সর্বশেষ আপডেট
সালাম না দেয়ায় শিশুকে পেটানো সেই ছা;ত্রলী;গ নেতা আ;টক ভালোবেসে ২ মাস আগে বিয়ে, স্বামীর দুই ঘণ্টা পর মারা গেলেন স্ত্রীও ২৪ বছর পর দেশে ফিরেই সড়ক দু;র্ঘট;নায় প্রাণ হারালেন প্রবাসী এবার টাঙ্গাইলে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে ধ’র্ষণ করলেন শিক্ষক মেয়ের ধ’র্ষণের বি’চার পাননি, উল্টো মিথ্যা মামলায় হাজিরা দিচ্ছেন স্বপন মামা খোঁ’জ মিলল টিকটকার সেই জাসমিনের, যে কারণে ছেড়েছিলেন ঘর এবার মুসলিমদের জন্য সৌ’দি স’রকার চালু করলো ‘হা’লাল প*তি’তালয়’ পদত্যাগ করলেন রাশিয়া সরকার মুসলিমদের স্বার্থে আর্থিক ক্ষ;তিকে ভয় পায় না মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মালয়েশিয়া থেকে পাম তেল কিনবে না, তবুও ভারতের ‘বি;প;ক্ষে অ;নড়’ মাহাথির
২৫ বছরের মধ্যে মেয়েদের বিয়ে না হলে যে সমস্যা হয় ।

২৫ বছরের মধ্যে মেয়েদের বিয়ে না হলে যে সমস্যা হয় ।

সবাই সারাক্ষণ বিয়ের ব্যাপারে আলাপ করতে শুরু করে। বিয়েই একটি মেয়ের জীবনের মূল লক্ষ্য এমনই প্রচলতি ধ্যান ধারণার কারণেই নানান রকমের বি’রক্তিক’র প’রিস্থিতির মু’খোমু’খি হতে হয় না’রীদেরকে। জেনে নিন তেমনই কিছু বি’রক্তিক’র প’রিস্থিতি স’ম্পর্কে। খাবার টেবিলে বিয়ের প্র’স’ঙ্গঃ
সকালের নাস্তার সময় বা রাতের খাওয়ার সময় যখনই হোক, বাবা মা বিয়ের প্র’স’ঙ্গ তুলবেনই।

খাবার টেবিলে বাবা মায়ের সাথে মু’খোমু’খি হতেও সংকোচ ও আ’ত’ঙ্ক তৈরি হয় এমন অ’বস্থায়। ক’র্মক্ষেত্রে গেলেই এর ওর বিয়ের গল্প বাসা থেকে বের হয়ে ক’র্মক্ষেত্রে গিয়েও যেন শা’ন্তি নেই। অফিসেও আজ এর বিয়ে তো কাল ওর বিয়ে। আর কিছু না হলেও বিয়ের পরিকল্পনা, বিয়ের ঘটনা ইত্যাদি তো সারাক্ষণই শুনতে হয়। ফেসবুকের টাইম লাইনে শুধু বিয়ে,এনগেজমেন্ট ও সদ্যজাত শিশুর ছবি সারাদিন বিয়ের আলাপ শুনে অতিষ্ট হয়ে যে ফেসবুকে কিছুটা সময় কাটাবেন সেই উপায়ও নেই।

কারণ ফেসবুকের টাইম লাইন জুড়েও শুধু ব্রাইডাল ফটোগ্রাফি, বন্ধুদের বিয়ের ছবি, বন্ধুর বাচ্চার ছবি দিয়েই ভরা। বিয়ের দাওয়াত পাওয়াঃ বিয়ের প্র’স’ঙ্গ যখন একটি নিয়মিত ব্যাপার হয়ে দাঁ’ড়ায় তখন বিয়ের দাওয়াত পাওয়াটাও যেন বেড়ে যায়। আর বাবা মাও বিয়ের দাওয়াতে যাওয়ার জন্য জো’র করে। কারণ বিয়ের দাওয়াতেও অনেক সময়ে বিয়ের প্র’স্তাব পাওয়া যায়।

বিয়ের অনুষ্ঠানে যাওয়ার জন্য পোশাক খুঁ’জে না পেতে বি’ড়ম্বনার শিকার হতে হয়।বিয়ের দাওয়াতে আগে যেমন তেমন ভাবে গেলেই হতো। আর এখন না সেজে গেলে মায়ের বকুনি খেতে হয়। বিয়ের দাওয়াতে যাওয়ার সময়ে তাই কি পরবেন সেটা ঠিক করাই মুশকিল হয়ে যায়। যে কোনো পার্টিতে বন্ধুদের সাথে বন্ধুদের স’ঙ্গীরাও আসা বন্ধুদের পার্টিতে গিয়েও শা’ন্তি নেই।

