সর্বশেষ আপডেট
মালয়েশিয়ার জামাই হয়েছেন ছাতকের জামিল

মালয়েশিয়ার জামাই হয়েছেন ছাতকের জামিল

প্রায় চার বছর আগে একে অপরের সঙ্গে পরিচয় হয় তাদের। প্রথম দেখাতেই একে অপরকে ভালো লাগে। তারপর থেকেই চলে দু’জনের বন্ধুত্ব। মেয়েটি মালয়েশিয়ান, ছেলেটি বাংলাদেশি। অবশেষে তারা বিয়ের মাধ্যমে নিজেদের বন্ধুত্বকে পূর্ণতা দিলেন। রোববার (২৭ অক্টোবর) বিকালে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরের চেরাসস্থ একটি কনভেনশন হলে উৎসবমুখর পরিবেশে মালয়েশিয়ান তরুণী নূর আতিকা বিনতে বাহারকে বিয়ে করেছেন আবদুল হামিদ জামিল।

মালয়েশিয়ার উন্নয়নের প্রবাসী বাংলাদেশিদের অবদান কোন অংশেই কম নয়। তাছাড়া এর আগেও বহু বাংলাদেশি গাঁটছড়া বেঁধেছেন মালয়েশিয়ান তরুণীদের সাথে।তাই সিলেট জেলার ছাতক উপজেলার জামিলের তেমন কোন সমস্যা হয় নি বিয়ের কঠিন শর্ত পূরণ করে মালয়েশিয়ান কর্তৃপক্ষের অনুমতি পেতে।

আরো পড়ুন… চীনে ৬৭ বছর বয়সী এক নারী সন্তান জন্ম দিয়েছেন। আজ সোমবার (২৮ অক্টোবর) দেশটির স্থানীয় এক হাসপাতাল ওই নারীর সন্তান জন্ম দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে। ওই দম্পতির দাবি, তারাই চীনের সবচেয়ে বেশি বয়সে প্রাকৃতিকভাবে মা-বাব হলেন। নতুন কন্যা শিশুটির নাম রাখা রয়েছে ‘তিয়ানসি’ র অর্থ স্বর্গের উপহার।

তিয়ান নামের ওই নারী গত শুক্রবার চীনের জাওজহুয়াং শহরের মেটার্নিটি অ্যান্ড চাইল্ড হেলথ কেয়ার হাসপাতালে একটি কন্যা শিশুর জন্ম দেন। ওই নারী স্বামী হুয়াং বলেন, কন্যা শিশুটি আমাদের জন্য স্বর্গীয় উপহার। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম স্ট্রেইট টাইমস সূত্রে জানা যায়, তাদের আরো দু’জন সন্তান রয়েছে। ১৯৭৭ সালে তারা এক ছেলে সন্তান জন্ম দেন।

এর দুই বছর পরই চীন সরকার এক সন্তান নীতি চালু করে। দেশটির জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে রাখতে তারা এ নীতি চালু করে। ৬৭ বছর বয়সে সন্তান জন্ম দেওয়ার কারণে দেশটির সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ‘ওয়েইবো’ প্লাটফর্মে সমালোচনার শিকার হচ্ছেন তারা।

একজন ‘ওয়েইবো’ ব্যবহারকারী লেখেন, ওই সন্তানের বাবা-মা অনেক স্বার্থপর। আরেক জন ব্যবহারকারী লেখেন, তাদের বর্তমান বয়সে সন্তান লালন-পালনের মতো ক্ষমতা তাদের নেই। এর ফলে তার বড় ভাইবোনের ওপর চাপ বাড়বে। তাদের তৃতীয় সন্তান নেওয়ায় অনেকে আবার শঙ্কা প্রকাশ করেছেন যে তাদের আবার আইন অনুযায়ী শস্তি হয় কিনা। কারণ চীনে অগে এক সন্তান নীতি থাকলেও ২০১৬ সালের দিকে ওই নীতি তোলে দিয়ে দুই সন্তান নীতি চালু করা হয়। তাই দুই জন সন্তানের বেশি হরে আইন অনুযায়ী শাস্তি হতে পারে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme
[X]