সর্বশেষ আপডেট
প্রেমিককে পেতে কনকনে শীতে ভারত থেকে বাংলাদেশে আসলো ১৪ বছরের কিশোরী । আমাদের নিয়ে আযহারী হুজুর ছাড়া আর কেউ এমন কথা বলেনিঃ হিজড়া প্রধান । প্রভাকে বিয়ে করলেন ইন্তেখাব দিনার । বিয়েতে সৌদি নারীদের পছন্দের শী’র্ষে বাংলাদেশি পুরু’ষরা । আজ ১৯/০১/২০২০ তারিখ, দিনের শুরুতেই দেখে নিন আজকের টাকার রেট কত । দেহ ব্যবসা করতে করতে যেভাবে আন্ডারওয়ার্ল্ড ডন হলেন আলিয়া । শারীরিক সম্পর্কে মোটা পুরুষেরা বেশি সক্রিয়, বলছে গবেষণা । ওয়াজে তারেক মনোয়ারের বক্তব্য নিয়ে ফেসবুকে তুমুল আলোচনা । পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে হোটেলে গিয়ে যেভাবে খু’ন করা হল গৃহবধূকে । ফেব্রুয়ারির ১ তারিখে হচ্ছেনা এসএসসি পরীক্ষা ।
মালয়েশিয়া থেকে ফিরতেই হবে অবৈধ বাংলাদেশিদের ।

মালয়েশিয়া থেকে ফিরতেই হবে অবৈধ বাংলাদেশিদের ।

আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়াঃ মালয়েশিয়ায় এখন অ’বৈধ অ’ভিবা’সীদের দুঃসময় চলছে। প্র’তিনিয়ত চলছে ধ’রপা’কড়। কোনোভাবেই অ’বৈ’ধ অ’ভিবা’সীরা সেদেশে আর থাকতে পারবে না। ১ আগস্ট থেকে শুরু হওয়া সাধারন ক্ষ’মা ব্যাক ফর গুড ক’র্মসূ’চির মা’ধ্যমে চলতি মাসের ৩১ ডিসেম্বরের ম’ধ্যে নিজ নিজ দেশে ফি’রতেই হবে।

মালয়েশিয়ার অ’ভিবা’সন বিভাগের মহাপরিচালক দা’তুক খায়রুল দাজাইমি আবু দাউদ জা’নিয়েছেন,আগামী ৩১ ডিসেম্বরের ম’ধ্যে এখান থেকে সব অ’বৈ’ধ অ’ভিবা’সীকে বিফোরজি প’দ্ধ’তি অনুসরণ করে নিজ নিজ দেশে ফে’র’ত যেতে হবে। যারা ওই তারিখের ম’ধ্যে দেশে ফিরবেন না, তাদের বি’রু’দ্ধে কঠোর ব্য’ব’স্থা নেয়া হবে বলেও তিনি হুশিয়ারি দিয়েছেন।

তিনি আরও বলেছেন,দেশের নি’রাপ’ত্তা র’ক্ষা’র তা’গিদে কোনো প’ক্ষের স’ঙ্গে আপসে যাবে না প্রশাসন। ৪ মাস আগে শুরু হওয়া সাধারণ ক্ষ’মা ক’র্মসূ’চী এখন শেষ প’র্যায়ে। চলতি মাসেই শেষ হতে যাচ্ছে সাধারন ক্ষ’মা ক’র্মসূ’চী। শেষ দিকে সে দেশের ইমিগ্রেশনের প্রতিটি কাউন্টারে অ’বৈধ অ’ভিবা’সীদের প্র’চ’ন্ড ভি’ড়। এ ভি’ড় ক’মাতে সেদেশের সরকারি ছুটি শনি ও রবিবারেও ইমিগ্রে’শন কাজ করছে বলে সংশ্লি’ষ্ট সূত্র জা’নায়।

