গতি পা,ল্টে আরও শক্তিশালী, প্রথমেই যেখানে আঘাত হানবে শক্তিশালী বুলবুল

গতি পা,ল্টে আরও শক্তিশালী, প্রথমেই যেখানে আঘাত হানবে শক্তিশালী বুলবুল

গতি পাল্টে আরও শক্তিশালী হয়ে বাংলাদেশের উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’। আইলার চেয়েও বেশি ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে এই ঘূর্ণিঝড়ে। বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, ঘণ্টায় ১০০-১২০ বেগের বাতাসের শক্তি নিয়ে উপকূলের দিকে ছুটে আসছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। এ গতি আরও ক্রমশ বেড়েই চলেছে। স্যাটেলাইট ফটোতে পাওয়া ছবি অনুযায়ী, বুলবুলের প্রথম আঘাত পড়বে সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলায়।

ভারতের গঙ্গাসাগর হয়ে বাংলাদেশে ঢুকবে বুলবুল। উপকূল পার হয়ে বুলবুল বয়ে যাবে দেশের মধ্যাঞ্চলের ওপর দিয়ে। একমাত্র রংপুর জেলা ছাড়া সব জেলাতেই বইবে ঝড়ো হাওয়া ও সাথে থাকবে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি। আগামী ২৪ ঘণ্টা পুরো বাংলাদেশে এর প্রভাব থাকবে। বুলবুলের প্রভাব পড়বে রাজ্যের রাজধানী কলকাতাতেও। বিভিন্ন জায়গায় ৬০ থেকে ৭০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলায় সতর্ক রয়েছে কলকাতা পুলিশ ও দুর্যোগ বিপর্যয় বাহিনী।

জেনে রাখা ভালো, ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ বাংলাদেশের খুব সন্নিকটে চলে এসেছে। দুপুরের পরপরই এটি আছড়ে পড়তে পারে দেশের উপকূলে। মোংলা ও পায়রা বন্দরে ১০ নম্বর এবং চট্টগ্রাম বন্দরকে ৯ নম্বর মহা বিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের আগে, ঝড়ের তাণ্ডব চলার মধ্যে এবং ঝড় থেমে যাওয়ার পর কী করা উচিত আর কী করা উচিত নয়, সে বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি জনসচেতনতামূলক বার্তা দিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর।

বিডি২৪লাইভের পাঠকদের জন্য হুবহু সেই বার্তা তুলে ধরা হল-
ঘূর্ণিঝড়ের আগে
১. যথাসম্ভব নিজেকে শান্ত রাখার চেষ্টা করুন। ২. এই সময়ে অনেক গুজব রটে। সেসবে কান দেবেন না। ৩. জরুরি প্রাথমিক চিকিৎসা সামগ্রী কাছে রাখুন। ৪. লোকের মুখের কথা না শুনে, শুধুমাত্র সরকারি বার্তায় বিশ্বাস রাখুন। ৫. ঝড়ে গাছ পড়ে গিয়ে বিদ্যুৎ বিভ্রাট হতে পারে। তাই নিজের মোবাইল ফোন আগেই সম্পূর্ণ চার্জ দিয়ে রাখুন।

বিপদের সময় যেকোনো মুহূর্তে মোবাইলের দরকার হতে পারে।
৬. পোষ্যদেরও বাড়ির ভেতর নিরাপদ স্থানে রাখুন।
ঘূর্ণিঝড়ের সময়- ১. ঝড় শুরু হলে প্রথমেই বাড়ির ভেতরের বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে দিন। তা না হলে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

২. ঘরের দরজা-জানালা ভাল করে বন্ধ রাখুন। ফুটানো বা ক্লোরিন দেওয়া পানি পান করুন। ৩. ঝড়ের সময় যদি রাস্তায় থাকেন, তা হলে যত দ্রুত সম্ভব কোনো সুরক্ষিত স্থানে আশ্রয় নিন। গাছ বা বিদ্যুতের খুঁটির নিচে দাঁড়াবেন না। ৪. রেডিও/ট্রানজিস্টারে খবর শুনুন। ঘূর্ণিঝড়ের পর ১. ঝড়ে ক্ষতি হয়েছে এমন কোনো বাড়িতে আশ্রয় নেবেন না। ২. ছিঁড়ে পড়ে থাকা বিদ্যুতের তারে হাত দেবেন না।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme
[X]