সর্বশেষ আপডেট
বোনের বিয়ে খেতে গিয়েছিলেন ট্রেন কেড়ে নিলো এসএসসি পরীক্ষার স্বপ্ন । স্বাদের আমেরিকাঃ মধ্যরাতেই যখন আমার ভোর হত, শুনুন এই প্রবাসী ভাই এর দুঃখ-কষ্টের গল্পটি । মালয়েশিয়ার শ্রমবাজারঃ কর্মী পাঠানোর সিদ্ধান্ত ঘোষনা, জানুন কত তারিখ । চলতি বছরে আড়াই হাজার বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠিয়েছে কুয়েত । জানা গেলো ভ’য়াবহ ট্রেন দুর্ঘ’টনার কারণ । একাউন্টিং ডে উপলক্ষে রাবিতে প্রথমবারের মতো অ্যাকাউন্টিং ফেস্ট উদযাপিত । কসবায় ট্রেন দুর্ঘটনাঃ আহত শিশুটির পরিবারের সন্ধানে সকলের সহযোগিতা কামনা । বুলবুলে উড়ে গেছে টিনের চাল, ভেতরে এতিম শিশুদের কোরআন তিলাওয়াত । নি;হ’ত শিশুটির পরিবারের সন্ধান মিলছে না । বুলবুলের প্রভাব না কাটতেই ধেয়ে আসছে ‘নাকরি’
অবশেষে জানা গেল যেখানে দা,ফন করা হবে সাদেক হোসেন খোকাকে

অবশেষে জানা গেল যেখানে দা,ফন করা হবে সাদেক হোসেন খোকাকে

যুক্তরাষ্ট্রে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মা**রা গেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এবং ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকা মৃ**ত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৭ বছর। বাংলাদেশ সময় সোমবার দুপুর ১টা ৫০ মিনিটে তিনি মা***রা যান।সাদেক হোসেন খোকার শ্যালক শফিউল আজম খান বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন,

পরিবারের পক্ষ থেকে তাঁর মৃ**তদেহ ঢাকায় আনার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সাদেক হোসেন খোকার ইচ্ছা অনুযায়ী জুরাইন কবরস্থানে তাকে তাঁর বাবা-মায়ের কবরের পাশে দা*ফন করা হবে। তিনি উল্লেখ করেছেন, দুই বছর আগে সাদেক হোসেন খোকার বাংলাদেশ পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হবার পর,

নিউইয়র্কে বাংলাদেশ দূতাবাসে তিনি মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করেও জবাব পাননি। এখন তাঁর মৃ**তদেহ ঢাকায় নেয়ার জন্য বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ট্রাভেল ডকুমেন্ট প্রয়োজন। শফিউল আজম খান জানিয়েছেন, তাদের পরিবারের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ দূতাবাসে ট্রাভেল ডকুমেন্টের জন্য ইতিমধ্যে আবেদন করেছেন।

সেই কাগজ হাতে পাবার পরই তাঁর মৃ**তদেহ দেশে ফিরিয়ে আনার সময়ক্ষণ পরিবার ঠিক করবেন। ফুসফুসের ক্যান্সা*রে আক্রান্ত হয়ে মিঃ খোকা নিউ ইয়র্কের মেমোরিয়াল স্লোয়েন ক্যাটারিং ক্যান্সার ইন্সটিটিউট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সাদেক হোসেন খোকা ১৯৫২ সালের ১২ই মে ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৭১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র হিসেবে তিনি মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেন। ১৯৯১ সালে তিনি জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রথম সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন এবং তিনি তিনবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০০২ সালে তিনি ঢাকার মেয়র হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন অবিভক্ত ঢাকার শেষ নির্বাচিত মেয়র।

২০০৮ সালে তার বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে একটি মামলা করে দুদক। এরপর ২০১২ সালে চিকিৎসার উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়েন সাদেক হোসেন খোকা। পরের বছর ২০১৫ সালে দুর্নীতির মামলায় তাকে ১৩ বছরের কারাদণ্ড দেয় ঢাকার একটি আদালত। সর্বশেষ সাদেক হোসেন খোকার পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হলেও সরকার তা নবায়ন করেনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme