয়েছেন তিনি। জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার দেশে ফিরে আসছি।

এর আগে, নিজের ফেসুবক ওয়ালে মক্বা শরীফের ছবি শেয়ার করেছেন পূর্ণিমা। ছবির ক্যাপশনে লিখেছেন– ‘আল্লাহু আকবার’।একসময় গুঞ্জন উঠেছিল পূর্ণিমা আর অভিনয় করবেন না। নায়িকার কাছে জানতে চাওয়া হয়, দেশে ফিরে আর অভিনয় করবেন কিনা? পূর্ণিমা বলেন, দেশে ফিরেই ‘মেঘ বলেছে যাব’ শিরোনামের একটি নাটকের কাজ শুরু করবো আমি।

এই নাটকে প্রথমবার নোবেলের নায়িকা হবো। জানা গেছে, ‘মেঘ বলেছে যাব’ নাটকটি রচনা করছেন মেহরাব জাহিদ। এটি পরিচালনা করছেন শেখ সেলিম। রাজধানীর বিভিন্ন লোকেশনে চলতি মাসের শেষ প্রান্তে নাটকের শুটিং হবে।পরিচালক জানিয়েছেন, নাটকটিতে স্বামী-স্ত্রীর চরিত্রে দেখা যাবে পূর্ণিমা-নোবেলকে। আগামী ঈদের জন্য নাটকটি নির্মাণ করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন শেখ সেলিম।

আরো পড়ুন… অপু বিশ্বাসের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর এবার যাকে বিয়ে করছেন শাকিব!একজন অভিনেতা বা অভিনেত্রীর সবচেয়ে বড় গুণ হচ্ছে যে কারো বিপরীতে নিজেকে সফল প্রমাণ করা। এক্ষেত্রে হালের শীর্ষ নায়ক শাকিব খান সফল। অনেকের বিপরীতেই অভিনয় করে তিনি নিজের যোগ্যতা প্রমাণ করেছেন বহুবার।তা হলে তার বেশিরভাগ ছবির দুই চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস ও শবনম বুবলীকে কিন্তু মোটেও সফল বলা যায় না। যদিও তারা প্রতিষ্ঠিত! কিন্তু ‘ফ্লপ’! আবার ‘ফ্লপ’ শব্দটা এদের সঙ্গে যাচ্ছে না।

কারণ এই দুই নায়িকা এক শাকিব খান ছাড়া অন্য কারো সঙ্গে ছবিই করেননি বলা যায়! যদি করতেন তবেই জানা যেত তাদের দৌড় কত দূর? বগুড়ার মেয়ে অপু ২০০৪ সালে আমজাদ হোসেনের ‘কাল সকালে’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন। ২০০৬ সালে পরিচালক এফ আই মানিক পরিচালিত ‘কোটি টাকার কাবিন’ ছবিতে নায়িকা হিসেবে শাকিবের বিপরীতে অভিনয় করেন।

২০০৬ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত টানা ৭০টির মতো ছবিতে তিনি অভিনয় করেন শাকিবের বিপরীতে। মানে অপু অন্য কোনো নায়কের বিপরীতে পর্দায় উপস্থিত হননি।এর মধ্যে ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল ভালোবেসে গোপনে বিয়ে করেন শাকিব-অপু। তাদের একটি ছেলেও আছে। নাম আব্রাম খান জয়। বিষয়টি জানাজানি হয় ২০১৭ সালের ১০ এপ্রিল। অপু এক টিভি লাইভে এসে বলেন, শাকিব আমার স্বামী। আব্রাম খান জয় আমাদের সন্তান।’

অপুর ভাষ্য ছিল, মূলত বিয়ের পর শাকিবের বাসায় বেশিরভাগ সময় থাকতেন তিনি অনেকটা লুকোচুরি করে। মাঝে মাঝে শুটিং শেষে নিজের বাসায়ও চলে যেতেন। সম্পর্কের তথ্য প্রকাশ করতে চাওয়ায় মাঝে মধ্যেই শাকিবের সঙ্গে মনোমালিন্য হয় অপুর। এর মধ্যে তার গর্ভে আসে সন্তান। ফলে কলকাতার একটি হাসপাতালে শাকিব ছাড়াই সিজার হয় অপুর।২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর তাদের ঘরে আসে ছেলে আব্রাম খান জয়।

