ছেলেরা কোন ধরনের মেয়ের প্রেমে পাগল হয় ।

ছেলেরা কোন ধরনের মেয়ের প্রেমে পাগল হয় ।

রূপ দেখে আকৃষ্ট হওয়া মানুষের সহজাত স্বভাব। তবে সেই আকর্ষণ খুব বেশিদিন থাকে না। আকর্ষণটা যদি হয় গুণের প্রতি, তাহলে তা সহজে নষ্ট হয় না। মেয়েদের সৌন্দর্য দেখে ছেলেরা আকৃষ্ট হয়, যুগে যুগে নারীর সৌন্দর্য নিয়ে অনেক গান-কবিতারও সৃষ্টি হয়েছে। সেসব অস্বীকারের উপায় নেই। কিন্তু মেয়েদের এমনকিছু স্বভাব বা গুণ আছে যা দেখে ছেলেরা সহজেই প্রেমে পড়ে-

যার অভিযোগ কম : অনেক মেয়ের ক্ষেত্রেই দেখা যায়, তাদের অভিযোগ অনেক বেশি। সবকিছু নিয়েই খুঁত ধরা, প্যানপ্যানানির স্বভাব। ছেলেরা এমন মেয়ের থেকে দূরে থাকে। তারা বরং সেই মেয়েকেই পছন্দ করে যার অভিযোগ কম, যারা অল্পতেই খুশি থাকতে জানে।

হাসি : কোনো মেয়ের সুন্দর হাসি দেখে প্রেমে পরবে না এমন ছেলে খুব কমই আছে। তবে সেই হাসি হতে হবে মিষ্টি ও অহংকারমুক্ত। কোনটি নির্মল হাসি আর কোনটি দাম্ভিক তা কিন্তু হাসির ধরণ দেখলেই বোঝা যায়।

মিশুক : সহজে সবার সঙ্গে মিশতে পারে এমন মেয়ের প্রতি ছেলেরা খুব সহজেই আকৃষ্ট হয়। আপনার আশেপাশেই খেয়াল করুন। এমন কিছু মেয়ে অবশ্যই দেখতে পাবেন যে সবার সঙ্গেই হেসে গল্প করছে। এমন মেয়েকে পছন্দ করার কারণ হলো তারা কখনো অন্যের সঙ্গে দম্ভ নিয়ে কথা বলে না। এরা সব সময়ই ইতিবাচক।

ব্যালেন্স করে চলে : জীবনে ব্যালেন্স করে চলতে জানাটা ভীষণ জরুরি। অন্যের কোনো ভুল ধরিয়ে দেয়ার পাশাপাশি ভালো অভ্যাসে বাহবাও দিতে জানতে হয়। আর এমন ব্যালেন্স করে চলতে জানা মেয়ের প্রতি ছেলেরা বেশি আকৃষ্ট হয়।

আত্মকেন্দ্রিক নয় : যেসব মেয়ে শুধু নিজেকে নিয়ে অর্থাৎ নিজের চাকরি, জীবন পরিবার এসব নিয়েই থাকতে পছন্দ করে কিন্তু সমাজ-রাজনীতি, এসব নিয়ে ভাবে না, ছেলেরা তাদের পছন্দ করে না। বরং সব বিষয়ে জ্ঞান নিয়ে চললে ও কথা বললেই ছেলে সেই মেয়ের প্রেমে পড়ে।

আরো পড়ুন… সুন্দরী স্ত্রী নিয়ে সব সময় আতংকিত যে কারণে স্বামীরা। আমাদের সমাজে বিয়ের বাজারে “ডানা কাটা পরীদের” দাম অনেক বেশি। আর তাই যেমন করেই হোক একজন সুন্দরী বউ আনার স্বপ্নে বিভোর থাকেন প্রায় সব পুরুষরাই। কিন্তু সমস্যাটা তখনই হয় যখন অন্যদের চোখে স্বামীর চাইতে অনেক বেশি আকর্ষণীয় হয়ে ওঠেন স্ত্রী। জেনে নিন বউ সুন্দরী হলে যে ধরনের সমস্যা হয়ে থাকে।

