সর্বশেষ আপডেট
হিন্দুদের ইয়োগা অনুশীলন করা হচ্ছে ভারতের মসজিদে টাঙ্গাইলে করোনা ভা’ই’রা’স আ’ত’ঙ্কে প্রবাসী স্বামীকে ছেড়ে পালাল স্ত্রী যে কারণে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় তৃতীয়স্থান পাওয়া ঢামেকের শিক্ষার্থীর আ’ত্ম’হ’ত্যা’র চেষ্টা দেহ ব্যবসায় বেশি বিবাহিত নারীরা, ফাঁস হলো গোপন তথ্য… মাহফিল থেকে ফেরার পথে আলোচিত মুফাসসির আব্দুল্লাহ আল-আমিন গ্রেফতার বুয়েটের সেই ইফতি এখন রকেট ইঞ্জিনিয়ার মানবপাচারে এমপি জড়িত, পররাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন ‘ভূয়া’ ঢাকায় রেললাইনে সেলফি তোলার সময় ট্রেনের ধাক্কায় কিশোর নিহত তাহসানের মত হ্যান্ডসাম হতে প্লাস্টিক সার্জারি করাচ্ছেন সৃজিত! করোনা আক্রান্ত সন্দেহে টাঙ্গাইলে প্রবাসীর সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ স্থানীয়দের
সাকিবের নিষেধাজ্ঞায় সংসদে তোপের মুখে পাপন

সাকিবের নিষেধাজ্ঞায় সংসদে তোপের মুখে পাপন

জাতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম প্রাণভোমরা সাকিব আল হাসানের অনুপস্থিতি খুব বাজেভাবেই টের পাচ্ছে বাংলাদেশ। এক যুগ পর পাকিস্তান সফরে গিয়ে হোয়াইটওয়াশের লজ্জায় পড়তে হয়েছে টাইগারদের। বাংলাদেশের এমন ভরাডুবির প্রসঙ্গ তাই বাদ যায়নি জাতীয় সংসদের অধিবেশনেও। আর সেখানে সাকিবের নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের কঠোর সমালোচনা করেছেন সাংসদরা।

জাতীয় সংসদে সাকিবের নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে বিসিবির সমালোচনা করেছেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ফখরুল ইমাম। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের দায়িত্ববোধের ব্যাপারে প্রশ্ন তুলে অনুরোধ জানিয়েছেন যত দ্রুত পারা যায় সাকিবকে ক্রিকেটে ফেরানোর পদক্ষেপ নিতে। মঙ্গলবার (২৯ জানুয়ারি) তিনি সংসদে বলেন, ‘আমাদের জন্য দুঃসংবাদ যে, আমাদের বিসিবির প্রভাবশালী সভাপতি (পাপন) পারলেন না আমাদের সাকিবকে ফেরাতে।

সাকিব এক বছর খেলার বাইরে থাকল এটা আমাদের বোধগম্য নয়, এর আগেও দেখেছি সভাপতি যারা ছিলেন দক্ষতার সঙ্গে চালিয়েছেন। আমি আশা করি, এটার শাস্তির কমানোর ব্যাপারে আরেকটু পদক্ষেপ নেয়া হবে।’ উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থা (আইসিসি) গত বছরের অক্টোবরে সাকিবকে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে। এর মাঝে থাকছে এক বছর স্থগিত নিষেধাজ্ঞা। আইসিসির দুর্নীতিবিরোধী নীতিমালার আইন লঙ্ঘনের অপরাধে সাকিবকে এ শাস্তি দিয়েছে আইসিসি। বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক অবশ্য এর দায় মেনে নিয়েছেন।

আজকের আলোচিত খবর… টিনের ব্যবসা থেকে ওয়ালটনের মালিক নজরুল ইসলাম। প্রতিষ্ঠা আর সাফল্যের অন্যতম উদাহারণ ওয়ালটন গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান এসএম নজরুল ইসলাম। বাংলাদেশের ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিক্স উৎপাদন শিল্পের পথিকৃৎ ছিলেন তিনি। ২০০২ সালে দেশের অন্যতম শীর্ষ ইলেকট্রনিক্স, ইলেকট্রিক্যাল ও হোম অ্যাপ্লায়েন্সেস প্রস্তুত ও বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপ যাত্রা শুরু করে। বর্তমানে গাজীপুরের চন্দ্রায় এ প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব জমিতে গড়ে উঠেছে ওয়ালটন হাইটেক ও ওয়ালটন মাইক্রোটেক কর্পোরেশন নামের দুটি ফ্যাক্টরি।

এ ফ্যাক্টরি থেকে ইলেকট্রনিক্স, ইলেকট্রিক্যাল ও হোম অ্যাপ্লায়েন্সেস প্রস্তুত হয়ে বাজারজাত হচ্ছে দেশজুড়ে। এর অঙ্গপ্রতিষ্ঠান ড্রিম পার্ক ইন্টারন্যাশনাল, মার্সেল ও ডিজিটেক। ওয়ালটন গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান এসএম নজরুল ইসলামের ছোট ভাই ও ওয়ালটন গ্রুপের অপারেটিভ ডিরেক্টর আলহাজ মো. মজিবুর রহমান জানান, পারিবারিকভাবে

ব্যবসায়ী ছিলেন এসএম নজরুল ইসলাম। ব্রিটিশ আমলে তিনি কর্ণফুলি পেপার মিলের ঠিকাদারি কাজে লিপ্ত ছিলেন। এরপর দেশ স্বাধীনের পর বিভিন্ন ধরনের ঠিকাদারি ব্যবসা পরিচালনা শুরু করেন। টাঙ্গাইল পৌর এলাকার আদালত রোডে ছিল নিজস্ব টিনের ব্যবসা। এ ব্যবসায় মন্দা দেখা দেয়ায় নতুন ব্যবসার উদ্যোগ গ্রহণ করেন। এরই ধারাবাহিকতায় ট্রাইকন টিভি তৈরি ও বাজারজাতকরণের মাধ্যমে শুরু করেন ইলেকট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক্যাল ব্যবসা।

কিছুদিন এ ব্যবসা পরিচালনার পর ২০০২ সালে এসএম নজরুল ইসলামের হাত ধরে যাত্রা শুরু করে ওয়ালটন গ্রুপ। ১৯২৪ সালে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার ঘারিন্দা ইউনিয়নের গোসাই জোয়াইর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন এসএম নজরুল ইসলাম। তার বাবার নাম সরকার মো. আতোয়ার আলী। ব্যবসায়ী হওয়া সত্ত্বেও এসএম নজরুল ইসলাম নানা সমাজ সেবামূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত ছিলেন। তার নিজস্ব জমির ওপর নির্মিত হয়েছে গোসাই জোয়াইর কমিউনিটি ক্লিনিক।

এর আসবাবপত্র দাতাও ছিলেন তিনি। তিনি টাঙ্গাইল কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংকের পরিচালক, জমি বন্ধকি ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক, জেলা সার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি ও গোসাই জোয়াইর আজিম মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি ছিলেন। বর্তমানে ওয়ালটন গ্রুপের দায়িত্ব পালন করছেন তার ছেলে এস এম নুরুল আলম রেজভী, এস এম শামসুল আলম, এস এম আশরাফুল আলম, এস এম মাহবুবুল আলম, এস এম রেজাউল আলম ও মেয়ে নিলুফা বেগম।

এছাড়া তার আরেক মেয়ে সেফালী খাতুন গৃহিণী। উল্লেখ্য, রোববার রাত ৯টা ৪০ মিনিটে রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তে;’’কাল করেন ওয়ালটন গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান এসএম নজরুল ইসলাম। সোমবার সকাল ১০টায় বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় অবস্থিত ওয়ালটন গ্রুপের কর্পোরেট অফিসে (প্লট-১০৮৮, রোড- ৮০ফিট-২, ব্লক-আই, বসুন্ধরা আ/এ) তার প্রথম জানাজা ও বেলা সাড়ে ১১টায় গাজীপুরের চন্দ্রায় অবস্থিত ওয়ালটন ফ্যাক্টরিতে দ্বিতীয় জা’’নাজা অনুষ্ঠিত হয়। তৃতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয় বাদ আসর টাঙ্গাইলের গোসাই জোয়াইর গ্রামে। এরপর পারিবারিক কবরস্থানে এসএম নজরুল ইসলামকে দা’’ফন করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme