সর্বশেষ আপডেট
ডেনমার্কের সুপার শপে বাংলাদেশির তৈরি খাবার । এবার শুরু হচ্ছে দুবাই প্রবাসীদের ভোটার কার্যক্রম । ২০২০ সালের হজ চুক্তি ১ ডিসেম্বর । মা হারানো শিশুটির দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিলেন উপমন্ত্রী শামীম । #জরুরী_আবহাওয়া_বার্তাঃ তেঁতুলিয়ায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা, তীব্র শীতের আভাস মা হারানো শিশুটির দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিলেন উপমন্ত্রী শামীম নাদিয়ার মা-বাবার খোঁজ মিলছেই না আপনার একটি শেয়ারে হয়ত নাদিয়া ফিরে পাবে ওর বাবা মাকে । এমপি নিজেও কাঁদলেন, প্রধানমন্ত্রীকেও কাঁদালেন । গা’জা থেকে রকেট বৃষ্টি শুরু, আত’ঙ্কে দিশেহারা ইস’রাইল । ইরফান পাঠানের স্ত্রী বলিউড অভিনেত্রীদের থেকেও সুন্দরী, ছবিসহ ।
আমার ফেসটাই তো একটা আইডি কার্ডঃ রিনা খান ।

আমার ফেসটাই তো একটা আইডি কার্ডঃ রিনা খান ।

শুনলাম এফডিসিতে অনেক শিল্পীকে নাকি ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। কিন্তু কেন ঢুকতে দেয়া হবে না? আমি যদি ঢুকতে যাই আমাকে আইডি কার্ড দেখাতে হবে? আরে আমি নিজেই তো একটা আইডি কার্ড, আমরা নিজেরাই তো একেকটা আইডি কার্ড।কথাগুলো বলছিলেন বাংলা চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় খলনায়িকা রিনা খান। আজ শুক্রবার দুপুরে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ভোট দিতে আসেন। এসময় তিনি কালের কণ্ঠের সাথে কথা বলেন।

রিনা খান বলেন, আজ এফডিসিতে উতসব পরিবেশ বিরাজ করছে। আজ শিল্পী সমিতির সকল সদস্যদের মনে আনন্দ কাজ করছে। আমারও অনেক ভালো লাগছে এই পরিবেশ দেখে। তবে ক’দিন পরেই তো মন খারাপ হয়ে যাবে। আমাদের শিল্পীদের দুর্দশার কথা ভাবলেই মন খারাপ হয়ে যায়।দুঃস্থ শিল্পীদের আবাসন ব্যবস্থার প্রত্যাশা প্রকাশ করে এই অভিনেত্রী বলেন, নতুন নির্বাচিত কমিটির কাছে আমার একটাই প্রত্যাশা তারা যেন এই দরিদ্র শিল্পীদের জন্য খুব সামান্য হলেও আবাসন ব্যবস্থার উদ্যোগ নেয়।

আজ শুক্রবার সকাল ৯ টায় রাজধানীর বিএফডিসিতে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে৷ ভোট গ্রহণ চলবে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত। ইতোমধ্যে ভোট দিয়ে গেছেন অনেক তারকা শিল্পী। বৃষ্টিমুখর পরিবেশেও বেশ জমে উঠেছে এফডিসি।এবারের নির্বাচনে প্রথমবারের মতো কোনো নারী প্রার্থী সভাপতি পদে লড়ছেন। তিনি জনপ্রিয় চিত্র নায়িকা মৌসুমী। তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন।এদিকে সভাপতি পদে মিশা-জায়েদ প্যানেল থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মিশা সওদাগর। বর্তমান শিল্পী সমিতির সভাপতিও মিশা সওদাগর। সহ সভাপতি পদে প্রার্থী হয়েছেন মনোয়ার হোসেন ডিপজল, রুবেল, নানা শাহ। সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান এবং ইলিয়াস কোবরা।

সাংগঠনিক পদে প্রার্থী হয়েছেন সৃব্রত। তার বিপরীতে কোনো প্রার্থী নেই। আন্তর্জাতিক পদে প্রার্থী হয়েছেন নূর মোহাম্মদ খালেদ আহমেদ, নায়ক ইমন। দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক পদে প্রার্থী হয়েছেন জ্যাকি আলমগীর।সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সম্পাদক পড়ে লড়ছেন দুইজন। তারা হলেন-জাকির হোসেন ও ডন। কোষাধ্যক্ষ পদে অভিনেতা ফরহাদ নির্বাচন করছেন একা। তার প্রতিদ্বন্দ্বী কোনো প্রার্থী নেই।কার্যকরী সদস্য পদ রয়েছে ১১টি। এই পদগুলোর জন্য প্রার্থী হয়েছেন ১৪ জন। তারা হলেন- রোজিনা, অঞ্জনা, অরুণা বিশ্বাস, বাপ্পারাজ, আলীরাজ, আফজাল শরীফ, রঞ্জিতা, আসিফ ইকবাল, অলেকজান্ডার বো, জয় চৌধুরী, নাসরিন, মারুফ আকিব, শামীম খান ও জেসমিন। এবারের নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ইলিয়াস কাঞ্চন।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme