ক্যাসিনোতে পাপন, স্যোশাল মিডিয়ায় তোলপাড়

ক্যাসিনোতে পাপন, স্যোশাল মিডিয়ায় তোলপাড়

যখন বাংলাদেশ ক্রিকেট সবচেয়ে সংকটময় দিন কাটাচ্ছে। যখন বাংলাদেশ ক্রিকেটের নাম্বার ওয়ান তারকা সাকিব আল হাসানকে আইসিসি নিষিদ্ধ করেছে, সেই সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ছবি ছড়িয়ে পড়েছে। ছবি দুটিতে দেখা যায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন একটি ক্যাসিনোতে খেলছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে এই ছবিটি অনেক আগের। এটি সিঙ্গাপুরের মেরিনা বে- ক্যাসিনোর ছবি। সেখানে পাপন নিয়মিত যেতেন বলেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চাওর হয়েছে। এ ব্যাপারে জনাব নাজমুল হাসান পাপনের ব্যক্তিগত মোবাইল নং এ একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তার বক্তব্য জানা সম্ভব হয় নি।

উল্লেখ্য যে, পাপনের ঘনিষ্ঠ বন্ধু ফালুর ক্যাডার এবং খালেদা জিয়ার ছাতি বহনকারী লোকমান হোসেন ভুঁইয়া মোহামেডান ক্লাবে ক্যাসিনো বাণিজ্য করতেন। ক্যাসিনো বাণিজ্যের অভিযোগে তাকে গ্রে প্তার করা হয়েছে। গ্রে প্তার করা হলেও তাকে এখনো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক পদ থেকে অপসারিত বা অব্যাহতি দেওয়া হয়নি।

অন্যদিকে, বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে সবধরনের ক্রিকেট থেকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। তার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রিকেটপ্রেমী শিক্ষার্থীরা।বুধবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের সামনে ক্রিকেট নিয়ে ষড়যন্ত্র ও বিসিবির সভাপতি পাপনকে অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ কর্মসূচী করে তারা।

বিক্ষোভ সমাবেশে শিক্ষার্থীরা বলেন, বর্তমান বাংলাদেশ ক্রিকেট বিশ্বে মর্যাদার সঙ্গে তার পরিচয় জানান দিচ্ছে। সে সময়ে আইসিসি ও বিসিবি সিদ্ধান্ত গুলো দেশের ক্রিকেট হুমকির মুখে ঠেলে দিচ্ছে। সাকিব বিশ্বের নাম্বার ওয়ান অলরাউন্ডার। তাকে দমিয়ে রাখার জন্য চলছে নানা ষড়যন্ত্র। বাংলাদেশ ক্রিকেট নিয়ে যে ষড়যন্ত্র চলছে তা কখনও মেনে নেওয়া হবে না। ক্রিকেট বোর্ডকে দলীয়করণ ও অপরাজনীতি মুক্ত করতে হবে।

এ সময় ক্রিকেটপ্রেমীরা তিনটি দাবি জানিয়ে বলেন, সাকিবের প্রতি ষড়যন্ত্রমূলক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে খেলার মাঠে ফিরিয়ে দিতে হবে। ক্রিকেট বোর্ড সভাপতিকে অবিলম্বে প্রত্যাহার করতে হবে। বাংলাদেশ ক্রিকেট ও ক্রিকেটারদের নিয়ে সকল ষড়যন্ত্র রুখে দিতে হবে।উল্লেখ্য, এক জুয়ারির কাছে থেকে ম্যাচ পাতানোর প্রস্তাব পেয়েছিল সাকিব কিন্তু সেটা আকসুকে না জানানোর প্রেক্ষিতে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়ে সেটাকে প্রত্যাখ্যান করলেও আইসিসিকে না জানানোর কারণেই এই শাস্তি আরোপ করা হয়।

তবে দোষ স্বীকার করার কারণে ১ বছরের শাস্তি স্থগিত করেছে আইসিসি। আইসিসির পক্ষ থেকেই এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ২০১৮ আইপিএলে এবং সেই বছরের জানুয়ারিতে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের মধ্যকার ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজে মোট ৩ বার ম্যাচ পাতানোর প্রস্তাব পেয়েছিলেন সাকিব। আইপিএলে ২৬ এপ্রিল হায়দরাবাদ-পাঞ্জাবের মধ্যকার ম্যাচ পাতানোর কথা উল্লেখ করেছে আইসিসি।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme
[X]