তবে অনেকে জা’নিয়েছেন, এয়ার টিকিট না থা’কায় আবেদন জমা করতে পারেননি। তাদের স’ঙ্গে ছিল না কনফার্ম এয়ার টিকিট। বিমানের টিকিটের বিষয়ে অনেকেই ক্ষো’ভ প্র’কা’শ করেছেন,শুধু একবেলার টিকিটইএখন দেড় হাজার রি’ঙ্গি’ত থেকে ২ হাজার রি’ঙ্গি’ত প’র্য’ন্ত।

এ দিকে অ’বৈ’ধ বাংলাদেশিদের দেশে ফি’রত যেতে কোনো রকম হয়রানি ছাড়া কমমূল্যে এয়ারলাইন্স টিকিট বি’ক্রি’র জন্য সংশ্লি’ষ্ট’দের স’ঙ্গে আলোচনার মা’ধ্যমে মালয়েশিয়ায় নি’যু’ক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মহ.শহীদুল ইসলাম প্র’স্তা’ব রাখলেও কমেনি আকাশ পথের ভাড়া । তবে হাইকমিশনার মহ.শহীদুল ইসলাম বিমানের সংশ্লি’ষ্ট দ’ফ’ত’রে চিঠি চালা চালির মা’ধ্যমে মালয়েশিয়া থেকে অ’বৈধ বাংলাদেশিদের দেশে ফি’রি’য়ে আনতে চলতি

মাসেই বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ঢাকা টু মালয়েশিয়া রুটে বিমানের নিয়মিত ফ্লাইটের পা’শাপা’শি অ’তি’রি’ক্ত ১৬টি বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করবে ১২ ডিসেম্বর থেকে। ৫ ডিসেম্বর বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের গ’ণমা’ধ্যমে পা’ঠানো এক প্রেস বি’জ্ঞ’প্তি’তে এ ত’থ্য জা’নানো হয়েছে। ফ্লাইট সিডিউল বাড়ালেও কেন ভা’ড়া ক’মবেনা প্রশ্ন ছু’ড়েছেন প্রবাসীরা।

তাদের দা’বি এক বেলার টিকিট দেড় থেকে দুই হাজারের পরিবর্তে ৭০০ থেকে ১০০০ হাজারের ম’ধ্যে করতে হবে। বর্তমানে বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার ম’ধ্যে সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা করছে ৬টি এয়ারলাইনস। দেশীয় এয়ারলাইনস গুলোর ম’ধ্যে বিমান বাংলাদেশ ও ইউএস-বাংলা, রিজেন্ট এয়ারলাইনসের ঢাকা-কুয়ালালামপুর রুটে ফ্লাইট রয়েছে। অন্যদিকে বিদেশী এয়ারলাইনসের ম’ধ্যে ফ্লাইট রয়েছে মালয়েশিয়া এয়ারলাইনস,

মালিন্দো এয়ার ও এয়ার এশিয়ার। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের জেনারেল ম্যানেজার (পাবলিক রিলেশনস) মো. কামরুল ইসলাম জানান, যা’ত্রীদের অ’তি’রি’ক্ত চা’হিদার কারণে ১৫, ১৭ ও ১৯ ডিসেম্বর ঢাকা-কুয়ালালামপুর ও কুয়ালালামপুর-ঢাকায় ১৬, ১৮ ও ২০ ডিসেম্বর তিনটি অ’তি’রি’ক্ত ফ্লাইট পরিচালনার সি’দ্ধা’ন্ত নে’য়া হয়েছে। এ ছাড়া প্র’তারণা থেকে সাবধান হতে

এবং যে কোনো এজেন্ট বা ভে’ন্ডরের স’ঙ্গে টাকা লেনদেন না করার জন্য মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের সংশ্লি’ষ্ট’রা এক নোটিশের মা’ধ্যমে স’ত’র্ক করেছেন। দূতাবাসের নোটিশে বলা হয়েছে,ট্রাভেল পারমিট এবং স্পেশাল পাস স’ম্পূর্ণ আলাদা। স্পেশাল পাস দেয় মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশন। ট্রাভেল পারমিট (টিপি)দেয় বাংলাদেশ হাইকমিশন। জমা দেয়ার সময়: সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত।