বন্ধুদের পার্টিতে আপনার বন্ধুরা সবাই তাদের বয়ফ্রেন্ড অথবা স্বামীকে নিয়ে আসেন। আর আপনি সেখানে যান একদম একা একাই। তখন নিজেকে অনেক অ’সহায় ও একা লাগে আপনার। কাছের দূরের সবাই সারাক্ষণ বয়ফ্রেন্ড বা বিয়ে স’ম্পর্কে প্রশ্ন করা ক্লাসমেটরা, কলিগরা, বন্ধুরা, কাজিনরা সবাই সারাক্ষণ আপনার বিয়ে কবে, বয়ফ্রেন্ড আছে কিনা এসব নিয়ে প্রশ্ন করেন।

যেন পৃথিবীতে বিয়ে বা প্রেম ছাড়া আর কোনো কথা বলার বিষয়বস্তু নেই।আত্মীয় ও বান্ধবীদের মায়েদের সারাক্ষণই আপনাকে বিয়ে দেয়ার চেষ্টা চালানোই তাদের কাজ।মনে হয় খাওয়া দাওয়া করে তাদের আর কোনো কাজ নেই। আপনার আত্মীয়রা ও বান্ধবীদের মায়েরা সারাক্ষণই আপনাকে বিয়ে দিয়ে দেয়ার চে’ষ্টায় থাকবেন। নানান রকমের বিয়ের প্র’স্তাব নিয়ে এসে হাজির হবেন আপনার সামনে।

আপনার অভিভাবকদেরকে আত্মীয়দের নিয়মিত জি’জ্ঞাসাবাদ আপনার অভিভাবকরাও থাকবেন বি’পদে। আপনার অভিভাবকরা যেখানেই যাক না কেন সেখানেই তাদেরকে আপনার বিয়ের ব্যাপারে জি’জ্ঞাসাবাদ করা হয়। নানান মনগড়া কাহিনী ও গু’জবের স্বী’কার হওয়া যখন সবাই আপনাকে বিয়ে দেয়ার চেষ্টা করেও তেমন কোনো সাড়া পাবেন না, তখন নানান রকমের মন গড়া কাহিনী তৈরি হবে আপনাকে নিয়ে।

আপন নিশ্চয়ই প্রেম করছেন কারো সাথে, আপনি মনে হয় লু’কিয়ে লু’কিয়ে বিয়ে করেছেন ইত্যাদি গু’জব ছড়ালেও অবাক হওয়ার কিছু নেই। বায়োডাটা তৈরি ও সুন্দর সুন্দর ছবি তোলার জন্য অভিভাবকদের তো’ড়জো’ড় আপনার ছবির সৌন্দর্য নিয়ে আপনার অভিভাবক হঠাৎ করেই বেশ উৎসাহী হয়ে যাবেন। আপনাকে বিয়ের বায়োডাটা তৈরি করতে বলা হবে এবং সুন্দর সুন্দর ছবি তুলতে বলা হবে।

মানুষের মুখ বন্ধ করার জন্য বিয়ের মিথ্যা পরিকল্পনা বলা একটা সময়ে আপনি অ’তিষ্ট হয়ে নিজের বিয়ের মিথ্যা পরিকল্পনা করবেন এবং সেটা মানুষকে বলে বেড়াবেন। কেউ বিয়ের কথা জি’জ্ঞেস করলে ২০** এর আগে বিয়ে করবো না চাকরি পেয়ে বিয়ে করবো নিজের টাকায় বিয়ে করবো’ ইত্যাদি অজুহাত দিবেন আপনি।হরহামেশাই আপনাকে বলা হয় যে বয়স হয়ে গেলে বাচ্চা হবে না।

অথচ বাচ্চা না হওয়ার বৈজ্ঞানিক কারন তাদের জানা নেই। আপনাকে একটা কথা নিয়মিতই শুনতে হবে। কথাটি হলো এখনও বিয়ে করছো না! বয়স হয়ে গেলে তো বাচ্চা হবে না । এতো সব কিছুর পরেও আপনি নিজের জীবন নিয়ে সুখী এতো রকমের জটিল পরিস্থিতিতেও আপনি অনুভব করতে পারবেন ভালোই আছেন আপনি। নিজের মতোই চা’লিয়ে যাচ্ছেন নিজের জীবনটাকে।

অন্যের ইচ্ছায় চলতে হচ্ছে না আপনাকে। আপনার স্বাধীনতায় কেউ হ’স্তক্ষে’প করছে না। একটা সময়ে আপনি নিজেই বিয়ের জন্য প্র’স্তু’ত হয়ে যাবেন একটা সময়ে আপনি নিয়েই বিয়ের জন্য মানসিক ভাবে প্র’স্তু’ত হয়ে যাবেন। আপনি মন থেকে শ্র’দ্ধা করতে পারবেন এবং ভালোবাসতে পারবেন এমন কাউকেই নিজের জন্য নি’র্বাচন করবেন আপনি। তখন ফেলে আসা এসব স্মৃতি মনে করে মনে মনে হাসবেন আপনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme