সর্বশেষ আপডেট
স্বপ্নে শারীরিক সম্পর্ক হলে যা করবেন । মালেয়শিয়া প্রবাসীদের ঢাকা ফিরতে খরচ হবে যত টাকা । হানিমুনে গিয়ে মিথিলাকে ছেড়ে দিলেন সৃজিত । প্রধানমন্ত্রীও জানেন না আমার হাত কতটুকু লম্বাঃ এসআই লতিফ । প্রথম সন্তানের সঙ্গে ছবি পোস্ট করে হইচই ফেলে দিলেন শুভশ্রী । বিপিএল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মাতিয়ে যত টাকা নিলেন সালমান-ক্যাটরিনা । প্রবাসীর স্ত্রী অবা’ধে পরকীয়া চালাতেই ট্রিপল মা’র্ডার, খ’লনায়িকা গ্রেফতার । আজ ১০/১২/২০১৯ তারিখ, দিনের শুরুতেই দেখে নিন আজকের টাকার রেট কত । কুয়েত প্রবাসী যুবককে সর্বস্বান্ত করলেন নোয়াখালীর ২ কলেজ ছাত্রী । ছেলেদের মধ্যে যে জিনিস দেখলে যে কোনো মেয়েরা দুর্বল হয়ে যায় ।
শুনে শুনেই পুরো কুরআন মুখস্ত করলেন অন্ধ ইসরা

শুনে শুনেই পুরো কুরআন মুখস্ত করলেন অন্ধ ইসরা

ছোটবেলা কুরআন শিখতে পারেনি দৃষ্টি প্রতিবন্ধি যায়নাব ইসরা। শৈশব-কৈশোর পেরিয়ে ৩১ বছর বয়সে এসে শুনে শুনেই পুরো কুরআনুল কারিম মুখস্ত করতে সক্ষম হয়েছেন। ইসরার জন্য এটা আল্লাহ তাআলার এক মহা অনুগ্রহ। তুরস্কের খাটায় প্রদেশের আলেকজান্দ্রিয়া শহরের সরিসিকির উকুর পরিবারে জন্ম নেয়া ইসরা। উকুর পরিবারের ৫ সন্তানের মধ্যে এক সন্তান হলেন ইসরা। ছোট বেলায় তার পবিত্র কুরআন মুখস্ত করার সুযোগ হয়নি।

গত ৪ বছর আগে তিনি নারীদের এক কুরআন প্রশিক্ষণ কোর্সে ভর্তি হন। কুরআন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ভর্তি হয়ে শুরু করেন কুরআন শেখা। তারপর শুনে শুনেই মুখস্ত করতে থাকেন পবিত্র কুরআন। ২ বছরে পবিত্র কুরআন মুখস্ত করতে সক্ষম হন। ২০১৭ সালে তুরস্কের কিয়েসারি শহরে অনুষ্ঠিত এক হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে সফলতার সঙ্গে উত্তীর্ণ হন।

এরপর বেশ কয়েক বার তিনি পবিত্র কুরআনুল পুরোপুরি পড়ে শুনিয়েছেন। যায়নাব ইসরার ভাষায়, নারীদের জন্য কুরআন প্রশিক্ষণ কোর্সে ভর্তি হয়েই আমি পবিত্র কুরআনের অডিও ফাইল শুনতে শুরু করি। কুরআন তেলাওয়াতের অডিও ফাইল শুনে শুনেই পুরো কুরআনুল কারিম মুখস্ত করতে সক্ষম হই।

উল্লেখ্য, ৮০ বছরের বৃদ্ধ। দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে মসজিদে আজান দেন। প্রতিদিন বাড়ি থেকে পায়ে হেটে মসজিদে গিয়ে আজান দেয়াকে জীবনের ব্রত হিসেবে বেছে নিয়েছেন। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার ভাজানের ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায়। সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদের এক মসজিদের মুয়াজ্জিন তিনি। বৃদ্ধ বয়সেও তিনি মসজিদে আজাদ দেয়া থেকে বিরত থাকতে চান না। নিজ বাড়ি থেকে বেশ কিছু দূরের একটি মসজিদে তিনি আজান দিয়ে থাকেন।

এ অন্ধ মুয়াজ্জিনের দীর্ঘ ৪০ বছরের দায়িত্ব পালনকালে কোনো দিন তার আজান ও নামাজের জামাআত মিস হয়নি।হাতের লাঠিতে ভর করেই তিনি সময়মতো মসজিদে উপস্থিত হন। বাড়ি থেকে বেশ কিছু দূরত্বের এ মসজিদে আজান দেয়ার দায়িত্ব পালন সম্পর্কে এ অন্ধ মুয়াজ্জিন জানান- ‘আমি মহান আল্লাহ তাআলার কাছে গোনাহ মাফ, ক্ষমা প্রাপ্তি ও জান্নাত লাভের জন্যই প্রতিদিন পায়ে হেঁটে মসজিদে আসি, আজান দেই এবং নামাজ শেষে পায়ে হেঁটেই বাড়ি যাই।’

আল্লাহ তাআলা এ অন্ধ মুয়াজ্জিনকে তার প্রিয় বান্দা হিসেবে কবুল করে নিন। তার নিয়মিত মসজিদে আসা-যাওয়ার এ মহান উদ্দেশ্য প্রত্যেক মুমিন-মুসলমানের হৃদয়ে তৈরি করে দিন। আমিন। আরো পড়ুন… বয়সের কাছে হার মানেননি রংপুরের সাহেবগঞ্জ এলাকার মতিয়ার রহমান মতি। বয়স প্রায় ৯০ বছর হলেও নিজেই উপার্জন করে সংসার চালান। ছেলে-মেয়ে থাকলেও তার দেখভাল করতে হয় না তাদেরকে। এলাকায় একজন পুঁথি পাঠক হিসেবেও বেশ নামডাক আছে তার।

রংপুর সদরের হারাগাছ রোডের কালির থান মোড় বাজারে একটি ছোট দোকান দিয়েছেন তিনি। অল্প পুঁজির দোকান। সবসময় ক্রেতা থাকে না। আর ক্রেতা না আসলেও সমস্যা নেই তার। সময় কাটান পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত করে। মতিয়ার রহমান বলেন, ‘দোকানে ক্রেতা যখন থাকে না তখন কুরআন তেলাওয়াত করাকে আমি উত্তম মনে করি। এটা আমি প্রতিনিয়ত করি। খুব ভালো লাগে। এতে আমার অন্তরের ময়লা ও অপবিত্রতা দূর হয় বলে আমি মনে করি।’

সংসার সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তার দুই বউ ছিল। দুই বউয়ের মধ্যে প্রথম বউ মারা গেছেন। প্রথম বউয়ের ঘরে দুই ছেলে এবং দুই মেয়ে। দ্বিতীয় বউ বেঁচে আছেন। দ্বিতীয় বউয়ের ঘরে দুই ছেলে। ছেলে-মেয়ের সবাইকে বিয়ে দিয়েছেন। মতিয়ার রহমান আরও জানান, ‘জমিজমা যা ছিল তা ছেলে-মেয়েদের মধ্যে ভাগ করে দিয়েছেন। ছেলেরা আলাদা থাকেন। তিনি এখন দোকান করে জীবিকা নির্বাহ করেন। এতে আমার কোনো লজ্জা নেই। রুজি রোজগারে আল্লাহর প্রতি আমার রয়েছে অঘাত বিশ্বাস।’

কালির থান মোড় বাজারের ব্যবসায়ী রহিম উদ্দীন জানান, খুব ব্যক্তিত্ব সম্পন্ন মানুষ মতিয়ার রহমান। ছেলে-মেয়ে থাকলেও তাদের কাছে ভরণপোষণ না নিয়ে নিজেই রোজগার করে জীবিকা নির্বাহ করেন। মতিয়ার রহমানকে দেখে পথচারীসহ অনেকেই অভিভূত হয়ে পড়েন। বাজারের অন্যান্য ব্যবসায়ী ও স্থানীয় লোকজন তার কাজে অনুপ্রাণিত হন। অনেকেই এসে তার কাছে পুঁথি পাঠ শোনেন। শোনেন আরও অনেক গল্পও। মতিয়ার রহমান এই সংবাদদাতাকে তার জন্য দোয়া করতে বলেন। বলেন আল্লাহ যেন তাকে ঈমানের সাথে পরপারে নিয়ে যান।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme