কুয়েতি যুবকের হাতে ৫০০ ব্যক্তির ইসলাম গ্রহন

কুয়েতি যুবকের হাতে ৫০০ ব্যক্তির ইসলাম গ্রহন

জেলখানায় নিয়মিত নামাজ পড়তেন ইয়াসির বাহরি। তা দেখে অনেক বন্দিই ইসলাম সম্পর্কে জানতে আগ্রহী হয়ে ওঠেন। ধীরে ধীরে তার হাতে ৫০০ কয়েদি ইসলাম গ্রহণ করেন। ইয়াসির বাহরি। কুয়েতি যুবক। যুক্তরাষ্ট্রে অধ্যয়নরত ছিলেন। ছিলেন পড়ালেখায় কঠোর পরিশ্রমী। কোনো দিন ভাবেননি তার ছাত্রজীবন রূপান্তরিত হবে জেলখানার বন্দি জীবনে। জেলখানার বদ্ধ প্রকোষ্ঠে ভোগ করতে হবে নির্মম শাস্তি!

যৌন হয়রানি ও ধর্ষণের একটি মিথ্যা মামলায় মার্কিন আদালত তাকে ১৫ বছরের কারাদ- দেন। জেলখানার কঠোরতা ও কষ্টসাধ্য জীবনকেও তিনি করে তোলেন অবিস্মরণীয়। বন্দিজীবনে রচনা করেন ২২টি গ্রন্থ! তার হাতে মুসলমান হন শত শত কয়েদি! তিনি ফ্লোরিডার সাতটি কারাগারে স্থানান্তরিত হন। সেখানকার অধিকাংশ বাসিন্দা ছিল কৃষ্ণাঙ্গ ও ল্যাটিন আমেরিকান। এ সময় তিনি মারাত্মক কঠিন সময় পার করেন।

আল্লাহর আশ্রয় ও নৈকট্য ছাড়া কোনো উপায় ছিল না তার এবং দূর সীমানা পেরিয়ে পরিবার তার কাছে যাওয়া ও তাকে সহযোগিতা করাও ছিল তার জন্য বিরাট সান্তনা। তার ভাই মুহাম্মদ বাহরি বলেন, তিনি জেলখানায় নামাজ পড়তেন নিয়মিত। তা দেখে অনেক বন্দিই ইসলাম সম্পর্কে জানতে আগ্রহী হয়ে ওঠেন। ধীরে ধীরে তার হাতে ৫০০ কয়েদি ইসলাম গ্রহণ করেন।

তিনি সেখানে বিভিন্ন সেলে চারটি পাঠাগার তৈরি করেন। এক্ষেত্রে তার স্ত্রী ও পরিবারের লোকদের সহযোগিতা গ্রহণ করেন। তিনি তাদের কাছে বই চাইতেন। তারা বইপুস্তক পৌঁছানোর কষ্ট সহ্য করতেন অবলীলায়। কার্গোর মাধ্যমে তারা তার কাছে বই পৌঁছাতেন।

কুয়েতে ইয়াসিরের আইনজীবী আবদুর রহমান সাকলাওয়ি আলজাজিরাকে জানান, এ মাসের শেষ নাগাদ ইয়াসিরের মুক্তির কথা রয়েছে। তার মুক্তির পর সর্বপ্রথম তাকে অভ্যর্থনা সেলে নেওয়া হবে। অতঃপর বহিরাগমন দপ্তরের জরুরি কার্যক্রম সম্পন্ন করার লক্ষ্যে সেখান থেকে নেওয়া হবে বিদেশি সেলে। কারণ তার ভিসা দীর্ঘদিন ধরে মেয়াদহীন। সুতরাং তার ফেরত আসার কার্যক্রম সারতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme
[X]