প্রেমিকার চাহিদা পূরণে গাঁজা পাচার, গ্রেফতার কলেজ শিক্ষার্থী

প্রেমিকার শখ পূরণে প্রেমিক কত কিছুই না করেন। এবার তেমনি এক প্রেমিকার শখ পূরণ করতে গিয়ে এক কলেজ শিক্ষার্থী জড়িয়ে পড়েছে গাঁজা পাচারে। তবে শখ পূরণের আগেই জায়গা হয়েছে কারাগারে। এমনকি তাকে জেরা করে পাওয়া গেছে সিনেমা’র গল্পের মতো নানা তথ্য।
ঘটনাটি ভারতের শিলিগুড়ির। গ্রে’ফতার রাজু রায় নামে ওই যুবক কোচবিহার সদর এলাকার বাসিন্দা এবং মাথাভাঙা কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র।

কলেজ হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা করা রাজু মঙ্গলবার রাতে শিলিগুড়ি থা*না পু’লিশের হাতে জংশন এলাকায় গাঁজাসহ গ্রে’ফতার হয়েছে।গ্রে’ফতারের সময় তার কাছ থেকে ১৬ কেজি ৯০০ গ্রাম গাঁজা উ’দ্ধার করা হয়। ভারতে যার আনুমানিক বাজার মূল্য সাড়ে তিন লাখ টাকা। কোচবিহার থেকে শিলিগুড়ি হয়ে ওই গাঁজা বিহারে পাচারের কথা ছিল। বিনিময়ে সে পেতেন ১০ হাজার টাকা।

গাঁজাসহ গ্রে’ফতার রাজু রায়কে বুধবার শিলিগুড়ি আ’দালতে তোলা হয়। পরে বিচারক তাকে ১৪ দিনের জে’ল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন। শিলিগুড়ি পু’লিশের এসিপি (জোন ১) বিদিতরাজ ভুনদেশ বলেছেন, ‘গাঁজা পাচারের ক্যারিয়ার হিসেবে ওই যুবককে ব্যবহার করা হচ্ছিল। পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে পাচারকারীরা ওকে ব্যবহার করেছে।’ ভারতের সংবাদ মাধ্যমে বলা হয়,

গ্রে’ফতার ওই কলেজ ছাত্রের বাবা কর্মসূত্রে শিলিগুড়িতে থাকেন। তিনি একটি হোটেলে রান্নার কাজ করেন। পু’লিশ জানতে পারে, কলেজে ভর্তির পর এক তরুণীর প্রেমে পড়ে রাজু। রেস্তোরাঁয় খাওয়া দাওয়া, ঘোরাফেরা এবং দামি উপহারের খরচ মেটাতে গিয়ে হিমশিম খায় রাজু। কিছুতেই প্রেমিকার চাহিদা পূরণ করতে পারছিল না সে। বিষয়টি নিয়ে তরুণীর সঙ্গে অশান্তিও হয়।

এ অবস্থায় রাজুর বন্ধুরা দীপক নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ করে দেয়। তিনি টাকা উপার্জনে গাঁজা পাচারের বুদ্ধি দেন। সেই ফাঁদে পা দিয়ে বিপাকে পড়ে রাজু। একটি সুট’কেসে ভরে মঙ্গলবার সকালে গাঁজা নিয়ে রওনা দেয় রাজু। কিন্তু সে জানত না শিলিগুড়িতে তার জন্যই অ’পেক্ষায় রয়েছে পু’লিশ।শিলিগুড়িতে পা রাখা মাত্রই পু’লিশ তাকে গ্রে’ফতার করে। এখন রাজুর দেয়া তথ্য মতে দীপকের খোঁজ-খবর শুরু করেছেন ত’দন্তকারীরা।