বিতরণঃ বিকাল ৪-৫টায় নিজে উপ’স্থি’ত হয়ে টিপির আবেদন জমা দিতে হবে এবং গ্রহণ করতে হবে। যোগাযোগ নংঃ টিপি স’ম্প’র্কি’ত ত’থ্যে’র জন্য ফোন +৬০১০২৪৯৭৬৫৭; +৬০১২৪৩১৩১৫০; +৬০১২২৯৪১৬১৭; +৬০১২২৯০৩২৫২.। এ দিকে মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন সূত্র জানায়, স’ম্প্রতি মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশনের মহাপরিচালক দাতো ইনদিরা খায়রুল জাইমি দাউদের স’ঙ্গে হাইকমিশনার মহ.শহীদুল ইসলাম দ্বি’প’ক্ষী’য় স্বা’র্থসংশ্লি’ষ্ট বিষয়ে বৈ’ঠ’ক করেন।

ঘণ্টাব্যাপী বৈ’ঠকে সাধারণ ক্ষ’মা’র আওতা’য় বাংলাদেশের অ’বৈধ ক’র্মীদের দেশে ফি’রে যাওয়ার জন্য মালয়েশিয়া সরকারের ব্যাক ফর গুড ক’র্মসূ’চি, ইমিগ্রেশন ডিটেনশন সেন্টারে আ’ট’ক বাংলাদেশীদের জন্য য’থায’থ আ’ইনি প্রক্রিয়া দ্রু’ত নি’শ্চিতক’রণ; ছাত্র, প্রফেশনাল ও শ্র’মিকদের ভিসা রিনিউ প্রক্রিয়া সহজীকরণ এবং কুয়ালালামপুর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশীদের ইমিগ্রেশন প্রক্রিয়ায় আরো স’হা’য়’তা প্রদানসহ অন্যান্য বিষয়াদি প্রা’ধান্য পায়।

ব্যাক ফর গুড ক’র্মসূ’চির সর্বশেষ অ’ব’স্থা বাংলাদেশ হাইকমিশনারের কাছে বর্ণনা করেন দাতো খায়রুল। এ ক’র্মসূ’চির আওতা’য় গত ২৭ নভেম্বর প’র্য’ন্ত প্রায় ২৯ হাজার বাংলাদেশী অ’বৈধ অ’ভিবা’সী সাধারণ ক্ষ’মা’র আওতা’য় সুবিধা নিয়েছেন। আরো তিন হাজার আবেদন পড়েছে। মোট আবেদন পড়েছে প্রায় ৩২ হাজার। বাংলাদেশের ক’র্মীদের এ সাড়া প্রদানকে হাইকমিশনারের কাছে উৎসাহব্য’ঞ্জ’ক উল্লেখ করেন তিনি।

ব্যাক ফর গুড ক’র্মসূচি ঘোষণার আগে দেশে ফি’রে যেতে ইচ্ছুক অ’ভিবা’সীদের জেল, জ’রিমানা ও বিভিন্ন ধরনের আ’ইনানুগ শা’স্তি’র স’ম্মু’খীন হতে হতো, যা ছিল অ’ত্য’ন্ত কষ্টকর। মালয়েশিয়া সরকারের সাধারণ ক্ষ’মা’র সু’যোগ পেয়ে দেশে ফি’রে যেতে ই’চ্ছুক অ’বৈধ অ’ভিবা’সীরা দারুণভাবে উ’চ্ছ্বসিত এবং তাদের ম’ধ্যে ব্যা’পক সাড়া পরিলক্ষিত হচ্ছে বলে মালয়েশিয়া সরকারের প’ক্ষ থেকে বাংলাদেশ হাইকমিশনকে জানানো হয়েছে।


তবে সেদেশের সংশ্লি’ষ্ট দ’ফ’ত’রের এ’কাধি’ক সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের সালের ১ আগস্ট থেকে ‘ব্যাক ফর গুড’ ক’র্মসূ’চি শুরু করে দেশটির সরকার। সর্বশেষ সাধারণ ক্ষ’মা ক’র্মসূ’চির আওতা’য় ৩১ শে ডিসেম্বর ২০১৯ স’মসী’মার মধ্যে, ১,১১,০০০ এরও বেশি অ’নিব’ন্ধিত অ’ভিবা’সী স্বে’চ্ছায় মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগের কাছে আ’ত্মস’মর্প’ণ করে, নিজ নিজ দেশে চলে যাবে বলে ক’র্তৃ’প’ক্ষ জা’নিয়েছে।

ইমিগ্রেশন বিভাগ থেকে প্রা’প্ত ত’থ্য অনুসারে স’র্বা’ধি’ক সংখ্য’ক অং’শগ্র’হণকা’রী ইন্দোনেশিয়া (৪২,২৯৯), বাংলাদেশ (৩০,০৯৮), ভারত (১৯,৯৯৯), পাকিস্তান (৫,৭৫৫) এবং মিয়ানমার (৫,৩৩২) রয়েছে। অন্যরা হলেন নেপাল, নাইজেরিয়া, শ্রীলঙ্কা, ফিলিপাইন এবং চীনা নাগরিক। “এই পরিসংখ্যান গুলি এখন প’র্য’ন্ত অং’শগ্র’হণ করা সর্বশেষতম সংখ্যা যারা নি’র্ধা’রি’ত স’ম’স্ত শ’র্তা’ব’লী পূরণ করেছে,”

অ’ভিবা’সন বিভাগের একজন প্রেস অফিসার নাম প্র’কা’শ না করার স’র্তে বলছিলেন, কারণ তার এই প্রোগ্রাম স’ম্পর্কে কথা বলার অ’ধিকার না থাকলেও, ওই অফিসার বলেছেন, “ত’থ্যগুলি দেশভি’ত্তিক ভেঙে ভেঙে দেয়া কিন্তু অন্যান্য বিবরণ কেবল প্রোগ্রামের শেষে প্র’কা’শ করা হবে।” ২৮ নভেম্বর অ’বধি ইমিগ্রেশন বিভাগ জা’নিয়েছে, ১ আগস্ট থেকে শুরু হওয়া বি ফোর জি (ব্যাক ফর গুড) সাধারণ ক্ষ’মা ক’র্মসূ’চির আওতা’য় মোট ১,১১,৭৩৬ অ’নি’ব’ন্ধি’ত অ’ভিবা’সী নি’ব’ন্ধ’ন করেছেন। এতে বলা হয়েছে যে ৬১,৪৩২ জনের ভিসার মেয়াদ উ’ত্তী’র্ণ হয়েগেছে,

৫০,৩০৪ জন মালয়েশিয়া প্রবেশের জন্য বৈ’ধ ভ্রমণের দলিল রাখেনি। “এই প্রোগ্রামে অংশ নেওয়ার জন্য একটি শ’র্ত হ’ল তাদের অবশ্যই বাড়ি ফে’রার বিমানের টিকিট কিনে নিতে হবে,”। অং’শগ্র’হণ কা’রীদের টিকিট দিলেই এই প্রোগ্রামের জন্য নি’ব’ন্ধ’নে’র অ’নু’ম’তি দেওয়া হবে এবং এক সপ্তাহের ম’ধ্যে তাদের নিজ দেশে ফি’রে যেতে হবে।

এছাড়াও, অং’শ’গ্র’হ’ণ কা’রী’দে’র যো’গ্য’তা অ’র্জ’নের জন্য ৭০০ রি’ঙ্গি’ত (মার্কিন ডলার ১৬৭) জরিমানা দিতে হবে। একবার তারা তাদের স্ব’দে’শগু’লিতে ফি’রে গেলে তাদের আবার মালইয়েশিয়ায় ফি’রতে কালো তা’লি’কা’ভু’ক্ত করা হবে। মালয়েশিয়ার এই প্রোগ্রামে তা’লি’কা ভু’ক্ত’দে’র কাছ থেকে ৭৮.২ মিলিয়ন রিংগিত (১৮.৭৫ মিলিয়ন ডলার) সংগ্র’হ করেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme