সর্বশেষ আপডেট
আবারো ভারতকে নিয়ে যা বললেন শোয়েব আখতার…

আবারো ভারতকে নিয়ে যা বললেন শোয়েব আখতার…

ক্রিকেট ছেড়েছেন ২০১১ সালে। তবে মাঠের ক্রিকেটারদের চাইতেও খবরের শিরোনামে থাকেন পাক গতিতারকা শোয়েব আখতার।সোশ্যাল মিডিয়ায় বিশ্বক্রিকেট নিয়ে নানা মন্তব্য করে সবসময়ই আলোচনায় থাকেন তিনি। এ নিয়ে কখনও স্বদেশী আবার কখনও বিদেশি ক্রিকেটারদের সমালোচনার স্বীকার হন। বিশেষ করে চিরবৈরী দেশ ভারতের সাবেক ক্রিকেটারদের সঙ্গে মাঝেমধ্যেই বাগযুদ্ধে নেমে পড়েন শোয়েব। সম্প্রতি ভারতীয় সাবেক তারকা ওপেনার বীরেন্দ্র শেবাগের সঙ্গেও তর্কযুদ্ধে জড়িত হলেন তিনি।

শুরুটা করেছিলেন বীরেন্দ্র শেবাগই। এক সাক্ষাৎকারে শেবাগ বলেছেন– শোয়েব আখতারের খুব অর্থের প্রয়োজন, এ জন্যই তিনি ভারতের পক্ষে কথা বলেন।শেবাগের এমন মন্তব্য মাটিতে ফেলেননি শোয়েব আখতার। বুমেরাং ছুড়লেন তিনি। পাল্টা জবাবে ইউটিউব চ্যানেলে শোয়েব আখতার বলেন, আমার অর্থের প্রয়োজন নেই। ভারত আমাকে খাওয়ায় না, আল্লাহ আমার রিজিকের ব্যবস্থা করেন। শেবাগের মাথায় যতগুলো চুল আছে তার চেয়েও বেশি টাকা আমার আছে।

শেবাগের চেয়ে বিশ্বক্রিকেটে তার জনপ্রিয়তা কম নয় জানিয়ে শোয়েব বলেন, আমি শুধু ভারত নয়, সারাবিশ্বেই জনপ্রিয়। আপনি খোঁজ নিয়ে দেখুন বাংলাদেশে গেলে আমার গাড়ি যাওয়ার জন্য ট্রাফিক রাস্তা বন্ধ করে দেয় ওরা। শুধু বাংলাদেশেই নয়, অস্ট্রেলিয়ার রাস্তায়ও লোকেরা আমাকে দেখলে ভিড় করে। তিনি আরও বলেন, আমার ইউটিউব চ্যানেল এক মিলিয়ন গ্রাহক ছাড়িয়েছে। আমি টাকার জন্য ইউটিউবে ক্রিকেট নিয়ে বিশ্লেষণ করি না। আর ইউটিউব চ্যানেলের কারণে বিখ্যাত নই। আমি পাকিস্তানের হয়ে ১৫ বছর ক্রিকেট খেলেছি এবং বিশ্বের দ্রুততম বোলার ছিলাম। সে জন্য বিখ্যাত।

আরো পড়ুনঃ প্রকৃতি কতই না সুন্দর। কী অপরূপ। এই ফুলটিই জ্বলন্ত প্রমাণ। প্রথম দেখাতেই মন জুড়িয়ে যায়। এই ফুলের স্নিগ্ধতা বিষন্ন মনকে আনন্দে ভরে দিতে পারে! ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে দ্রুতগতরি বোলার শোয়েব আখতার গত সোমবার নিজের ভেরিফায়েড পেজে নয়নাভিরাম একটি ফুলের ছবি পোস্ট করেন। সেখানে তিনি ক্যাপশনে লেখেন, ‘আল্লাহই সবচেয়ে বড় শিল্পী এবং সর্বশক্তিমান। তিনি প্রতিটি জিনিসকে অপরুপ সুন্দর করে সৃষ্টি করেছেন। তার প্রশংসা না করে উপায় নেই।’

ফুলের এই ছবিটি দেখে শোয়েবের মতো মুগ্ধ তার ভক্তরাও। তার আলোচিত ওই টুইটের প্রতিক্রিয়ায় ভারত, পাকিস্তানসহ বিভিন্ন দেশের মানুষ শোয়েব আক্তারের প্রশংসা করেছেন। নয়া দিল্লির সৈয়দ ইনতেখাব উল হক নামে একজন লেখেন, মাশাআল্লাহ। এমন সুন্দর একটি ফুলের ছবি পোস্ট করার জন্য শোয়েব বুজদার নামে একজন লেখেন,

‘শোয়েব ভাই আই লাভ ইউ’। তাফহিমা রহমান নামে একজন লেখেন, ‘মাশাআল্লাহ, দুনিয়াবি জীবন নিয়ে ব্যস্ত থাকা সত্ত্বেও আপনি সর্বশক্তিমান আল্লাহর প্রশংসা করেছেন। আল্লাহ বেহশত নসিব করুন’। পাকিস্তানের হয়ে ১৯৯৭ সাল থেকে ২০১১ পর্যন্ত ক্রিকেট খেলেন শোয়েব আখতার। সময়ের অন্যতম সেরা পেস বোলার ছিলেন এই কিংবদন্তি। তার বোলিংয়ের সামনে বিশ্বের নামিদামি ব্যাটসম্যানরাও রীতিমতো কাপাকাপি করত।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme