সর্বশেষ আপডেট
মেডিকেলে চান্স পেলো রাজমিস্ত্রির মেয়ে জাকিয়া সুলতানা কলেজে না গিয়েও এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় দ্বিতীয় নেহা । বাংলাদেশি কর্মীদের প্রশংসা করে যা বললেন মালয়েশিয়ার পুলিশপ্রধান । বাড়ির নিচতলায় গাড়ী চালকদের জন্য থাকা ও নামাজের ব্যবস্থা করতে হবেঃ প্রধানমন্ত্রী । প্রেমের টানে বাংলাদেশে ভারতীয় গৃহবধূ, সীমান্তে উত্তে’জনা । গোয়ালঘরে শিকলে বাঁধা বৃদ্ধা মা বললেন, মোর পোলারা ভালো । সাড়ে ৮ লাখ টাকা দিয়েও চাকরি হয়নি, কাঁদলেন প্রার্থী । গরু ছেড়ে নারীদের প্রতি বেশি যত্নবান হোনঃ মোদিকে এক নারী । যে কারণে তুহিনকে নি’র্মমভাবে হ’ত্যা করলেন বাবা । পিয়ন থেকে যেভাবে ১২০০ কোটি টাকার মালিক যুবলীগের আনিস ।
আপনার সন্তানকে স্কুলে পাঠাচ্ছেন, কখন সে কার সাথে কি করছে দেখুন ভিডিওতে ।

আপনার সন্তানকে স্কুলে পাঠাচ্ছেন, কখন সে কার সাথে কি করছে দেখুন ভিডিওতে ।

সমাজ আজ কোথায় এই যদি হয় স্কুল এর পরিবেশ…!!!আপনার সন্তানকে স্কুল-ল পাঠাচ্ছেন কখন সে কার সাথে কি করছে দেখুন।

সমাজ আজ কোথায় এই যদি হয় স্কুল এর পরিবেশ…!!!আপনার সন্তানকে স্কুল-ল পাঠাচ্ছেন কখন সে কার সাথে কি করছে দেখুন।

Posted by Mohammed Bin Khan Raz on Sunday, September 1, 2019

আরো পড়ুন… জাতীয় জরুরি হেল্পলাইন নাম্বার ‘৯৯৯’ ফোন দিয়ে অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকার অভিযোগ করা হয়। অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযান চালিয়ে অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত থাকা অবস্থায় মা-মেয়েসহ ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ।ঘটনাটি সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলার তাজপুর ইউপির দুলিয়ারবন্দ কলেজ বাড়ি প্রবাসী রানা মিয়ার বাসায় ঘটেছে।বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সোয়া তিনটার দিকে তাদের আটক করে ওসমানীনগর থানা পুলিশ। শুক্রবার তাদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আটককৃতরা হচ্ছেন, উপজেলার সাদিপুর ইউপির শেরপুর লামা তাজপুর গ্রামের সাগর চৌধুরী ওরফে আয়না বেগের স্ত্রী দেহপসারিনী রুবিনা বেগম ওরফে রিমা চৌধুরী(৩৮), তার সাবেক স্বামী ব্রিটেন প্রবাসী এজাজ চৌধুরীর মেয়ে ফারজানা চৌধুরী(১৯), উমরপুর ইউপির মাটিহানি গ্রামের আব্দুস সুবহানের ছেলে দিলশাদ আহমদ রাজু(২৮) ও সাদিপুর ইউপির সুরিকোনা গ্রামের হাফিজ নাজির উদ্দিনের ছেলে এহসানুল করিম জাকারিয়া(২০)।

আটককৃত রুবিনা ও তার মেয়ে ফারজানা দীর্ঘদিন ধরে দুলিয়ারবন্দস্থ প্রবাসী রানা মিয়ার বাসায় ভাড়া থেকে অসামাজিক কাজ চালিয়ে আসার অভিযোগ রয়েছে বলে পুলিশ জানায়।অভিযানকারী ওসমানীনগর থানার এসআই গাজী মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, পুলিশের বিশেষ সেবা নম্বার ৯৯৯ ফোন দিয়ে বিষয়টি অবগত করা হলে দুলিয়ারবন্দ এলাকার রানা মিয়ার বাসায় অভিযান চালিয়ে অসামাজিকতায় লিপ্ত থাকায় হাতে-নাতে দুই খদ্দরসহ মা রুবিনা ও তার মেয়ে শারমিনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসি।আটককৃত রুবিনা ও শারমিন বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন থেকে দেহ ব্যবসাসহ এলাকার নিরীহ মানুষদের জিম্মি করে টাকা আদায়ের অভিযোগ রয়েছে।বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে ওসমানীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম আল মামুন বলেন, ৯৯৯ -এ ফোন দিয়ে অভিযোগ করা হলে আমাদের বিষয়টি অবহিত করা হয়।সেখানে থানার এসআই গাজী মোয়াজ্জেম হোসেনসহ সঙ্গীয় ফোর্স পাঠাই। তারা প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা পায় এবং সেখানে এতো রাতে কিসের জন্য আসা সে বিষয়ে অবস্থানরতরা কোনো সদুত্তর দিতে পারেন নি।

তাই তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসেন অফিসার। আজ তাদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও জানান ওসি আল মামুন। তিনি বলেন, আটককৃতদের বিরুদ্ধে অসামাজিক কার্যকলাপের একাধিক অভিযোগ রয়েছে। আরো পড়ুন… বাসর রাতে নববধুকে রেখে নিখোঁজ হওয়া বর আব্দুল কাদির শুকুর অবশেষে ঘরে ফিরেছেন। ১৯ ঘন্টা পর শনিবার রাতে তার সন্ধান মিলেছে বড়লেখা উপজেলার দক্ষিণভাগ ইউনিয়নের আতলীঘাট এলাকায়। তাকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে বলে স্বজনরা জানান। তবে পুলিশ বলছে ঘটনা ভিন্ন। শারীরিক সমস্যায় আত্মগোপন করেন শুকুর। সূত্র জানায়, মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলার পশ্চিম জুড়ী ইউনিয়নের পূর্ব বাছিরপুর চাক্কাটিলা গ্রামের চরু মিয়ার ছেলে মাদ্রাসা শিক্ষক আব্দুল কাদির শুকুর।

গত শুক্রবার তিনি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন জায়ফরনগর ইউনিয়নের কাটানালারপার গ্রামের আঁখি আক্তারের সাথে। কার্যত প্রেমের সম্পর্কে ছয় মাস আগেই তাদের গোপনে বিয়ে হয়েছিল। পরিবার প্রথমে তা মেনে না নিলেও ছেলের জেদের কাছে অভিভাবকরা হার মানেন। অবশেষে শুক্রবার রাতে মেয়েকে আনুষ্ঠানিকভাবে বরের বাড়িতে আনা হয়। রাত ১২টায় বাসর রাতে নববধুকে রেখে বাথরুমে যাবার কথা বলে ঘর থেকে বের হয়ে যান বর আব্দুল কাদির শুকুর। ঘন্টা দুয়েক অপেক্ষা করার পর বর ফিরে না আসায় নববধু লজ্জা ভেঙ্গে পরিবারের অন্য সদস্যদের বিষয়টি জানান।

এরপর বরকে খুঁজতে গিয়ে বাথরুমের কাছে পাওয়া যায় আব্দুল কাদিরের গায়ের গেঞ্জি ও পায়ের জুতা। শনিবার সকালে বর নিখোঁজের বিষয়টি চাউর হলে নানা আলোচনার জন্ম নেয়। বড় ভাই নুর ইসলাম জুড়ী থানায় একটি জিডি করেন। স্বজনরা জানান, শনিবার রাত সাড়ে সাতটায় পাশের উপজেলা বড়লেখার দক্ষিণভাগ ইউনিয়নে পাওয়া যায় আব্দুল কাদির শুকুরকে। আতলীঘাট এলাকায় হাত-পা বাধা অবস্থায় তাকে পড়ে থাকতে দেখে বাড়িতে ফোন করে জানান স্থানীয় মসজিদের ইমাম। তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য জুড়ী আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জুড়ী থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম সরদার বলেন, ‘বর আব্দুল কাদিরের শারীরিক সমস্যা রয়েছে। লজ্জায় নিজে বাসর ঘর থেকে পালিয়ে আত্মগোপনে চলে যান। উদ্ধারের পর চিকিৎসা শেষে তাকে বাড়িতে পাঠানো হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme
[X]