বিশ্বনবির জন্মদিন, ১২ রবিউল আউয়াল সরকারি ছুটি ঘোষণা করেছে আরব আমিরাত ।

চলছে ১৪৪১ হিজরি বছরের প্রথম মাস মহররম। রবিউল আউয়াল আসতে বেশিদিন বাকি নেই। আর একমাস পরেই শুরু হবে পবিত্র রবিউল আউয়াল। বিশ্বনবির জন্মদিন উপলক্ষ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাত ১২ রবিউল আউয়ালকে সরকারি ছুটি ঘোষণা করেছে।

বিশ্বব্যাপী পবিত্র রবিউল আউয়ালে বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের জন্মদিন পালন করা হয়। আবার অনেকে এ মাসজুড়ে বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সীরাত তথা জীবনী নিয়েও সভা-সেমিনার-সিম্পোজিয়া ও র‌্যালীর আয়োজন করেন।

এবার রবিউল আউয়ালে বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের জন্মদিন উদযাপন করার পাশাপাশি সরকারিভাবে অফিসিয়িাল ছুটি ঘোষণা করেছে দেশটি।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাত ২০১৯ সালে তাদের রাষ্ট্রীয় ছুটির তালিকা প্রকাশ করেছে। আর তাতে ১২ রবিউল আউয়াল সরকারি ছুটির হিসেবে সংযোজন হয়েছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের ‘দ্য ফেডালে অথরিটি অফ দ্য ইউনাইটেড আরব আমিরাত ফর হিউম্যান রিসোর্স’ (The Federal Authority of the United Arab Emirates for Human Resources) এক রাষ্ট্রীয় প্রজ্ঞাপন জারি করে এ ছুটির এ তালিকা প্রকাশ করেছে। সংশোধিত কাঠামোর ভিত্তিতে ১২ রবিউল আউয়াল ছুটির বিষয়টি অনুমোদন দিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত।

আরো পড়ুন… অবৈধ প্রবাসীদের এক বছরের জরিমানা ও টিকিট নিয়ে দেশে ফেরত যাওয়ার ঘোষণা আসে লেবাননের বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে। গত ৬ই সেপ্টেম্বর একটি সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেয়া হয়। নাম নিবন্ধনে প্রত্যেক আবেদনকারী এক বছরের জরিমানা ও এয়ার টিকিটের টাকা পরিশোধ করে এ সুযোগ গ্রহণ করতে পারবেন। প্রথম ধাপে ১৫ সেপ্টেম্বর শুরু হয়ে আগামী ১৬ এবং ১৭ই সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই আবেদন ফরম জমা নেয়া অব্যাহত থাকবে।

বাংলাদেশ দূতাবাসের অক্লাম্ত পরিশ্রমে লেবাননে সরকারের সাধারণ ঘোষণায় আনন্দিত প্রবাসীরা। রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালের সরকারের প্রতি তারা কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বাংলাদেশ দূতাবাসকে ধন্যবাদ জানান।

সরকার ক্ষমা ঘোষণা করায় নিবন্ধন করতে ভোর ৩ টা থেকে লেবাননে উত্তর থেকে দক্ষিণ পূর্ব থেকে পশ্চিম হতে আগত প্রবাসী বাংলাদেশিরা ভিড় করেন বৈরুতের বাংলাদেশ দূতাবাসে। ধারণা করা হয় প্রায় ৫/৬ হাজারেরও বেশী অবৈধ প্রবাসী উপস্থিতি হন এ সুযোগে নাম নিবন্ধন করতে। দূতাবাসের ঘোষণা অনুযায়ী নির্ধারিত সময় সকাল ১০টার আগেই শুরু হয় নিবন্ধন।

রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালেব সরকার বলেন, লেবাননের আইন অনুযায়ী অবৈধদেরকে বাংলাদেশ দুতাবাসে নাম নিবন্ধন করতে হয়। সেই অনুযায়ী লেবানন সরকারের সাধারন ক্ষমার আওতায় নাম নিবন্ধন শুরু হয়েছে। উপস্থিত প্রবাসীদের উদ্দেশ্য তিনি বলেন, তিনদিন নাম নিবন্ধন করা হবে। তবে এই তিন দিনে যারা নিবন্ধন করতে পারবেনা তাদের হতাশ হবার কিছু নেই। পর্যাক্রমে দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপের কার্যক্রম পরবর্তীতে নভেম্বর ও ডিসেম্বরে বাকিদের নাম নিবন্ধন করা হবে।