পারিবারিক সমস্যা : প্রেমিকা যদি আপনার চাইতে অনেক বেশি সুন্দর হয় তাহলে প্রেমিকার পরিবার থেকে আপনাকে মেনে নিতে চাইবে না সহজে। সুন্দরী মেয়েদের অভিভাবকরা তাদের মেয়ের জন্য সুন্দর ছেলে খুঁজে থাকেন। আর তাই আপনার চেহারা যদি ভালো না হয় তাহলে মেয়ের পরিবার থেকে আপনাকে নানান রকম আপত্তিকর কথা শুনতে হতে পারে। আবার বিয়ে হয়ে গেলেও বউয়ের বাবার বাড়িতে আপনার মূল্যায়ন খুব একটা করা নাও হতে পারে। তাছাড়া শালিকাদের তাচ্ছিল্য ভরা হাসির মুখে তো একবার না একবার পড়বেনই।

সামাজিক বিতর্ক : আপনার স্ত্রী যদি আপনার চাইতে অনেক বেশি আকর্ষণীয় হয় তাহলে নানান রকমের কটু বিতর্কও হয়। এক্ষেত্রে সমাজের মানুষজন বলা বলি করতে থাকে এতো সুন্দর মেয়েটা এটা কি বিয়ে করেছে কিংবা দুজনকে একদমই মানাচ্ছে না! সমাজের মানুষের এসব বিতর্ক আপনি চাইলেও এড়াতে পারবেন না।

অমূলক সন্দেহ : স্ত্রী খুব বেশি আকর্ষণীয় ও সুন্দরী হলে পুরুষদের মনে অমূলক সন্দেহের জন্ম নিতে পারে। স্ত্রীর বন্ধু , সহকর্মীদের কে নিয়ে অহেতুক মনের মাঝে নানান রকম অমূলক সন্দেহের উদ্রেক হতে পারে এক্ষেত্রে।

হীনমন্যতা : স্ত্রী যদি আপনার চাইতে আকর্ষণীয় হয় তাহলে আপনি সারাক্ষণই হীনমন্যতায় ভুগতে পারেন। আপনার অজান্তেই আপনার মন হীনমন্যতায় ভোগা শুরু করবে। ফলে নানান রকম সামাজিক অনুষ্ঠান ও পারিবারিক অনুষ্ঠানে আপনি মানুষজনের সামনে যেতে চাইবেন না। মনের কোনো এক কোণে স্ত্রীর প্রতি হিংসা জন্মে যেতে পারে আপনার।

বন্ধু থেকে শত্রু : স্ত্রী খুব সুন্দরী হলে বন্ধুরাই শত্রুতে পরিণত হতে পারে। আপনার খুব কাছের বন্ধুরাই আপনার স্ত্রীর সাথে ফ্লার্ট করতে চাইবে। আপনার স্ত্রীর সঙ্গ পাওয়ার জন্য যখন তখন সুজোগ খুজবে তারা। এমনকি আপনার সুন্দরী স্ত্রীর সামনে আপনাকে ছোট করতেও দ্বিধা বোধ করবে না তারা।

নিরাপত্তাহীনতা : স্ত্রী খুব সুন্দরী ও আকর্ষণীয় হলে স্বামীরা অধিকাংশ ক্ষেত্রেই নিরাপত্তাহীনতায় ভোগে। তাদের মনে সবসময় স্ত্রীকে হারানো ভয় কাজ করে। তাই সম্পর্ক নিয়ে সারাক্ষণ অনিরাপদ বোধ করে তারা।

পরকীয়ার প্রবণতা বাড়ে : শুনতে খারাপ শোনালেও একথা সত্য যে আকর্ষণীয় স্ত্রীদের পরকীয়ার প্রবণতা বেশি। সমাজের সবার থেকে যখন তারা নিজের সুনাম এবং স্বামীর সমালোচনা শুনতে থাকে তখন মনের অজান্তেই তারা নতুন সম্পর্কের প্রতি আগ্রহী হয় এবং পরকীয়ার সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme