সর্বশেষ আপডেট
মেডিকেলে চান্স পেলো রাজমিস্ত্রির মেয়ে জাকিয়া সুলতানা কলেজে না গিয়েও এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় দ্বিতীয় নেহা । বাংলাদেশি কর্মীদের প্রশংসা করে যা বললেন মালয়েশিয়ার পুলিশপ্রধান । বাড়ির নিচতলায় গাড়ী চালকদের জন্য থাকা ও নামাজের ব্যবস্থা করতে হবেঃ প্রধানমন্ত্রী । প্রেমের টানে বাংলাদেশে ভারতীয় গৃহবধূ, সীমান্তে উত্তে’জনা । গোয়ালঘরে শিকলে বাঁধা বৃদ্ধা মা বললেন, মোর পোলারা ভালো । সাড়ে ৮ লাখ টাকা দিয়েও চাকরি হয়নি, কাঁদলেন প্রার্থী । গরু ছেড়ে নারীদের প্রতি বেশি যত্নবান হোনঃ মোদিকে এক নারী । যে কারণে তুহিনকে নি’র্মমভাবে হ’ত্যা করলেন বাবা । পিয়ন থেকে যেভাবে ১২০০ কোটি টাকার মালিক যুবলীগের আনিস ।
ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে এড়িয়ে চলুন যেসব খাবার ।

ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে এড়িয়ে চলুন যেসব খাবার ।

ক্যান্সারের ঝুঁকি বেড়ে যাচ্ছে আমাদের দৈনন্দিন নানা কার্যকলাপের কারণে। এক্ষেত্রে খাবার অভ্যাসও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে কিছু খাবার আপনার ক্যান্সারের আশঙ্কা বাড়াতে পারে। তাই ক্যান্সার থেকে বাঁচতে এসব খাবার সম্পর্কে নতুন করে ভাবুন। একেবারে বাদ দেওয়া যদি সম্ভব না হয় তাহলে খুব কম করেই খান।

কোমল পানীয় সোডা ও সফট ড্রিংকস জাতীয় খাবার যেগুলোতে অনেক বেশি পরিমাণে চিনি থাকে সে খাবারগুলো দেহে ক্যান্সারের কোষ বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

সিগারেট ও অ্যালকোহল দীর্ঘ সময় ধরে সিগারেট খাওয়া ও অ্যালকোহল পানের অভ্যাস থাকলে দেহে এর থেকে ক্যান্সারের কোষ গঠন হয়। এবং এইক্ষেত্রে মৃত্যু ঝুঁকি অনেক বেশি বেড়ে যায়।

অতিরিক্ত ভাজাপোড়া, তেল-চর্বি যেসব খাবারে অ্যাক্রিলামাইড ও ট্রান্সফ্যাট থাকে, যেমন- আলুর তৈরি চিপস, ফ্রেঞ্চ ফ্রাই ইত্যাদি আমাদের দেহে ক্যান্সারের সৃষ্টি করে।

যখন স্টার্চ জাতীয় খাবারকে তাপ দেয়া হয় তখন এই ক্যান্সার কোষ বৃদ্ধিতে সহায়ক অ্যাক্রিলামাইড খাবারে তৈরি হয়। বেকড খাবার অনেক বেশি ক্ষতিকর আমাদের দেহের জন্য। এক্ষেত্রে ফাস্ট ফুড ও এমনকি পাউরুটি টোস্ট করে খাওয়ার অভ্যাসও ক্যান্সারের ঝুঁকি সৃষ্টি করে।

স্মোকড খাবার তৈরির প্রসেস করার সময় খাদ্যের ওপরে পলিসাইক্লিক অ্যারোমেটিক হাইড্রোকার্বনের সৃষ্টি হয় যা পাকস্থলীতে টিউমার হওয়ার জন্য দায়ী। এর থেকে পাকস্থলী ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে।

শিল্প-কারখানায় প্রক্রিয়াজাত খাবার যেসব খাবারে প্রিজারভেটিভ থাকে সেসকল প্রক্রিয়াজাত খাবার দেহে ক্যান্সারের কোষ গঠনে সহায়তা করে থাকে। লাল মাংসের পাশাপাশি প্রক্রিয়াজাত মাংস যেমন বেকন, সসেজ ইত্যাদিও ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়।

গ্রিল মাংস মাংস যখন গ্রিল করা হয় তখন মাংসের প্রাণীজ প্রোটিন ও ফ্যাট অনেক বেশি তাপের সংর্স্পশে আসে। এর থেকে মাংসে তৈরি করে হেটেরোসাইক্লিক অ্যামিন যা ক্যান্সার সৃষ্টির জন্য দায়ী। এতে করে কোলন ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে। তাই এ ধরনের খাবার যতটা সম্ভব কমিয়ে ফেলা উচিত।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme
[X]