সর্বশেষ আপডেট
মিয়ানমারের সেনাপ্রধানকে কালো তালিকাভুক্ত করল যুক্তরাষ্ট্র ড্রেসের টাকা না দেওয়ায় পরীক্ষার হল থেকে বের করে দেওয়া হলো শিশুকে! যে কারণে শাজাহান খানের সঙ্গে লাইভ টক শো করতে চান ইলিয়াস কাঞ্চন আজ ১১/১২/২০১৯ তারিখ, দিনের শুরুতেই দেখে নিন আজকের টাকার রেট কত । প্রবাসীদের জন্য দারুণ সুখবরঃ ‘প্রবাসী বন্ডে’ বিনিয়োগে সবচেয়ে বেশী লাভ । যে কারণে আপন দুই বোনকে বিয়ে করলেন একমাত্র বর । এবার জনসম্মুখেই ধ’র্ষণ করা হলো তরুণীকে । মিথিলার আগে এই ৬ অভিনেত্রীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন সৃজিত । ভারতের সংসদেই মুসলিম বিরোধী নাগরিকত্ব বিলের কপি ছিঁড়লেন ওয়াইসি । মোবাইল ফোনে বিয়ে, স্ত্রীকে দেখে মরতে পারলেন না মালেয়শিয়া প্রবাসী ।
মুসলমানরা নবীকে জীবনের চেয়ে বেশি ভালোবাসে ।

মুসলমানরা নবীকে জীবনের চেয়ে বেশি ভালোবাসে ।

হজরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সর্বশেষ এবং সর্বশ্রেষ্ঠ নবী ও রসুল। একজন মুসলমান নবীজিকে পরিবার-পরিজন, স্ত্রী-সন্তান, মা-বাবা এবং ধন-সম্পদের চেয়েও বেশি ভালোবাসে। নবীকে নিজের জীবনের চেয়েও বেশি ভালোবাসা মুমিনের একান্ত কর্তব্য। এমন ভালোবাসা না থাকলে কেউ প্রকৃত মুসলিম হতে পারে না। আল কোরআন ও হাদিসের একাধিক বর্ণনায় মুমিনদের রসুলুল্লাহ (সা.)-এর প্রতি গভীর ভালোবাসা স্থাপনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আল্লাহতায়ালা বলেন, ‘নবী মুমিনদের কাছে তাদের নিজেদের চেয়েও অধিক ঘনিষ্ঠ।’ সূরা আহজাব, আয়াত ৬। তিনি আরও বলেন, ‘তোমাদের কাছে যদি তোমাদের পিতা তোমাদের সন্তান, তোমাদের ভাই, তোমাদের পত্নী, তোমাদের গোত্র তোমাদের অর্জিত ধনসম্পদ, তোমাদের ব্যবসা যা বন্ধ হয়ে যাওয়ার ভয় কর এবং তোমাদের বাসস্থান- যাকে তোমরা পছন্দ কর- আল্লাহ, তাঁর রসুল ও তাঁর রাহে জিহাদ করা থেকে অধিক প্রিয় হয়, তাহলে অপেক্ষা কর আল্লাহর (আজাবের) নির্দেশ আসা পর্যন্ত।

আল্লাহ পাপাচারী সম্প্রদায়কে হেদায়েত দেন না।’ সূরা তওবা, আয়াত ২৪। এজন্য প্রত্যেক মুসলমানের অন্তরে নবীর প্রতি গভীর ভালোবাসা থাকা ইমানের দাবি। যার মাঝে নবীপ্রেম নেই তার মধ্যে ইমান নেই। তাই তো রসুলুল্লাহ (সা.) ইরশাদ করেন, ‘তোমাদের কেউ মুমিন হতে পারবে না, যতক্ষণ না আমি তার কাছে তার পিতা-মাতা, সন্তান ও সব মানুষের চেয়ে বেশি প্রিয় হই।’ বুখারি। হাদিসের এ দাবি প্রতিফলিত হয়েছিল সাহাবিদের বাস্তব জীবনে।

রসুলুল্লাহ (সা.) ছিলেন সাহাবিদের কাছে তাঁদের জীবনের চেয়েও প্রিয়। হজরত ওমর (রা.) রসুল (সা.)-কে বললেন, ‘হে রসুল! আমি আপনাকে সবচেয়ে বেশি ভালোবাসি তবে আমার নিজের চেয়ে বেশি নয়। রসুল (সা.) বললেন, আল্লাহর শপথ! তোমার নিজের চেয়েও আমাকে বেশি ভালোবাসতে হবে। তখন ওমর (রা.) বললেন, এখন আমি আপনাকে নিজের চেয়েও বেশি ভালোবাসি। অতঃপর রসুল (সা.) বললেন, হে ওমর! তাহলে এখন ঠিক আছে।’ বুখারি। লেখক : ইসলামবিষয়ক গবেষক।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme