সর্বশেষ আপডেট
বাবরি মসজিদ ও মুসলমানদের পক্ষে লিখলেন ভারতীয় হিন্দু লেখিকা । যুক্তরাজ্যে নিজ ঘরের পাশ থেকে এক বাংলাদেশির লাশ উদ্ধার । আবিষ্কৃত হলো ‘কৃত্রিম পাতা’ তৈরি করতে পারে ১০ শতাংশ বেশি জ্বালানি । আরো এক রেমিটেন্স যোদ্ধা কুয়েত প্রবাসী ভাই যেভাবে আমাদের ছেড়ে চলে গেলেন পরপারে । লেবাননের গণআন্দোলনে অবৈধ প্রবাসীদের দেশে ফেরার কর্মসূচি ব্যাহত । ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের অর্থায়নে দেশে ফিরছেন গৃহকর্মী সুমি । আজ (১১ নভেম্বর) ঢাকায় আন্তর্জাতিক মুদ্রার বিনিময় মূল্য । চার্জার লাইট থেকে উদ্ধার হলো ৪ কোটি টাকার স্বর্ণবার । আরব আমিরাতের পুরুষ প্রবাসীকর্মীদের জন্য সুখবর, শুরু হল নতুন ওয়ার্ক পারমিট সুবিধা । ৩ বছরে সহজ উপায়ে কানাডা যাবে ১০ লাখ মানুষ ।
প্রতি মাসে সম্রাট-খালেদের কাছে থেকে ১৪ লাখ টাকা চাঁ’দা নিতেন মেনন ।

প্রতি মাসে সম্রাট-খালেদের কাছে থেকে ১৪ লাখ টাকা চাঁ’দা নিতেন মেনন ।

ক্যা’সিনোর ঘ’টনায় স্থা’নীয় সংসদ সদস্য রাশেদ খান মেননের জ’ড়িত থাকার বিষয়ে ত’থ্য দিয়েছেন রি’মান্ডে থা’কা যু’বলীগের ঢাকা মহানগর যুবলীগ দক্ষিণের ব’হিস্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট ও সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া।

রি’মান্ডে খালেদ জা’নিয়েছেন, ক্যা’সিনো কারবার থেকে প্রতি মাসে মেনন চার লাখ টাকা নি’তেন। এ ছাড়া স’ম্রাটের কাছ থেকেও অ’র্থ নি’তেন তিনি। তবে প্রতি মাসে প্রাপ্ত টাকার অ’ঙ্ক বাড়াতে মেনন এ’কাধিকবার ডেকে চাপও দি’য়েছেন বলে দা’বি করেন খালেদ। সর্বশেষ এই টাকার অ’ঙ্ক বা’ড়িয়ে না দেওয়ায় গা’লাগা’লিও ক’রেছেন তিনি।

রি’মান্ডে জি’জ্ঞাসাবাদে স’ম্রাট স্বী’কার ক’রেছেন, ঢাকার একাধিক অ’ভিজাত ক্লা’ব থেকে ক্যা’সিনোর টাকা তু’লতেন তিনি। এর ম’ধ্যে ফ’কিরাপু’লের ইয়ংমেনস ক্লাব অন্যতম। এ ছাড়া মতিঝিল দিলকুশা স্পোর্টিং ক্লাব থেকেও ক্যা’সিনোর টাকা পেতেন সম্রাট। ভিক্টোরিয়া ক্লাব ও মু’ক্তিযো’দ্ধা ক্লাবের ক্যা’সিনোর অন্যতম নি’য়ন্ত্রক ছিলেন তিনি।

প্রতি মাসে স্থানীয় সংসদ সদস্য রাশেদ খান মেনন তার কাছ থেকে থেকে ১০ লাখ টাকা চাঁ’দা নিতেন বলে জি’জ্ঞাসাবা’দে র‌্যা’বকে তিনি এ ত’থ্য দি’য়েছেন। সংশ্নি’ষ্ট একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।’ ইয়ংমেনস ক্লাব থেকে র‌্যাবের উ’দ্ধার করা চাঁ’দাবা’জির খা’তায় মেননের নাম রয়েছে ৫নং সিরিয়ালে।

স্থানীয় এমপি হিসেবে মেননকে অবগত করেই মতিঝিল ও আরামবাগের বিভিন্ন ক্লাবে ক্যাসিনো খোলা হয়। ফ’কিরাপুলে ক্যাসিনো চালানো ইয়ংমেনস ক্লাবের গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান ছিলেন রাশেদ খান মেনন। ওই ক্লাবের সভাপতি ছিলেন খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া।

ইয়ংমেনস ক্লাবে র‌্যাবের অ’ভিযানের সময় দেখা যায় সেখানে একটি কক্ষে রাশেদ খান মেননের ছবি ঝো’লানো রয়েছে। একটি ক্রেস্ট প্রদান বা গ্রহণ করছেন- এমন আরেকটি ছবিও ঝু’লছিল।

ত’দন্ত-সংশ্নিষ্ট সূত্র জানায়, সম্রাট তার আ’স্থাভাজন হিসেবে কা’উন্সিলর মমিনুল হক সাইদ, আরমান, স্বপন, সরোয়ার হোসেন মনা, মিজানুর রহমান বকুল, মোরছালিনকে ব্যবহার করতেন। মৎস্য ভবনে স’ম্রাটের আস্থাভাজন হিসেবে ঠিকাদারি নি’য়ন্ত্রণ করতেন বাবু ওরফে ক্যা’রেনসি বাবু। ‘গ্লাসবয়’ হিসেবে পরিচিত জাকিরের কাছে স’ম্রাটের কোটি কোটি টাকা গচ্ছিত রয়েছে।

ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের নেতা রবিউল ইসলাম সোহেলও স’ম্রাটের ক্যা’সিনো পার্টনার। একজন সাবেক এমপির এপিএস স’ম্রাটের স’ঙ্গে ক্যা’সিনো আসরে নিয়মিত যেতেন। ৬ অক্টোবর চৌদ্দগ্রাম থেকে গ্রে’ফতার হন সম্রা’ট। একই স’ঙ্গে গ্রে’ফতার হন তার স’হযোগী এনামুল হক আরমান। স’ম্রাট ও আরমানকে রি’মান্ডে নিয়ে জি’জ্ঞাসাবা’দ করছে র‌্যাব।

স’ম্রাট, আরমান ও খালেদ ছাড়াও ক্যা’সিনোকাণ্ডে গ্রে’ফতার হন কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের সভাপতি সফিকুল আলম ফিরোজ, মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লা’বের সভাপতি লোকমান হোসেন ভূঁইয়া ও অনলাইন ক্যা’সিনো ব্য’বসায়ী সেলিম প্রধান। গত ১১ অক্টোবর মৌ’লভীবাজা’রের শ্রী’মঙ্গল থেকে গ্রে’ফতার করা হয় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৩২ নম্বর ওয়ার্ড কা’উন্সিলর হাবিবুর রহমান মিজানকে। সর্বশেষ গতকাল রা’তে বসুন্ধরা এলাকা থেকে গ্রে’ফতার করা হয় তারেকুজ্জামান রাজীবকে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme