সর্বশেষ আপডেট
পবিত্র কোরআনের হাফেজের মুখে লাথি মেরেছিল বুয়েট ছাত্রলীগ সভাপতি । মা’রতে মা’রতে ঘে’মে যায় অনিক, পা ধরে অ’নুনয় করেছিলো আবরার । যৌ’নপল্লীতে যাওয়া পুরুষদের গোপন তথ্য ফাঁ’স । গাছে ঝুলন্ত শিশুর পেটে বিদ্ধ দুটি ছুরিতে দুজনের নাম । দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা ভালো থাকলে বিনা মূল্যে হজ্জ পালনের সুযোগ দিতামঃ ইমরান খান । হাজারো ভক্তের হৃদয় ভেঙে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে যাচ্ছেন সাবিলা নূর । বিসিএস সিলেবাস, যার শুরু আছে কিন্তু শেষ বলে কিছু নেই । লাক্স সুন্দরী এখন স্বামীসহ বিসিএস ক্যাডার । আবরার ফাহাদকে নিয়ে ভারতীয় তরুণীর যে হৃ*দয়*স্পর্শী স্ট্যাটাস ভা*ইরাল । চোখে নেই আলো, কুরআনের আলোয় আলোকিত ওরা তিন হাফেজ ।
আবরার হ’ত্যার আ’সামি আকাশ, ভ্যানচালক পিতার স্বপ্ন ভেঙ্গে চুরমার ।

আবরার হ’ত্যার আ’সামি আকাশ, ভ্যানচালক পিতার স্বপ্ন ভেঙ্গে চুরমার ।

জয়পুরহাট সদরের দোগাছি গ্রামের বাসিন্দা আতিকুল ইসলাম। পেশায় ভ্যানচালক তিনি। হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রমের টাকা ও প্রতিবেশীদের সহযোগীতায় নিজের মেধাবী ছেলে আকাশকে ভর্তি করিয়েছিলেন বুয়েটে। আশায় ছিলেন অভাবের সংসারে এক সময় পূর্ণতা আসবে আকাশের হাত ধরে। ইঞ্জিনিয়ারিং পাস করে আকাশ সংসারের হাল ধরবে।

কিন্তু ভ্যানচালক বাবার সে স্বপ্ন ভে’ঙ্গে চুরমার হয়ে গেছে ছেলেকে কাঠগ’ড়ায় দেখে। বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হ’ত্যার ঘটনা দেশব্যাপী চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে। আবরার হ’ত্যা মামলায় এ পর্যন্ত ১৩ জনকে রি’মান্ডে নিয়েছে পুলিশ।এদের মধ্যেেএকজন জয়পুরহাটের ভ্যানচালক আতিকুল ইসলামের ছেলে বুয়েটের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ১৬তম ব্যাচের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র মো. আকাশ হোসেন (২১)। বুধবার আদালত তার পাঁচ দিনের রি’মান্ড মঞ্জুর করেন।

আকাশের বাবা আতিকুল ইসলাম বলেন, আকাশ ছাত্রলীগের বুয়েট শাখার সদস্য, এটা জানতাম না। তবে ছেলেকে রাজনীতিতে জড়িত না হত বারবার নিষেধ করেছিলাম। সে যদি আমার কথা শুনতো তাহলে আজ এ পরিস্থিতি হতো না।দীর্ঘশ্বাস ছেড়ে আতিকুল বলেন, ‘সব স্বপ্ন শেষ । এখন স্বপ্ন পূরণ তো দূরের কথা, জীবনটাই বাঁচানো দায় হয়ে পড়ছে। পুরো পরিবার দুশ্চিন্তায় চোখে মুখে সব ঝাঁপসা দেখতেছি।’

তিনি বলেন, ছেলেকে বুয়েটে পাঠায়ছিলাম ইঞ্জিনিয়ার বানাতে। নিজে না খেয়ে তার জন্য মাসে মাসে টাকা পাঠায়ছি আজ এই দিন দেখার জন্য!আকাশের বাবা আরো বলেন, পুরো জয়পুরহাট জেলার লোক তার সুনাম করছিল। মেট্রিক-ইন্টারে গোল্ডেন এ প্লাস পাইছে। এলাকার মানুষ তার লেখাপড়ায় নিজ থেকে সহযোগিতা করেছে। আজ সব শেষ হয়ে গেল।

কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলায় সীমান্ত এলাকা থেকে তিন র‌্যাব সদস্য ও তাদের দুই সোর্সকে ধরে নিয়ে গেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)।বৃহস্পতিবার(১০ অক্টোবর) সকাল ৯টার দিকে উপজেলার আশাবাড়ি সীমান্তের ১০ নম্বর গেট এলাকা থেকে তাদের ধরে নিয়ে যাওয়া হয়।আটক তিন র‌্যাব সদস্য হলেন, কনস্টেবল রিদান বড়ুয়া, আবদুল মজিদ ও সৈনিক ওয়াহিদ। তবে র‌্যাবের সঙ্গে থাকা দুই নারী সোর্সের নাম জানা যায়নি।

তারা র‌্যাব-১১ এর কুমিল্লা সিপিসি-২ এর সদস্য বলে জানা গেছে। খবর পেয়ে র‌্যাব, বিজিবি ও পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছে। কিন্তু এখনো এ বিষয়ে বিজিবি কিংবা র‌্যাবের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।কুমিল্লা জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার পরিদর্শক (ডিআইও-১) মাহবুব মোর্শেদ বলেন, ৩ র‌্যাব সদস্য ও দুই সোর্স আটক হওয়ার খবর জানা গেছে। তাদের ফিরিয়ে আনতে পতাকা বৈঠক হবে।

তবে স্থানীয় সূত্র বলছে, তিন র‌্যাব সদস্যকে নিয়ে মা’দক উদ্ধার করতে সীমান্তের ২০৫৯ নম্বর পিলারের কাছে একটি বাড়িতে যান সোর্সরা। সে সময় ভুলবশত সীমান্ত অতিক্রম করায় তাদের আটক করে নিয়ে গেছে বিএসএফ।জানান যায়, ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার আশা বাড়ি সীমান্ত দিয়ে ভারতে ঢুকে জলিল ও হাবিলের বাড়িতে যায় র‌্যাবের দুই নারী সোর্স। তাদের বাড়িতে গিয়ে দুই সোর্স মা’দক সেবন শেষে মা’দক ক্রয় করতে চাইলে তারা বিক্রি করতে রাজি হয়।

পরে চার বান্ডিল জাল টাকা নিয়ে ভারতে ঢুকে ব্যবসায়ী জলিল ও হাবিলকে আটকের চেষ্টা করে র‌্যাব। খবর পেয়ে স্থানীয় মা’দক ব্যবসায়ীরা র‌্যাবের তিন সদস্যসহ দুই নারী সোর্সকে আটক করে মারধর শুরু করে।কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া থানার ওসি শাহাজান কবির জানান, র‌্যাবের ভাষ্য মতে দুই নারী সোর্সের মাধ্যমে তিন র‌্যাব সদস্য মা’দক উদ্ধার এবং দুই ব্যবসায়ীকে আটক করতে সীমান্তে যায়।

সেখানে স্থানীয়রাসহ মা’দক ব্যবসায়ীরা তাদের আটক করে। এলাকাটা ভারত সীমান্তের ভেতরে হওয়ায় বর্তমানে তিন র‌্যাব সদস্যসহ দুই নারী সোর্স বিএসএফের হেফাজতে আছে। পুলিশ এবং বিজিবি সীমান্তে রয়েছে। আমারও যোগাযোগ রাখছি। এ বিষয়ে কুমিল্লা দক্ষিণের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, ঘটনা শুনেছি। পতাকা বৈঠকের প্রক্রিয়া চলছে বলে জেনেছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme
[X]