এবার আর পা’লিয়ে বাঁ’চতে পারলো না ১৪ ভারতীয় জে’লে

এবার আর পা’লিয়ে বাঁ’চতে পারলো না ১৪ ভারতীয় জে’লে

বঙ্গোপসাগরে বাংলাদেশ জলসীমায় অ’বৈধভাবে প্রবেশ করে মাছ ধ’রার অ’ভিযোগে আবারও ১৪ ভারতীয় জে’লেকে আ’ট’ক করেছে নৌবাহিনীর সদস্যরা। মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) ভোরে মোংলা সমুদ্র বন্দরের অদূরে বঙ্গোপসাগরের ফেয়ারওয়ে বয়া এলাকা থেকে একটি ট্রলারসহ ১৪ জে’লেকে আ’ট’ক করা হয়।

বিকেলে আ’ট’ক জে’লেদের মোংলা থা*নায় হস্তান্তর করেছে নৌবাহিনী। এনিয়ে অক্টোবরের তিন সপ্তাহে মোট ৬৩ ভারতীয় জে’লেকে আ’ট’ক করল নৌবাহিনী। এর মধ্যে ১ অক্টোবর ১৫ জন, ৪ অক্টোবর ২৩ ও ১৪ অক্টোবর ১১ জন ভারতীয় জে’লেকে আ’ট’ক করা হয়।

আ’ট’ক হওয়া জে’লেদের বি’রুদ্ধে ১৮৯৩ সালের সামুদ্রিক মৎস্য অধ্যাদেশের ২২ ধারায় মোংলা থা*নায় মা’মলা করেছেন নৌবাহিনীর পেটি অফিসার জাহিদুল ইস’লাম। পেটি অফিসার জাহিদুল ইস’লাম বলেন, নৌবাহিনীর নিয়মিত টহলের সময় বঙ্গোপসাগরের ফেয়ারওয়ে বয়া এলাকা থেকে ৯-১০ কিলোমিটার দূরে বাংলাদেশি সীমানা থেকে একটি ট্রলারসহ ১৪জন জে’লেকে আ’ট’ক করেছি।

আ’ট’ক জে’লেদের বি’রুদ্ধে মোংলা থা*নায় মা’মলা দায়ের করা হয়েছে। মোংলা থা*নার ভারপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা (ওসি) ইকবাল বাহার চৌধুরী বাংলানিউজকে বলেন, বঙ্গোপসাগরের ফেয়ারওয়ে বয়া এলাকায় নিয়মিত টহল দেওয়ার সময় নৌবাহিনীর টহলরত জাহাজ বিএনএস নিশানের সদস্যরা বাংলাদেশ জলসীমায় একটি ফিশিং ট্রলারসহ ১৪ জে’লেকে আ’ট’ক করে আমাদের কাছে হস্তান্তর করেছে। আইনগত প্রক্রিয়া শেষে আ’ট’কদের আ’দালতে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

আরো পড়ুন… গতকাল সকালে বাংলাদেশের জলসীমায় অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাটি নিয়ে ভ’য়ঙ্ক’র অ’পপ্রচার চালাচ্ছে ভারতীয় গণমাধ্যম। ভারতীয় জে’লেদের আটক করাকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশের সীমানায় বিএসএফ গু’লি চালানোর পরই আ’ত্মরক্ষার্থে পাল্টা গু’লি চালানো হয় বলে জানিয়েছে বিজিবি।কিন্তু ভারতীয় গণমাধ্যমে বলা হচ্ছে, পতাকা বৈঠকে গু’লি চালিয়েছে বিজিবি।

যদিও এ বিষয়ে এখনও আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেয়নি ভারতীয় সীমান্ত র’ক্ষীবাহিনী। তাছাড়া কেউ বলছে শ’হিদ, কেউ বলছে গু’লি করে হ’ত্যা। তবে প্রায় সব ভারতীয় গণমাধ্যমেই শিরোনাম- বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে গু’লি চালিয়েছে বিএসএফ জওয়ানের ওপর।এদিকে ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির সব ভাষার সংস্করণেই বলা হচ্ছে, পদ্মায় মাছ ধরতে এসে আটক ভারতীয় জেলের বিষয়ে আলোচনার জন্য পতাকা বৈঠক করতে গেলে তাকে ছেড়ে দিতেই অস্বীকৃতি জানায় বিজিবি।

বিএসএফ সেনাদের ঘিরে ধরা হয়। অবস্থা বেগতিক দেখে দ্রুত সরে যেতে গেলে তাদের লক্ষ্য করে গু’লি চালায় বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষীরা। তাছাড়া দি ইকোনমিকস টাইম বলছে, পতাকা বৈঠক চলার সময়ই বিএসএফ জওয়ানদের লক্ষ্য করে গু’লি চালায় বিজিবি সদস্যরা। একই দাবি দৈনিক দ্য হিন্দু এবং নিউজ এইটিনের। টাইমস অব ইন্ডিয়া এবং পশ্চিমবঙ্গের আনন্দ বাজার পত্রিকার দাবি, বিএসএফকে লক্ষ্য করে বিজিবিই গু’লি চালিয়েছে। ২৪ ঘণ্টা জানায়, পতাকা বৈঠকের আগেই গু’লি চালালে হতাহতের ঘটনা ঘটে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 newstodaybd.com
Design BY NewsTheme
[X]