সর্বশেষ আপডেট
বাবরি মসজিদ ও মুসলমানদের পক্ষে লিখলেন ভারতীয় হিন্দু লেখিকা । যুক্তরাজ্যে নিজ ঘরের পাশ থেকে এক বাংলাদেশির লাশ উদ্ধার । আবিষ্কৃত হলো ‘কৃত্রিম পাতা’ তৈরি করতে পারে ১০ শতাংশ বেশি জ্বালানি । আরো এক রেমিটেন্স যোদ্ধা কুয়েত প্রবাসী ভাই যেভাবে আমাদের ছেড়ে চলে গেলেন পরপারে । লেবাননের গণআন্দোলনে অবৈধ প্রবাসীদের দেশে ফেরার কর্মসূচি ব্যাহত । ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের অর্থায়নে দেশে ফিরছেন গৃহকর্মী সুমি । আজ (১১ নভেম্বর) ঢাকায় আন্তর্জাতিক মুদ্রার বিনিময় মূল্য । চার্জার লাইট থেকে উদ্ধার হলো ৪ কোটি টাকার স্বর্ণবার । আরব আমিরাতের পুরুষ প্রবাসীকর্মীদের জন্য সুখবর, শুরু হল নতুন ওয়ার্ক পারমিট সুবিধা । ৩ বছরে সহজ উপায়ে কানাডা যাবে ১০ লাখ মানুষ ।
গাজীপুরের কাপাসিয়ায় এক হি’ন্দু পরিবারের ই’সলাম ধর্ম গ্রহন

গাজীপুরের কাপাসিয়ায় এক হি’ন্দু পরিবারের ই’সলাম ধর্ম গ্রহন

গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার সিংহশ্রী ইউনিয়নের কুলাঙ্গা গ্রামে হিন্দু সম্প্রদায়ের এক পরিবারের ৬ জন আনুষ্ঠানিকভাবে পবিত্র ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। উপজেলার সিংহস্রী ইউনিয়নের কুলগঙ্গা মসজিদে শুক্রবার জুমার নামাজের সময় মসজিদে এসে শত শত মুসল্লিদের সামনে প্রথমে পরিবারের ৩ সদস্য স্বেচ্ছায় ইসলাম গ্রহণ করেন।

মসজিদের ইমাম নুর মোহাম্মদ ও মাওলানা আব্দুর রহিম এর মাধ্যমে তারা কালেমা পড়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহন করেন এবং পূর্বের নাম পরিবর্তন করে নতুন ইসলামী নাম ধারণ করেন। শ্রী ঝন্টু দাস মোঃ জসিম উদ্দিন, শ্রী জয়ন্ত দাস মোঃজাবের আহমেদ শ্রী সৌরভ দাস মোঃ আসাদ উল্লাহ নতুন নাম ধারণ করে নওমুসলিমরা খুতবা শুনেন এবং জুমার নামাজ আদায় করেন।

জুমার নামাজ শেষে ঝন্টু দাস নতুন নাম জাহাঙ্গীর আলম জসিম মসজিদের ইমামকে সাথে নিয়ে তাদের বাড়িতে এসে মা, বাবা ও স্ত্রী সহ স্বপরিবারে ইসলাম ধর্ম গ্রহন করেন। পরিবারের ইসলাম ধর্ম গ্রহণকারী সদস্যরা হলেন, অনিল চন্দ্র দাস (৭০), স্ত্রী শ্রীমতি রুনুবালা দাস (৬৫), ছেলে ঝন্টু দাস (৪০), ঝন্টু দাসের স্ত্রী শ্রীমতি লতা রানী দাস(৩৫), তাদের

ছেলে জয়ন্ত দাস (১০) ও সৌরভ দাস (৭)। তাদের সকলেরই ইসলামী নাম রাখা হয় অনিল চন্দ্র দাসের নতুন নাম রাখা হয় মোঃ আশিকুল্লাহ তার স্ত্রী রুনুবালা দাসের নাম রাখা হয় মোছাঃ রাবেয়া খাতুন। লতা রানী দাস আয়শা খাতুন নাম ধারণ করে প্রবাসে থাকা অবস্থায় ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন।

পরে সে পরিবারের অন্য সদস্যদের ইসলাম গ্রহণের জন্য উদ্বুদ্ধ করে। ইসলাম ধর্ম গ্রহণের ব্যাপারে নও মুসলিম জাহাঙ্গীর আলম জসিম (ঝন্টু দাস) ও তার বাবা আতিকুল্লাহ (অনিল চন্দ্র দাস) বলেন, আমরা স্বেচ্ছায় শান্তির ধর্ম পবিত্র ইসলাম গ্রহণ করেছি। আমাদেরকে কেউ চাপ দিয়ে ধর্মান্তরিত করেনি।

স্বপরিবারে হিন্দু থেকে মুসলিম হওয়ায় স্থানীয়রা নও মুসলিমদের বিভিন্ন প্রকার সাহায্য ও সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আশ্রাফ উদ্দিন খান আল আমিন নও মুসলিমদেরকে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বিভিন্ন প্রকার সাহায্য সহ সব সময় তাদের পাশে থাকার আশ্বাস প্রদান করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme