সেই জাহাজে শুরু হল মৃ’ত্যু, হুহু করে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা

এতদিন ছিল সংক্রমণের আতঙ্ক। এবার যোগ হল মৃ;;ত্যুভয়ও। করোনাভাইরাস ‘কোভিড-১৯’-এ আক্রান্ত হয়ে ডায়মন্ড প্রিন্সেস জাহাজে প্রাণ গেল দুই জাপানি যাত্রীর। একজন পুরুষ ও অন্যজন নারী, দু’জনেরই বয়স আশির কোঠায়। জাহাজের আইসোলেশন কেবিনে এতদিন পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছিল তাদের। কেবিনের বাকি রোগীদের মধ্যেও আ;তঙ্ক ছড়িয়েছে।

জাপানের ইয়োকোহোমা বন্দরের কাছে এখনও কোয়ারেন্টাইন করে রাখা প্রমোদতরী ডায়মন্ড প্রিন্সেস। দু’সপ্তাহের সময়সীমা পেরিয়েছে। ভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যাও বাড়ছে হুহু করে। রিপোর্ট বলছে, জাহাজের ৩,৭০০ যাত্রীর মধ্যে ৬৫০ জনই ভাইরাস আক্রান্ত। সংক্রমণ সন্দেহে আইসোলেশন কেবিনে রাখা হয়েছে আরও শতাধিক যাত্রীকে। জাহাজের ১৬০ জন ভারতীয়

ক্রু মেম্বারদের মধ্যে তিনজনের সংক্রমণের কথা জানা গেছে। বাকিরাও সংক্রমণের ভয়ে বারে বারেই বাড়ি ফেরানোর অনুরোধ জানাচ্ছে মোদি সরকারকে। জাহাজে এই দুই জাপানি যাত্রীর মৃ;;ত্যুর পরে, সেই আশঙ্কা আরও তীব্র হয়েছে। মৃ;;ত্যুভয় ক্রমশ গ্রাস করছে সবাইকে।থামছেই না প্রা;;ণঘাতী করোনাভাইরাস। এই ভাইরাসে মৃ;;তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। বুধবার কেন্দ্রস্থল হুবেই প্রদেশে আরও ১০৮ জন মা;;রা গেছেন।

এ নিয়ে চীনে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ২ হাজার ১১২ জনে। বিশ্বব্যাপী এ সংখ্যা অন্তত ২ হাজার ১২০ জন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক আসতে দেড় বছর লাগার কথা জানালেও যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির বিজ্ঞানী সারাহ গিলবার্ট দাবি করেছেন, আগামী এক মাসের মধ্যেই প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের প্রতিষেধক পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আজকের আলোচিত খবর… গোপনে ফ্ল্যাট বাসায় দেহ ব্যবসা, পুলিশের অভিযান। নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় ফ্ল্যাট বাসা ভাড়া নিয়ে গোপনে দেহ ব্যবসা করার অ’ভিযোগে তিন নারীসহ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।সোমবার গভীর রাতে ফতুল্লার ধ’র্মগঞ্জের পাকাপুল এলাকার নিলুফার ২য় তলা ভবনের নিচ তলা ফ্ল্যাটে অ’ভিযান চালিয়ে তাদের আ’টক করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে তাদের বি’রুদ্ধে মা’মলার পর পু’লিশ বিষয়টি নিশ্চিত করে। আ’টকরা হলেন- ধর্মগঞ্জের ভিতর পাকাপুল এলাকার নিলুফার

বাড়ির ভাড়াটিয়া মনির হোসেনের স্ত্রী ডলি বেগম (৩৬) , ফতুল্লার বিসিক কলাবাগান এলাকার পান্নার বাড়ির ভাড়াটিয়া রাজ্জাক মিয়ার মেয়ে মুন্নী (২২), ধর্মগঞ্জ মাওলা বাজার এলাকার ফিরোজ মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া মৃত আব্দুল হকের মেয়ে হাসনা (২৩) ও ধর্মগঞ্জ কুট্টির বাড়ির ভাড়াটিয়া মৃত চান মিয়ার ছেলে আল আমিন (৩৩)। ফতুল্লা মডেল থা’না পু’লিশের ইন্সপেক্টর (ত’দন্ত) মো. শাহাদাত হোসেন জানান,

ডলি বেগম ফতুল্লার ধ’র্মগঞ্জের পাকাপুল এলাকার নিলুফার ২য় তলা ভবনের নিচ তলা ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে তরুণীদের নিয়ে দেহ ব্যবসা করে আসছিলেন।তার বাসায় বিভিন্ন বয়সী লোকদের দিন-রাত আনাগোনা ছিল। অ’ভিযোগ পেয়ে পু’লিশের একটি টিম ডলির ফ্ল্যাটে অ’ভিযান চালিয়ে ঘটনার সত্যতা পায়। এ সময় ওই ফ্ল্যাট থেকে ডলিসহ চারজনকে আ’টক করা হয়। এ ঘটনায় ফতুল্লা মডেল থা’না পু’লিশের এসআই রাসেল শেখ বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থা’নায় মা’মলা করেছেন। আ’টকদের আ’দালতে পাঠানো হয়েছে।