তার পরও শাকিব এ খবর অপুকে গোপন রাখতে বলেন। কারণ দুজনের ক্যারিয়ার! ক্যারিয়ারে অপু ছাড় দিয়েছেন। নতুন কোনো ছবি করেননি। কিন্তু শাকিব খান তো কাজ করে গেছেন, যাচ্ছেন। শাকিবের ক্যারিয়ার বাঁচাতে অপু যখন নিজের ক্যারিয়ার কোরবানি দিলেন তখন মিডিয়ায় আসে শবনম বুবলী। ২০১৬ সালে ‘বসগিরি’ ও ‘শুটার’ ছবির মাধ্যমে পর্দায় অভিষেক হয় বুবলীর। দুটি ছবিতেই তার নায়ক ছিলেন শাকিব খান।

এর পর তিনি অভিনয় করেন ‘অহংকার’ ও ‘রংবাজ’ ছবিতে। এতেও বুবলী ছিলেন শাকিব খানের বিপরীতে। শাকিব খানের বিপরীতে ৯টি সিনেমায় অভিনয় করেছেন বুবলী।মানে অপুর মতো শাকিব ছাড়া অন্য কোনো নায়কের বিপরীতে বুবলীকে দেখা যায়নি এখনো। তবে ক্যাসিনো নামের একটি ছবিতে তিনি অভিনয় করেছেন চিত্রনায়ক নিরবের বিপরীতে। সেটি মুক্তির অপেক্ষায়। তবে ভালোবাসা দিবসে মুক্তি পেয়েছে শাকিব-বুবলী অভিনীত নতুন ছবি ‘বীর’।

কিন্তু খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না তাকে। বুবলীর ক্যারিয়ারে যখন বসন্তের বাতাস বইছে, ঠিক তখনই খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না তাকে। পরিচিতজনরা বলছেন- বুবলী যেন হঠাৎ উধাও হয়ে গেছেন! মোবাইল ফোনে বুবলীকে পাওয়া যাচ্ছে না। এমনকি চলচ্চিত্র অঙ্গনের লোকজনও তার সংবাদ বলতে পারছেন না। হঠাৎ কেন এভাবে নিজেকে আড়ালে নিয়ে গেলেন এই নায়িকা- এই প্রশ্ন এখন অনেকের মনে।অপু-শাকিবের মতো,

বুবলী-শাকিবকে নিয়ে কম গুঞ্জন হয়নি চলচ্চিত্রপাড়ায়। সেগুলোর কতটা সত্য, কতটা গুঞ্জন সময়ই বলে দেবে। এর আগে বুবলী বিএফডিসিতে শুটিং করেছেন কড়া নিরাপত্তায়। সে সময়ও প্রশ্ন উঠেছিল- হঠাৎ করে কেন এই নিরাপত্তা? কেনই বা বুবলী নিজেকে আড়ালে রাখতে চাইছেন? এই গুঞ্জনে জোর হাওয়া লাগে যখন শোনা যায় ‘বীর’ এবং ‘ক্যাসিনো’ সিনেমায় বুবলীর অংশের শুটিং তিনি অনুরোধ করে আগেই শেষ করেছেন।

কারণ তিনি নাকি এর পর দীর্ঘ বিরতিতে যাবেন। কয়েক মাসের জন্য পাড়ি জমাবেন বিদেশে।কেউ কেউ বলছেন, বুবলী এখন বিদেশে অবস্থান করছেন। তবে একটি সূত্র জানিয়েছে, বুবলী ঢাকায় রয়েছেন। আবার গুঞ্জন উঠেছিল অপুর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর বুবলীকে বিয়ে করছেন শাকিব। এ ঘটনায় চিত্রপুরীর অনেকেই অপু বিশ্বাসের উদাহরণ টানছেন- দীর্ঘদিন অজ্ঞাতবাসের পর হঠাৎ করেই সন্তান কোলে ক্যামেরার সামনে এসেছিলেন অপু বিশ্বাস।

এসব সময় বলে দেবে- তবে কথায় আছে, যা রটে তার কিছু তো বটে! এসব নিয়ে ২০১৭ সালেই আমাদের সময়ের বিনোদন পাতায় লেখা হয়েছিল- চলছে কানাঘুষা, শাকিব-বুবলীর ঘটনা যদি সত্যি হয়, তা হলে অপুর মতো আগামী দুই বছর পর বুবলীও হারিয়ে যাচ্ছেন মিডিয়া থেকে! কারণ অপু যে ভুল পথে হেঁটেছিলেন, শুধু শাকিবের সঙ্গে ছবি করে সেই একই পথে পা দিয়ে রেখেছেন শবনম বুবলী।