গোপনে ফ্ল্যাট বাসায় দেহ ব্যবসা, পুলিশের অভিযান

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় ফ্ল্যাট বাসা ভাড়া নিয়ে গোপনে দেহ ব্যবসা করার অ’ভিযোগে তিন নারীসহ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।সোমবার গভীর রাতে ফতুল্লার ধ’র্মগঞ্জের পাকাপুল এলাকার নিলুফার ২য় তলা ভবনের নিচ তলা ফ্ল্যাটে অ’ভিযান চালিয়ে তাদের আ’টক করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে তাদের বি’রুদ্ধে মা’মলার পর পু’লিশ বিষয়টি নিশ্চিত করে। আ’টকরা হলেন- ধর্মগঞ্জের ভিতর পাকাপুল এলাকার নিলুফার

বাড়ির ভাড়াটিয়া মনির হোসেনের স্ত্রী ডলি বেগম (৩৬) , ফতুল্লার বিসিক কলাবাগান এলাকার পান্নার বাড়ির ভাড়াটিয়া রাজ্জাক মিয়ার মেয়ে মুন্নী (২২), ধর্মগঞ্জ মাওলা বাজার এলাকার ফিরোজ মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া মৃত আব্দুল হকের মেয়ে হাসনা (২৩) ও ধর্মগঞ্জ কুট্টির বাড়ির ভাড়াটিয়া মৃত চান মিয়ার ছেলে আল আমিন (৩৩)। ফতুল্লা মডেল থা’না পু’লিশের ইন্সপেক্টর (ত’দন্ত) মো. শাহাদাত হোসেন জানান,

ডলি বেগম ফতুল্লার ধ’র্মগঞ্জের পাকাপুল এলাকার নিলুফার ২য় তলা ভবনের নিচ তলা ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে তরুণীদের নিয়ে দেহ ব্যবসা করে আসছিলেন।তার বাসায় বিভিন্ন বয়সী লোকদের দিন-রাত আনাগোনা ছিল। অ’ভিযোগ পেয়ে পু’লিশের একটি টিম ডলির ফ্ল্যাটে অ’ভিযান চালিয়ে ঘটনার সত্যতা পায়। এ সময় ওই ফ্ল্যাট থেকে ডলিসহ চারজনকে আ’টক করা হয়। এ ঘটনায় ফতুল্লা মডেল থা’না পু’লিশের এসআই রাসেল শেখ বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থা’নায় মা’মলা করেছেন। আ’টকদের আ’দালতে পাঠানো হয়েছে।

আরো পড়ুন… ৩০ কোটি টাকার শাড়ীসহ আটক ১২ পাচারকারী কারাগারে। বঙ্গোপসাগরের ফেয়ারওয়ে বয়া সংলগ্ন এলাকা থেকে ৩০ কোটি টাকার ভারতীয় শাড়ী-কাপড়সহ আটক ১২ চোরাকারবারীকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বাগেরহাট জুডিশিয়াল মেজিট্ট্রেট আমলী আদালত-৬ এর বিচারক মোঃ আছাদুল ইসলাম এ আদেশ দেন। আসামীরা হলেন- পিরোজপুর জেলার মঠবাড়ীয়া থানার জানখালী এলাকার মৃত সেকেন্দার আলী হাওলাদের ছেলে হারুন হাওলাদার (৪৫),

নোয়াখালী জেলার সুবর্নচর থানার জরজব্বর এলাকার মোঃ কালা মিয়ার ছেলে মোঃ স্বপন মিয়া (৩৭), লক্ষীপুর জেলার রামগতী থানার জরআফজাল গ্রামের মৃত মোফাজ্জেল হোসেন মাল’র ছেলে মোঃ গিয়াস উদ্দিন মাল (৪৯), একই এলাকার মৃত শাহ জালাল হোসেনের ছেলে মোঃ মোসলেম পাটোয়ারি (৪৭), লক্ষীপুর রামগতী এলাকার শাহ জালালাল পাটোয়ারীর ছেলে আবু পাটোয়ারি (৫০),

রামগতী এলাকার জাহাঙ্গীর হোসেনের ছেলে মোঃ বাবু মিয়া (২০), ভোলা জেলার দৌলতখান উপজেলার বয়েজ স্কুল এলাকার আবু কালামের ছেলে মোঃ হুমায়ুন কবির (৩০), লীপুর রামগতী এলাকার আবু তাহেরের ছেলে মোঃ মোসলেউদ্দিন (৩২), একই এলাকার গিয়াস উদ্দিনের ছেলে মামুন হোসেন (২২), রেজাউল চৌকিদারের ছেলে আব্দুল কাদের চৌকিদার (৩০), মৃত মোফাজ্জেল হোসেন মালের ছেলে শেখ ফরিদ মাল (৩৬) ও লীপুরের ওবাইদুল হকের ছেলে মোঃ বাহার উদ্দিন (৪৭)।

এর আগে সোমবার রাতে বঙ্গোপসাগরের ফেয়ারওয়ে বয়া সংলগ্ন এলাকা থেকে কোস্টগার্ড পশ্চিম, মোংলার সদস্যরা তাদের আটক করেন। এসময় চোরাকারবারিদের কাছ থেকে ২০ হাজার ৬‘শ ৯৯ পিচ শাড়ী, ১‘শ ১০ চিপ থ্রী-পিচ ও ৩‘শ ২১ লেহাঙ্গা পিচ জব্দ করে কোস্টগার্ড সদস্যরা। যার আনুমানিক মুল্য ৩০ কোটি ১৫ লক্ষ টাকা।কোষ্টগার্ড পশ্চিম জোনের কর্মকর্তা মোঃ রবিউল ইসলাম বাদী হয়ে ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনে তাদের বিরুদ্ধে মোংলা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।