জাতীয় ক্রিকেট দলের সাথে খেলতে চায় ছাত্রলীগ: জয়

জাতীয় ক্রিকেট দলের সাথে একটি ম্যাচ খেলতে চায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এবং সেই জাতীয় ক্রিকেট ম্যাচের নেতৃত্ব দিবে জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।সোমবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের নেতৃবৃন্দের অংশগ্রহণে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মরণে ‘মুজিববর্ষ দ্বৈত ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট’ আয়োজনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক নড়াইল-২

আসনের এমপি মাশরাফি বিন মুর্তজার কাছে এমন প্রত্যাশা করেছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়। আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, মাশরাফি ভাই আমাদের সকলের প্রিয়, তারুণ্যের আইকন। জনগণের নেতা হিসেবে যে ধরণের কাজ করা দরকার আমাদের তরুণ এমপি মাশরাফি ভাই তা দেখিয়ে দিয়েছেন। তিনি সাধারণ মানুষের জন্য দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।

তিনি ইতিমধ্যে নড়াইলকে মডেল জেলা হিসাবে পরিচিত করার চেষ্টা করছেন। ভাই আমাদের মাঝে এসেছেন। আমরা অত্যন্ত আনন্দিত।তিনি এসময় জাতীয় ক্রিকেট দলের সাথে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ একটি ম্যাচ খেলতে চায় উল্লেখ্য করে বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ বাংলাদেশ ক্রিকেট টিমের সাথে একটি ম্যাচ আয়োজন করতে চায়। এজন্য ভাইয়ের সহযোগিতা চাই। ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক

লেখক ভট্টাচার্য লেখক ভট্টাচার্য বলেন, বাংলাদেশের জনগণের আশা ভরসা, আমাদের সকলের প্রিয় মাশরাফি বিন মুর্তজা। ছাত্রলীগ সবসময় খেলাধুলার মাধ্যমে জঙ্গিবাদ নির্মূলের চেষ্টা করে থাকে। আমাদের টুর্নামেন্টের চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ আমাদের প্রিয় মাশরাফি ভাই। যিনি দল মত নির্বিশেষে বাংলাদেশের মানুষের কাছে জনপ্রিয় হয়েছেন। তিনি ইতিমধ্যে তার সফল কর্মের মাধ্যমে

সাধারণ মানুষের মন জয় করে নিয়েছেন। মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেন, আমার এই টুর্নামেন্টে এসে অনেক ভাল লাগছে। আপনাদের অসংখ্য ধন্যবাদ আমাকে এখানে আমন্ত্রণ করেছেন। আশা করি আপনারা এ টুর্নামেন্ট সফল ভাবে শেষ করবেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে বাংলাদেশ জড়িত। আশা রাখবো আপনারা ভাল ভাল কাজ করবেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বরাবরের মত

ইতিহাস হয়ে থাকবে এটাই প্রত্যাশা। দেশকে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর যে স্বপ্ন সে স্বপ্ন পূরণে কাজ করবেন। উদ্বোধন টুর্নামেন্টে উপস্থিত ছিলেন ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ শামস-ঈ-নোমান, বেনজির হোসেন নিশি, প্রদীপ চৌধুরী, সাংগঠণিক সম্পাদক মামুন বিন সাত্তার, নাজমূল সিদ্দিকি নাজ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনসহ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতারা।